ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯

এ এ ভি কনফারেন্স ২০১৭ ॥ বাংলাদেশের পাখি চিকিৎসক ড. সিফাত ই রাব্বানী

প্রকাশিত: ০৬:৪০, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭

এ এ ভি কনফারেন্স ২০১৭ ॥ বাংলাদেশের পাখি চিকিৎসক ড. সিফাত ই রাব্বানী

সম্প্রতি ওয়াশিংটন ডিসিতে অনুষ্ঠিত হলো এ্যাসোসিয়েশন অফ এভিয়ান ভেটেরিনারিয়ান্স কনফারেন্স ২০১৭ [অঅঠ ঈড়হভবৎবহপব ২০১৭]- যেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন ইউএসএ-এর বিভিন্ন স্টেট থেকে আগত স্বনামধন্য এভিয়ান ভেটেরিনারিয়ান্স/ পাখি চিকিৎসকরা। শুধু ইউএসএ নয়, পৃথিবীর অন্যান্য বিভিন্ন দেশ, যেমন- কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, দুবাই, জাপান, নেদারল্যান্ডস ইত্যাদি থেকে এসেছিলেন নিজ নিজ ক্ষেত্রে সফল পাখি চিকিৎসকগণ। দীর্ঘদিন ধরে চলমান এই কনফারেন্স এ অনুষ্ঠিত হয়েছে পাখির চিকিৎসার উপর বিভিন্ন তাৎপর্যপূর্ণ বিষয়ের উপর আলোচনা পর্ব, অভিজ্ঞতা বিশ্লেষণ, সকলের নিজ নিজ গবেষণাসমূহ ও সাফল্য কথা। এছাড়া কন্টিনউইং এডুকেশন সার্টিফিকেট প্রোগ্রামের আওতায় ছিল বেশকিছু জটিল সার্জিকাল ট্রেনিং [অর্থোপেডিক ম্যানেজমেন্ট অফ এভিয়ান উইং, গ্যাস্ট্রিইন্টেস্টিনাল সার্জারি অফ বার্ডস, এভিয়ান এনেস্থেসিয়া, ইমার্জেন্সি সার্জারি, এভিয়ান নেক্রোপসি, রিপ্রোডাক্টিভ ট্রাক্ট সার্জারি], বিভিন্ন ধরনের ডায়াগনস্টিক টেস্ট [হেমাটোলজি, বায়োপসি, এক্সরে, আল্ট্রাসাউন্ড, সিটি স্ক্যান] ট্রেনিং ইত্যাদি। পাখির চিকিৎসার সর্বপ্রকার বিষয় নিয়ে অত্যন্ত তথ্যবহুল এই কনফারেন্সের উদ্দেশ্য ছিল পাখির বিভিন্ন গবেষণাধর্মী চিকিৎসার ফলাফল নিরীক্ষা, আলোচনা, ট্রেনিং ও আধুনিক চিকিৎসা পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে ‘এভিয়ান ভেটেরিনারি ট্রিটমেন্ট’ ও এর সঙ্গে সম্পৃক্ত এভিয়ান ভেটেরিনারিয়ান্সদের উৎকর্ষ সাধন। এভিয়ান ভেটেরিনারিয়ান্সদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিল পাখির মেডিসিন, খাদ্য, সরঞ্জাম, খেলনা, ফার্মাসিউটিক্যাল, নিউট্রাসিউটিক্যাল, সার্জিকাল এ্যান্ড ডায়াগনস্টিক [এক্স-রে, আল্ট্রাসাউন্ড] ইন্সট্রুমেন্টসসহ এসবের উৎপাদক প্রতিষ্ঠানসমূহ। বাংলাদেশের জন্য একটি গর্বের বিষয় ছিল এই যে- এই কনফারেন্সটিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের এভিয়ান প্রাক্টিশনারদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের সর্বপ্রথম ও একমাত্র সার্টিফাইড এভিয়ান প্রাক্টিশনার/পাখি চিকিৎসক- ড. সিফাত ই রাব্বানী, যিনি হোলিস্টিক এভিয়ান ভেটেরিনারিয়ান হিসাবে সুপ্রতিষ্ঠিত। ২০০৮ থেকে তিনি নিউইয়র্ক এ ‘দ্যা ফিগ ট্রি হেলথগ্রুপ’ এ কর্মরত এবং তার কর্মদক্ষতার জন্য পরবর্তীতে ‘ইউএস এইচএ রিসার্চ সেন্টার’ এ কাজ করার সুযোগ পান এবং পেশাগতভাবে ‘দ্যা ফিগ ট্রি হেলথ গ্রুপ’ এর একজন ‘হোলিস্টিক ট্রিটমেন্ট এ্যান্ড নিউট্রিশন কনসালট্যান্ট’। ব্যক্তিগতভাবে ২৪ বছরেরও বেশি সময় তার পাখি পালনের অভিজ্ঞতা ও পাখির প্রতি আন্তরিক ভালবাসার কারণের তার হোলিস্টিক চিকিৎসার পরিধি সম্প্রসারণ করেছেন পাখিদের জন্যও। তার এই উদ্যোগে সাহায্য করেন আমেরিকার বিভিন্ন হোলিস্টিক চিকিৎসকগণ এবং ‘ইউএস এইচএ রিসার্চ সেন্টার’, তার গবেষণাগুলো সফল হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি হলিস্টিক এভিয়ান ভেটেরিনারিয়ান হিসাবে স্বীকৃতি লাভ করেন এএভি [এ্যাসোসিয়েশন অফ এভিয়ান ভেটেরিনারিয়ান্স], এএফএ [ আমেরিকান ফেডারেশন অফ এডিকেলচার] সহ বেশ কয়েকটি এভিয়ান ইনস্টিটিউট-এ। পাখির বেশকিছু জটিল রোগের হোলিস্টিক চিকিৎসার সাফল্য দেখিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন বেশকিছু এভিয়ান ভেটেরিনারিয়ান্সদের, যারা ড. রাব্বানীর চিকিৎসা পদ্ধতি অনুসরণ ও তার সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পাখি চিকিৎসায় তার সম্পৃক্ততা দ্বারা উপকৃত হবার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে বাংলাদেশ, আমেরিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পাখি পালকদের।