শনিবার ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রাজধানীতে ছুরিকাঘাতে বৃদ্ধা খুন, কেউ গ্রেফতার হয়নি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর উত্তরখানে নিজ বাড়িতে ছুরিকাঘাতে খুন হলেন আবেদা বেগম নামের এক বৃদ্ধা। তাকে নির্মমভাবে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকা-ের সময় ওই বৃদ্ধা ফজরের নামাজ আদায় করার জন্য অজু করছিলেন। হত্যাকা-ের প্রকৃত কারণ জানা যায়নি। তবে বাড়ির রাস্তা নিয়ে দ্বন্দ্বের সূত্র ধরে হত্যাকা-ের ঘটনাটি ঘটে থাকতে পারে বলে নিহতের বোন জামাইয়ের ধারণা। এ ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি। তবে চেষ্টা চলছে।

বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে উত্তরখানের ধোপাদিয়া বেপারি পাড়ার ৬৩/২/এ নম্বর একতলা টিনশেড বাড়িতে ঘটনাটি ঘটে। ময়নাতদন্ত শেষে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গ থেকে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলেই নিহতের দাফন সম্পন্ন হয় গাজীপুর জেলার কালিগঞ্জের গ্রামের বাড়িতে। এ ঘটনায় নিহতের বড় বোনের জামাই আব্দুর রাজ্জাক (৮০) বাদী হয়ে অজ্ঞাত খুনীদের আসামি করে উত্তরখান থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার বাদী জনকণ্ঠকে বলেন, নিহত আবেদা বেগমরা চার বোন। আবেদা ছিল সবার ছোট। আবেদার বাবা-মা আগেই মারা যান। অনেক আগেই স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। আবেদার ঘরে আদুরি (১৮) নামের এক মেয়ে রয়েছে। সে স্থানীয় একটি কলেজ থেকে এবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছে। স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর থেকেই এককাঠা জমির ওপর নির্মিত টিনশেড নিজ বাড়িটিতেই মেয়েকে নিয়ে বসবাস করছিল। ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর থেকেই মেয়ের ভরণপোষণ বাবদ স্বামী মাসিক ৫ হাজার টাকা করে দিয়ে আসছিল। তাতেই মা মেয়ের সংসার চলত।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি জানান, বুধবার রাত চারটার দিকে প্রতিদিনের মতো আবেদা ঘুম থেকে ওঠে। ফজরের নামাজ আদায় করার জন্য বাড়ির সামনে থাকা টিউবওয়েলে অজু করতে যায়। এ সময় কে বা কারা আবেদাকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালিয়ে যায়। বাড়ির কাছের রাস্তা নিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে আবেদার ঝামেলা ছিল বলে শুনেছি। তবে তার জের ধরে নাকি অন্য কোন কারণে হত্যাকা-ের ঘটনাটি ঘটেছে তা তিনি নিশ্চিত নন।

উত্তরখান থানার ওসি শেখ সিরাজুল হক জানান, হত্যাকা-ের কারণ জানার চেষ্টা চলছে। বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ছয়টা পর্যন্ত এ ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি।

মমতার সাহায্য চাইলেন এরশাদ

কোচবিহারে ভিটারক্ষা

কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ কোচবিহারে পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষার জন্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাহায্য চেয়েছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। সে অনুযায়ী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশাসনিক ব্যবস্থাও গ্রহণ করেছেন। বৃহস্পতিবার ভারতের দ্যা হিন্দু পত্রিকার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের সাবেক সেনা প্রধানের পৈত্রিক সম্পত্তির ওপরে অবৈধভাবে একটি মন্দির প্রতিষ্ঠার চেষ্টা চলছিল। কোচবিহারের দিনহাটায় এই মন্দির প্রতিষ্ঠার বিরুদ্ধে এরশাদের আত্মীয়স্বজনরা স্থানীয় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করেন। তবে সেই অভিযোগ আমলে নেয়নি প্রশাসন। এরপর হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কাছে তার স্বজনরা বিষয়টি অবহিত করেন। এ প্রেক্ষিতে এরশাদ মমতার কাছে পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষার জন্য অনুরোধ করেন। এরশাদের অনুরোধে মমতা প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিয়েছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
করোনা মোকাবিলায় জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ৬ প্রস্তাব         শীঘ্রই বন্ধ হচ্ছে ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় ॥ রেলমন্ত্রী         পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ইইউ’র সহায়তা চাইলেন         ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হাসপাতালে ইনজেকশন দেওয়ার পর ১৫ শিশু অসুস্থ         নেত্রকোনায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত         ‘আফগানিস্তানের বিনির্মাণ ও ভবিষ্যত দেশটির জনগনের হাতে’         ফ্রান্সের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে ॥ মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী         কোভিডমুক্ত বিশ্ব গড়তে সার্বজনীন ও সাশ্রয়ী টিকা দাবি প্রধানমন্ত্রীর         শ্রমিক সংকট যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে, ইউরোপ জুড়ে জ্বালানির অভাব         শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বই         পটুয়াখালীতে তাবলীগ জামাতের সদস্যদের চেতনানাশক খাইয়ে সর্বস্ব লুট         মুক্তি পেয়েছেন কানাডায় আটক থাকা চীনের হুয়াওয়ের কর্মকর্তা মেং ওয়ানঝু         সমৃদ্ধ বিশ্ব গড়তে হবে ॥ জাতিসংঘে বাংলায় ভাষণে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান         সভাপতি নিজ আসন ছেড়ে এসে স্বাগত জানান বঙ্গবন্ধুকে         শেখ হাসিনার প্রশংসায় গুতেরেস         বিএনপির লক্ষ্য নিজেদের উন্নয়ন ॥ সেতুমন্ত্রী         কমিউটার ট্রেনে ডাকাতের হামলায় দুই যাত্রী নিহত, মাল লুট         চার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৩ শিক্ষার্থী ও ৯ শিক্ষক করোনা আক্রান্ত         বাংলাদেশ ও ভারতের জঙ্গীরা সংগঠিত হচ্ছে