সোমবার ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১০ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মুশফিকদের আরেকটি হতাশার দিন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পোচেফস্ট্রুম টেস্টের প্রথমদিনটি হতাশায় কেটেছে বাংলাদেশের। দ্বিতীয়দিনটিতেও একই পরিণতি হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকা ব্যাটসম্যানরা এমন ব্যাটিংই করে দেখালেন যে হতাশাতেই ডুবে থাকতে হলো। এরপর বল হাতেও প্রোটিয়া বোলাররা শুরুতেই যেন বাংলাদেশের ব্যাটিং ইনিংসের মেরুদ- ভেঙ্গে দেন।

বাংলাদেশ পেসাররা একটি উইকেট পেতে ৫৫ ওভার অপেক্ষা করেছেন। সেখানে দক্ষিণ আফ্রিকা পেসাররা ষষ্ঠ ওভারেই উইকেট শিকার করে ফেলেন। যখন উইকেট পেসসুলভ আচরণ করতে শুরু করে দেয়, ৪৯৬ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই সুবিধা নিয়ে ৩৬ রানেই বাংলাদেশের ২ উইকেট তুলে নেন দুই পেসার মরকেল ও রাবাদা। ১০৩ রানে গিয়ে মুশফিককে আউট করে দেন মহারাজ। হতাশা যেন ঘিরে ধরে বাংলাদেশকে।

অবশ্য হতাশা নিজেদের দোষেই যোগ হয়। প্রথমদিনে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম টেস্ট শুরুর আগেই হতাশা যুক্ত হয়েছিল। টস জিতে মুশফিকের ফিল্ডিং নেয়া নিয়ে চরম আলোচনা হয়েছে। উইকেট মন্থর। স্পিন ধরবে তৃতীয়দিনে। পেস আক্রমণ দিয়েও তেমন কিছু করা যাবে না। ব্যাটসম্যানদের জন্য উইকেট দুর্দান্ত। এতকিছু জানার পরও যখন টস জিতে ফিল্ডিং নেয়া হলো, সবার ভেতরই হতাশা যোগ হলো। তখন ভাবা হয়েছে, হয়তো দক্ষিণ আফ্রিকাকে আগে ব্যাটিং দেয়ার কারণ আছে। যদি দক্ষিণ আফ্রিকা শুরুতে বড় স্কোর গড়ে, এরপর প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশও বড় স্কোর গড়লে ম্যাচটি ড্র হওয়ার সম্ভাবনা আছে। আর যদি দক্ষিণ আফ্রিকা কোনভাবে প্রথম ইনিংসে ধসে যায়, তাহলে ম্যাচটিতে উত্তেজনা তৈরি হতে পারে। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা ব্যাটসম্যানরা যেভাবে ব্যাটিং করলেন তাতেই যেন ম্যাচ প্রোটিয়াদের নিয়ন্ত্রণে চলে যায়।

হতাশায় ডুবে থাকার কারণ আরও আছে। প্রথমদিনেই একের পর এক ক্যাচ মিস, ফিল্ডিং মিস, রান আউট মিস হলো। যদি সুযোগগুলো কাজে লাগানো যেত তাহলে একটু হলেও সান্ত¦¦না মিলত। কিন্তু এইডেন মার্করাম ও হাশিম আমলার ক্যাচ মিস হলো। দুইজনই শেষ পর্যন্ত বড় ইনিংস খেললেন। অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসেই মার্করাম ৩ রানের জন্য সেঞ্চুরি হাতছাড়া হয়েছেন। আর আমলাতো ক্যারিয়ারের ২৭তম টেস্ট সেঞ্চুরিই করে ফেললেন। শেষ পর্যন্ত ১৩৭ রান করে আউট হয়েছেন। আরেকজন আছেন। তিনি ওপেনার ডিন এলগার। যিনি কোন সুযোগ দেননি। এতটা সাবলীল ব্যাটিং করেছেন যে ক্যারিয়ারের প্রথম ১৫০ রানের ইনিংস খেলে ফেলেছেন। শেষ পর্যন্ত ১ রানের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি করতে পারেননি। এ তিন ব্যাটসম্যানই ডুবিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশকে।

প্রথমদিনে ১ উইকেট হারিয়ে ২৯৮ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা। তখনই বোঝা হয়ে যায় বড় স্কোরই গড়তে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই স্কোরের সামনে পড়ে বাংলাদেশ বিপদেই পড়বে। সেই বিপদ এমনও হতে পারে হারের ব্যবধানও বড় হতে পারে। যদি প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ ব্যাটিংটা ভাল করতে না পারে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলা খুবই কঠিন। তা সবারই জানা। প্রোটিয়ারা প্রথম ইনিংসে যে ব্যাটিংটা করে দেখাল, তাতে প্রথম টেস্টটা বাংলাদেশের সামনে আরও কঠিন হয়েই ধরা দিল। আশা ছিল, বাংলাদেশ ভাল করবে। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংসের ব্যাটিংয়ে যেন হতাশাই ধরা দিচ্ছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেট মনে করা হয়েছিল পেসবান্ধব হবে। তাই হয়। কিন্তু দুইদিনে সেই আলামতও মিলল না। তাতে বাংলাদেশ পেসনির্ভর একাদশ গঠন করে যেন বিপদেই পড়লো। মুস্তাফিজ, তাসকিন, শফিউলরা তেমন কিছুই করতে পারলেন না। শুধু বোলিংই করে গেলেন। যখন উইকেট নেয়ার দরকার। তখন উইকেট নিতে পারলেন না।

আর এমন সময় উইকেট নিলেন, যখন দক্ষিণ আফ্রিকা ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে গেল। প্রথমদিনে ১৯৬ রানে গিয়ে ১ উইকেট পড়েছিল। দ্বিতীয়দিনে ৪১১ রানে গিয়ে পড়লো দ্বিতীয় উইকেট। আমলা ও এলগার মিলে দ্বিতীয় উইকেটে ২১৫ রানের জুটি গড়ে ফেলেন। পরপর দুই জুটি যদি ২০০ রানের হয়ে যায় তাহলে কী আর ম্যাচে কিছু থাকে?

একটা সময় গিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস ঘোষণার আশা করা ছাড়া যেন বাংলাদেশের সামনে আর কোন পথ খোলা ছিল না। দক্ষিণ আফ্রিকাও ৫০০ রান থেকে ৪ রান কম করে ইনিংস ঘোষণা করে। এরপর বাংলাদেশ শিবিরে দক্ষিণ আফ্রিকা পেসাররা হানা দেয়। স্পিনেও ঝলক দেখায়। যখন দ্রুতই ৩ উইকেট পড়ে, তখনই বিপত্তিতে পড়ে যায় বাংলাদেশ। হতাশার আরেকটি দিন মিলে।

শীর্ষ সংবাদ:
ঘুরে দাঁড়াচ্ছে অর্থনীতি ॥ শক্তিশালী হয়ে উঠছে সূচকগুলো         দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার জন্য বড় হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে         রাজনৈতিক পরিচয় কোন অপরাধীর আত্মরক্ষার ঢাল হতে পারে না ॥ কাদের         বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়াসহ যারা যুক্ত তাদের মুখোশ উন্মোচন করা প্রয়োজন ॥ তথ্যমন্ত্রী         সাবমেরিন কেবল কেটে ফেলেছে হাউজিং কোম্পানি         ওসি প্রদীপকে দেখানো দালিলিক প্রমাণই কাল হয় সিনহার         বিড়ম্বনা ছাড়াই শুরু হলো একাদশে ভর্তির অনলাইন আবেদন         লেনদেনের বিরোধের জেরে ব্যবসায়ী খায়েরকে খুন করে মিলন         বিশ্ব আদিবাসী দিবস পালিত         বরেণ্য সঙ্গীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলী আর নেই         গীতিকার ও সুরকার আলাউদ্দিন আলী আর নেই         পোশাক রফতানিতে আবারো দ্বিতীয় বাংলাদেশ         সাবমেরিন কেবল লাইনে জটিলতা দেখা দেওয়ায় সারা দেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি         স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা তৈরি করবে সংসদীয় কমিটি         ডেঙ্গু মশা নিয়ন্ত্রণে ১৬ই অগাস্ট হতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবে ডিএসসিসি         কেরালায় চা বাগানে ভূমিধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৩         কোভিড-১৯ কালীন অনিশ্চিয়তায় ধান উৎপাদন বৃদ্ধি অব্যাহত রাখার বিকল্প নেই ॥ কৃষিমন্ত্রী         ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে হলে অন্যায়ের প্রতিকার করতে হয় ॥ তথ্যমন্ত্রী         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ৩৪ জন, নতুন শনাক্ত ২৪৮৭         শেখ হাসিনা সরকার প্রতিটি হত্যাকাণ্ডের বিচারে সোচ্চার থেকেছে ॥ সেতুমন্ত্রী        
//--BID Records