শুক্রবার ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১০ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নরসিংদীতে রামবুটান চাষে সাফল্যে কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে

নরসিংদীতে রামবুটান চাষে সাফল্যে কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে

স্টাফ রিপোর্টার, নরসিংদী ॥ রামবুটান চাষে আগ্রহ বাড়ছে নরসিংদীর কৃষকদের। দেখতে কদম ফুলের মতো হলেও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সুস্বাদু ও জনপ্রিয় রামবুটান ফল লিচুর মত স্বাদে-গন্ধে অতুলনীয়। সম্প্রতি এই ফল চাষে সফলতা পেয়েছে নরসিংদীর শিবপুরের কৃষক জামাল উদ্দিন। তার এ সফলতায় আশা জাগিয়েছে এলাকার অন্যান্য কৃষকদের মনে। অধিক লাভজনক আর নানা পুষ্টিগুণে ভরপুর দৃষ্টিনন্দন এই ফল চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন স্থানীয় কৃষকরা। কৃষি বিভাগ বলছে, প্রয়োজনীয় সহায়তা ও দিক নির্দেশনা পেলে আগামী দিনে দেশের কৃষি অর্থনীতিতে নতুনত্ব যোগ করতে পারে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার জনপ্রিয় এ ফল রামবুটান।

নরসিংদীর শিবপুরের কৃষক জামাল উদ্দীন জানান, জীবিকার তাগীদে কাজের সন্ধানে প্রথমে মালয়েশিয়া এবং পরে ব্রুনাই যান কৃষক জামাল উদ্দিন। প্রায় ১৫ বছর পর ২০০৬ সালে দেশে ফেরার সময় এক কেজি রামবুটান ফল নিয়ে আসেন তিনি। সে ফলের বীজগুলো তিনি দেশীয় পদ্ধতিতে রোপণ করেন। পরীক্ষামূলকভাবে তার লটকন বাগানের ভেতরেই ১৭টি রামবুটানের চারা রোপণ করেন তিনি। এর মধ্যে ১০টি চারা মারা যায়। বাকি সাতটি ধীরে ধীরে বেড়ে উঠতে থাকে।

২০১২ সালে প্রথমবারের মতো কিছু ফল আসলেও প্রতি বছর ফলের পরিমান বাড়তে থাকে। চলতি বছর পাঁচটি গাছ থেকে কয়েক লক্ষ টাকার রামবুটান বিক্রি করেছেন বলে জানান তিনি। বাজারে প্রতি কেজি রামবুটান বিক্রি হচ্ছে ৮শত টাকা থেকে ১হাজার টাকা পর্যন্ত। জামাল উদ্দিনের সফলতায় ইতোমধ্যে আনন্দিত এলাকার অন্যান্য চাষীরা। তারাও আগ্রহ প্রকাশ ও চাষ শুরু করছেন বিদেশী ফল রামবুটান। এছাড়া এখানকার মাটি ও আবহাওয়া রামবুটান চাষে উপযোগী হওয়ায় এই অঞ্চলে রামবুটান চাষে বিপ্লব ঘটানো সম্ভব বলে মনে করছেন কৃষি বিভাগের মাঠ কর্মীরা।

স্থানীয় কৃষি বিভাগ জানান, গুণগত মান সম্মত চারা ও প্রযুক্তিগত চাষ পদ্ধতি কৃষকদের মাঝে দেয়া গেলে লটকনের পাশাপাশি রামবুটান চাষে বিপ্লব ঘটানো সম্ভব। রামবুটান চাষে স্বয়ংসম্পূর্ন হতে পারলে দেশের বাইরে থেকে রামবুটান আমদানী করতে হবে না।

নরসিংদী কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মোঃ লতাফত হোসেন জানান, এই অঞ্চলের রামবুটান নতুন সম্ভাবনার দুয়ার খুলে লটকনের পর নরসিংদীর রামবুটান রাঙ্গাবে দেশবাসীকে এমনটাই আশাবাদী সংশ্লিষ্টরা।

শীর্ষ সংবাদ:
চলে গেলেন দেশের প্রথম নারী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন         বিনিয়োগে রুট বদল ॥ করোনা মহামারীর ধাক্কা         দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবে ॥ প্রধানমন্ত্রী         রিজেন্টের আইটি প্রধান গ্রেফতার, আটক সাহেদের ভায়রা         স্বাস্থ্য খাতে অনিয়মের বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান চলবে         এই প্রথম সুস্থতার হার শনাক্তের চেয়ে বেশি         পাপুল কুয়েতের নাগরিকত্ব পাননি         তিন মাসের জন্য রোমে নিষিদ্ধ বাংলাদেশী যাত্রী ও ফ্লাইট         দীর্ঘমেয়াদী বন্যার শঙ্কা         বর্ষায়ও ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ নগরবাসী         এখন ফখরুল ও পুরো বিএনপি হোম আইসোলেশনে         শিক্ষার্থীদের হাতে ডিজিটাল ডিভাইস ও ইন্টারনেট দিতে হবে         ডিসেম্বর পর্যন্ত সরকারী প্রতিষ্ঠানে সব ধরনের গাড়ি কেনা বন্ধ         আধিপত্য ও চাঁদাবাজির কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠায় রক্ত ঝরছে পাহাড়ে         কেন্দ্রীয় ব্যাংক গবর্নরের বয়সসীমা বাড়ল দু’বছর         চট্টগ্রামে করোনা সংক্রমণ ছাড়াল ১১ হাজার         ১৪ প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর         করোনা: শনাক্তের তুলনায় সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়েছে         ক্ষুধায় প্রতিদিন ১২ হাজার মানুষের মৃত্যু হবে : অক্সফাম         গরুর ধাক্কায় আন্তঃনগর কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস বিকল        
//--BID Records