ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

দ্রোহ’ নিয়ে আজ ভারত যাচ্ছে বগুড়া থিয়েটার

প্রকাশিত: ০৫:৫৬, ১৪ আগস্ট ২০১৭

দ্রোহ’ নিয়ে আজ ভারত যাচ্ছে বগুড়া থিয়েটার

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ বগুড়া থিয়েটার তার শিল্পনন্দিত নাটক ‘দ্রোহ’ নিয়ে আজ ভারত যাচ্ছে। এর মাধ্যমে তৃতীয়বারের মতো নাটক নিয়ে ভারত সফরে যাচ্ছে দলটি । এর আগে বগুড়া থিয়েটারের কালজয়ী নাটক ‘কথা পুন্ড্রবর্ধন’ নিয়ে ২০০০ সালে ও ‘কৈবর্ত বিদ্রোহ’ নাটক নিয়ে ২০০৫ সালে ভারতের কলকাতা সফরে যায় দলের সদস্যরা । এবারের নাট্য সফরে বগুড়া থিয়েটার পশ্চিমবঙ্গের তিনটি শহরে ‘দ্রোহ’ নাটকটি মঞ্চস্থ করবে। এর মধ্যে আগামীকাল ১৫ আগস্ট কলকাতার ঋষি অরবিন্দুর জন্মতিথি ও ভারতের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে অরবিন্দু অনুশীলন সোসাইটির আয়োজনে শিউড়িতে ‘দ্রোহ’ নাটকের প্রথম মঞ্চায়ন হবে। এরপর ১৭ আগস্ট অলটারনেটিভ লিভিং থিয়েটারের আয়োজনে নজরুল শতবার্ষিকী মঞ্চে দ্বিতীয় মঞ্চায়ন হবে। এরপর দিন ১৮ আগস্ট ইউনিটি মালঞ্চের আয়োজনে নৈহাটি ঐক্যতান মঞ্চে ‘দ্রোহ’ নাটকের তৃতীয় মঞ্চায়ন হবে। দুদেশের মধ্যে সংস্কৃতি বিনিময়ের অংশ হিসেবে বাংলাদেশের অন্যতম নাট্যদল বগুড়া থিয়েটার ভারতের শিল্প ও সংস্কৃতির সূতিকাগার শহরগুলোতে নাটক মঞ্চায়ন করবে। বাংলাদেশের নাট্যদলের নাট্য পরিবেশনাকে উপলক্ষ করে ইতোমধ্যেই শিউড়ি, মধ্যমগ্রাম আর নৈহাটির দর্শকদের মধ্যে উৎসাহের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন কলকাতায় নাট্য মঞ্চায়ন আয়োজকরা। তারা আরও জানিয়েছে বাংলাদেশের নাট্যদল বগুড়া থিয়েটার ও নাট্যকার তৌফিক হাসান ময়নাকে তারা সেখানে নাগরিক সংবর্ধনা দেবে। ‘দ্রোহ’ নাটকটি বছরজুড়ে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের অনেক কয়েক জেলায় বিভিন্ন উৎসবে মঞ্চায়ন করে ইতোমধ্যেই বাংলাদেশে মঞ্চপ্রিয়তা পেয়েছে। ‘দ্রোহ’ নাটকটি রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন নাট্যজন তৌফিক হাসান ময়না। এ নাটকে উঠে এসেছে বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দির যমুনা তীরবর্তী অঞ্চলের মানুষের জীবনভাষ্য। বর্ণনাত্মক রীতি অবলম্বনে নাট্যকার নাটকে মানুষের হাজার বছরের অসাম্প্রদায়িকতা বোধের দৃষ্টান্ত তুলে ধরেছেন। নাটকে উঠে এসেছে গৌরবময় মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও নানা লোকাচার। বিশেষ করে যমুনার করাল ছোবল আর স্বার্থান্বেষী মানুষের সঙ্গে পলি পললের প্রলেপে গড়া সাধারণ মানুষের দ্বন্দ্ব সংঘাত নাটকে প্রাণ সৃষ্টি করেছে। বর্তমান সময়ে দেশে দেশে, সমাজের স্তরে স্তরে সৃষ্টি হয়েছে নানা ধর্মান্ধতা। এই ধর্মান্ধতায় পবিত্র ভূমি রক্তে লাল হয়ে উঠছে। হাজার বছরের শান্তি আর সম্প্রীতির বন্ধন হয়ে যাচ্ছে আলগা। মানুষের অমানবিক হয়ে ওঠার চিত্র যেমন পাওয়া যায় এই ‘দ্রোহ’ নাটকে তেমনি সকল অশুভ শক্তিকে রুখে দিয়ে শান্তির পথে মানুষ আবারও ফিরে আসবে এই আশাবাদের বিষয়টি বার বার উচ্চারিত হয়েছে ‘দ্রোহ’ নাটকের সংলাপে। নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন ফারুক হোসেন, কনক কুমার পাল অলক, জাকিউল ইসলাম সবুজ, বিধান কৃষ্ণ রায়, এম জি মোস্তফা জিয়ন, পাপড়ি ইসলাম, জিনিয়া ফারজানা, নিশু ইসলাম, রাইয়া রাকা, সুপিন বর্মন, সর্দার হামিদ, সিরাজুল ইসলাম, ওসমান গনি, সাইফুল, মাসুম, রাফি, আশিক, রবিউল, আশিকুর, জাদু। নাটকে আবহ সঙ্গীতে আছেন নজরুল ইসলাম, সজল, অভি,তন্ময় প্রমুখ।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২