সোমবার ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আমিষের চাহিদা মেটানো

বেঁচে থাকার জন্য খাদ্য গ্রহণ জরুরী। কিন্তু সব খাদ্যই তো জীবনের জন্য প্রয়োজনীয় নয়। আমিষ, প্রোটিনজাতীয় খাবার মানবদেহের জন্য জরুরী। এক্ষেত্রে মুরগির মাংস এবং ডিম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দেশে তাই গড়ে উঠেছে পোল্ট্রি শিল্প। গত কয়েক বছর ধরে দেশের এই শিল্পে অভাবনীয় উন্নতি হয়েছে। বিশেষ করে বলা যায়, এই শিল্পে বিপ্লব চলছে। এতে বর্তমানে বিনিয়োগের পরিমাণ পঁচিশ হাজার কোটি টাকা। বাংলাদেশের সামগ্রিক উন্নয়নে কৃষি খাতের প্রভাব ব্যাপক, যেখানে পোল্ট্রি খাতেরও ভূমিকা রয়েছে। বর্তমানে এই খাত কর্মসংস্থানের অন্যতম মাধ্যম, যেখানে ষাট থেকে সত্তর লাখ মানুষ জড়িত। পোল্ট্রি খাত হতাশাগ্রস্ত মানুষের জীবনে আশার আলো নিয়ে এসেছে। জীবিকার একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হিসেবে অবতীর্ণ হয়েছে। তাই দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলেও গড়ে উঠেছে মুরগির খামার, যা মাংস ও ডিমের যোগান দিয়ে যাচ্ছে। এই শিল্প না থাকলে মুরগির মাংস ও ডিম থাকত মানুষের নাগালের বাইরে। তবে হাঁস-মুরগির রোগ-বালাইয়ের আশঙ্কাও থেকে যায়। বিশেষ করে বার্ড ফ্লু। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই শিল্পের বিষয়ে খুবই আন্তরিক। তার সময়োচিত পদক্ষেপের কারণেই বার্ড ফ্লুর প্রকোপ কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হয়েছে। ১৯৯৭ সালে শেখ হাসিনার সরকারের সময় বিশ্বব্যাপী সমাদৃত শত বছরের পুরনো ওয়ার্ল্ড পোল্ট্রি সায়েন্স এ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরু করে। সংগঠনটি দেশের আমিষের চাহিদা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। ১৯৯৬-২০০১ সালে আওয়ামী লীগ সরকার এই খাতের উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করায় দেশের বিভিন্ন স্থানে এই শিল্প প্রসারিত হয়েছে। কিন্তু ২০০১ পরবর্তী সময়ে এই শিল্প নিঃশেষ হওয়ার পথে ছিল। ২০০৯ সালে শেখ হাসিনা আবারও সরকার গঠনের পর এই খাতটিকে রক্ষায় আর্থিক প্রণোদনা প্রদান করেন।

দেশের পোল্ট্রি শিল্প বেশকিছু চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। বিভিন্ন সময় রোগ-বালাইয়ের কারণে এ শিল্পের ওপর বিপর্যয় নেমেছে। খামারিরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। আপৎকালীন সময়গুলোতে খামারিদের জন্য প্রণোদনা এবং এই শিল্পের অগ্রগতির স্বার্থে কর মওকুফ সুবিধা, কাঁচামাল ও অত্যাবশীয় পণ্য আমদানিতে শুল্ক অব্যাহতি প্রদান সঙ্গত হলেও তা অনেক ক্ষেত্রেই করা হচ্ছে না। ফলে মাংস ও ডিমের দাম বাড়তে থাকে। বাংলাদেশের মোট খাদ্য সরবরাহের ১০ দশমিক ৩১ শতাংশ মাংস এবং ডিম আসে এই খাত থেকে। সুতরাং এই শিল্পের উন্নতির জন্য নীতি-সহায়তা প্রদান জরুরী। পাশাপাশি ক্ষুদ্র খামারি ও ব্যবসায়ীদের প্রশিক্ষণ এবং ঋণ সহায়তা দেয়া অত্যাবশ্যক। ২০২১ সাল নাগাদ ডিমের মাথাপিছু বার্ষিক ব্যয় ৫১ থেকে বাড়িয়ে অন্তত ৮৫-তে এবং মুরগির মাংসের ক্ষেত্রে মাথাপিছু বার্ষিক ব্যয় ৪ দশমিক ২ কেজি থেকে বাড়িয়ে ৭ দশমিক ৫ কেজিতে উন্নীত করা প্রয়োজন। অপুষ্টির হার কমাতেও এই শিল্পের বিস্তার জরুরী। এসডিজির ১৭টি লক্ষ্যের মধ্যে ৭টির সঙ্গেই পোল্ট্রি শিল্পের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। তাই পৃথকভাবে গুরুত্ব থাকার কথা এই শিল্পের। বিজ্ঞানী, গবেষক, খামারি ও উদ্যোক্তাদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে এই খাতের মানোন্নয়নে এগিয়ে আসা উচিত। নতুবা ২০২১ সালের মধ্যে ডিম ও মুরগির মাংসের উৎপাদন দ্বিগুণ করা অসম্ভব হয়ে পড়বে। সম্প্রতি ঢাকায় তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত দশম আন্তর্জাতিক পোল্ট্রি শো ও সেমিনারে এসব প্রসঙ্গ উঠে এসেছে। সবাই এই খাতের অগ্রগতিতে সরকারী সহায়তা চেয়েছে। অপুষ্টি থেকে রক্ষা পেতে হলে এই খাতের প্রতি মনোযোগ দিতে হবে সংশ্লিষ্টদের।

শীর্ষ সংবাদ:
উন্নয়নের কান্ডারি শেখ হাসিনার জন্মদিন আজ         এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই         শেখ হাসিনার জীবন সংগ্রামের ॥ তথ্যমন্ত্রী         স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড়ের কথা বলে ধর্ষণ, দুজন রিমান্ডে         ডোপ টেস্টে আরও ১৪ পুলিশ শনাক্ত         চীনা ভ্যাকসিনের ঢাকা ট্রায়াল নিয়ে সংশয়         দেয়াল চাপায় সাত জনের মৃত্যু         করোনায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে নতুন রোগী         অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক         অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই         উন্নয়নে প্রতিবেশীদের সঙ্গে আরও দৃঢ় সহযোগিতায় জোর প্রধানমন্ত্রীর         সিলেটের ঘটনায় সরকার কঠোর অবস্থানে আছে ॥ কাদের         ভার্চুয়াল কোর্টেকে আরো সাফল্য মন্ডিত করতে বিচারক ও আইনজীবীদের প্রশিক্ষণ প্রয়োজন ॥ আইনমন্ত্রী         নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণ ॥ নিহত ও আহত ৩৮ পরিবারের মাঝে ৫ লাখ টাকা করে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান বিতরণ         স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি ॥ বন্ধ করতে দুদকের ২৫ সুপারিশ বাস্তবায়নে রিট         ‘অক্সফোর্ডের বাংলাদেশে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা ভুল প্রমাণিত হয়েছে’         এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূর আদালতে জবানবন্দি         এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ ॥ সাইফুরের পর অর্জুন গ্রেফতার         করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে সংক্রমণ ৬০ লাখ ছুঁই ছুঁই         ধর্ষনের ঘটনায় ভিপি নূরসহ সকল আসামী ঢাবিতে অবাঞ্চিত