বুধবার ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কলাকেন্দ্র গ্যালারিতে রিপন সাহার ‘স্বপ্নের সাম্রাজ্য’

  • সংস্কৃতি সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গাঢ় নীল রঙের ক্যানভাস। সেই চিত্রপটের মাঝ বরাবর দৃশ্যমান বুড়ো আঙুল তুলে ধরা হাতের কব্জি। ওই বুড়ো আঙুলের ডগা থেকে বেরিয়ে এসেছে সবুজ পাতা ছড়ানো কলাগাছ। ছবিটির নিচের অংশেও রংহীন রেখার আশ্রয়ে জুড়ে দেয়া হয়েছে আরও কয়েকটি কলাগাছ। প্রতীকীভাবে মানুষের হঠাৎ করে বিত্তবান হওয়া বা প্রবাদবাক্য: আঙুল ফুলে কলাগাছ হওয়ার বার্তা মেলে ধরা হয়েছে ছবিতে। চিত্রকর্মটি এখন ঝুলছে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ইকবাল রোডের কলাকেন্দ্র নামের প্রদর্শনালয়ে। পাশের আরেকটি ছবিতে মেলে ধরা হয়েছে ভিডিও গেমস খেলার আসক্তি বা কুফল। ক্যানভাসে উপস্থাপন করা হয়েছে অনেক সৈন্যকে। তারা অনবরত গুলি চালাচ্ছে। এই দৃশ্যকল্পের বিপরীতে অবস্থানরত কয়েকজনকে দেখা যায় দুই হাতে নিজের চোখ ঢেকে রেখে ক্রমশ পরিণত হচ্ছে জড় পদার্থে। তুলে ধরা হয়েছে ভিডিও গেমস বা কম্পিউটার গেমস খেলতে মানুষের অনুভূতি লোপ পাওয়ার বিষয়টি। সমাজ সচেতনতামূলক বার্তাযুক্ত ছবিগুলো এঁকেছেন চট্টগ্রাম থেকে উঠে আসা নবীন চিত্রকর রিপন সাহা। সেসব ছবি নিয়ে কলাকেন্দ্র গ্যালারিতে চলছে তার দ্বিতীয় একক প্রদর্শনী। দ্যা এম্পায়ার অব ড্রিম বা স্বপ্নের সা¤্রাজ্য শীর্ষক প্রদর্শনীটির কিউরেটিং করেছেন শিল্পী ওয়াকিলুর রহমান।

প্রদর্শনী প্রসঙ্গে জনকণ্ঠের এই প্রতিনিধির কথা হয় রিপন সাহার সঙ্গে। তিনি বলেন, একজন কবি বা শিল্পীর ভেতরে বাস করে অনেক রকমের স্বপ্ন। আর সেই স্বপ্নের প্রকাশ ঘটে শিল্পীর ক্যানভাসে কিংবা খাতায়। সব মিলিয়ে এ ধরনের সৃষ্টিতে বাস্তবতা উপলব্ধির ভেতর দিয়ে ধরা দেয় কল্পনার রূপটি। সেই সুবাদে আমার প্রদর্শনীর শিরোনাম রেখেছি ‘স্বপ্নের সা¤্রাজ্য’।

চিত্রকর্ম সৃজনে রিপন সাহা মূলত উপমহাদেশীয় রীতির আশ্রয়ে ধাবিত হয়েছেন পশ্চিমা ধারার পপ স্টাইল আর্টে। এ বিষয়ে শিল্পীর বলাটা এ রকম, আসলে পশ্চিমা ধারার এই পপ আর্ট বা নাগরিকনির্ভর চিত্রকর্ম আমাদের এই ভূখ-ে অনেক আগে থেকেই প্রচলিত। তবে কেউ এটাকে সংজ্ঞায়িত করেননি। এ কারণেই এই ধারার চর্চা হলেও সেটার তেমনভাবে কখনও উল্লেখ করা হয়নি। আধুনিকতাকে অবলম্বন করে পরিবর্তনের পথরেখা অনুসরণ করে শিল্প সৃজন করেন রিপন সাহা। প্রতীকীভাবে সেখানে কখনও উঠে আসে সমাজ বাস্তবতার অসঙ্গতির প্রতি বিদ্রƒপ, কখনওবা প্রকাশ পায় জৈবিক কামনা কিংবা শরীরী পরিভাষা।

এ্যাক্রেলিক মাধ্যমে চিত্রিত ছোট ও মাঝারি আকৃতির ক্যানভাসে চিত্রিত ৪৩টি চিত্রকর্ম দিয়ে সাজানো হয়েছে প্রদর্শনী। ৬ মে থেকে শুরু হওয়া প্রদর্শনীটি আজ মঙ্গলবার শেষ হওয়ার কথা থাকলেও সময় বাড়ানো হয়েছে। সেই সুবাদে প্রদর্শনী চলবে ১৫ জুন পর্যন্ত। প্রতিদিন বিকেল ৫টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত দর্শনার্থীর জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

শীর্ষ সংবাদ:
স্বপ্ন পূরণে ভাগ্য বদল ॥ পদ্মা সেতু নামেই ২৫ জুন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী         রোহিঙ্গারা অপরাধে জড়াচ্ছে প্রত্যাবাসন অনিশ্চয়তায়         ১৩৫ বিলাসবহুল পণ্যে ২০ ভাগ নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক আরোপ         আমি ত্রাস সঞ্চারি ভুবনে সহসা সঞ্চারি ভূমিকম্প...         দিনের ভোট দিনেই হবে, রাতে হবে না ॥ সিইসি         সম্রাটকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠালেন আদালত         হাতিরঝিলের পানির ক্ষতি করা যাবে না ॥ হাইকোর্ট         এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে লড়ছে দুদল         মাঙ্কিপক্সের প্রবেশ রোধে সর্বোচ্চ সতর্ক হতে হবে         ঢাবিতে ছাত্রলীগ ছাত্রদল সংঘর্ষ ॥ আহত ৩০         জামায়াতের সঙ্গেও সংলাপে বসবে বিএনপি ॥ ফখরুল         সিলেটে বন্যার পানি নামছে ধীরে, নানা সঙ্কট         জলাবদ্ধতা থেকে এবারের বর্ষায়ও মুক্তি মিলছে না চট্টগ্রামবাসীর         শেখ হাসিনা সরকার পাহাড়ে শান্তি ফিরিয়ে এনেছে ॥ কাদের         প্রত্যাবাসন নিয়ে রোহিঙ্গারা দীর্ঘ অনিশ্চয়তার কারণে হতাশ হয়ে পড়ছে : প্রধানমন্ত্রী         হাতিরঝিলে স্থাপনা উচ্ছেদসহ ওয়াটার ট্যাক্সি নিষিদ্ধে রায় প্রকাশ         মাদকাসক্ত সন্তানকে গ্রেফতারে বাবা-মা আসেন ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         নিয়মানুযায়ী দিনের ভোট দিনেই হবে ॥ সিইসি         রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্বেচ্ছায় প্রত্যাবাসনই স্থায়ী সমাধান         ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন