ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

কালকিনিতে শিক্ষকের আঘাতে ক্ষুদে শিক্ষার্থী হাসপাতালে

প্রকাশিত: ২১:৩০, ৩০ এপ্রিল ২০১৭

কালকিনিতে শিক্ষকের আঘাতে ক্ষুদে শিক্ষার্থী হাসপাতালে

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালকিনি, মাদারীপুর ॥ প্রাইভেট না পড়ার জের ধরে মাদারীপুরের কালকিনিতে জাসিয়া আক্তার(১১) নামের এক ক্ষুদে শিক্ষার্থীকে বেদম মাড়ধর করে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন মোঃ সরোয়ার হোসেন নামের এক প্রধান শিক্ষক। এর প্রতিবাদ করার অপরাধে শিক্ষার্থীর বাবা আতিকুর রহমানকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে। সে পৌর এলাকার ৩নং রাজদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী। এ ঘটনায় আজ রোববার দুপুরে উপজেলা প্রশাসন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। হাসপাতাল ও ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা গেছে, পৌর এলাকার দক্ষিন রাজদী গ্রামের আতিকুর রহমান শিকদারের স্কুল পড়ুয়া মেয়ে জাসিয়া আক্তার তার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সরোয়ার হোসেনের কাছে দীর্ঘ দিন প্রাইভেট পড়ে আসছে। কিন্তু আর্থিক সমস্যার কারনে এ প্রাইভেট পড়া বন্ধ করলে প্রধান শিক্ষক সরোয়ার হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে শনিবার বিকালে জাসিয়া আক্তারকে শ্রেনী কক্ষে বসে বেদম মারধর করেন। পরে জাসিয়া আক্তারকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ মারধরের ঘটনার প্রতিবাদ করায় প্রধান শিক্ষক সরোয়ার হোসেনের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন ওই শিক্ষর্থীর বাবা আতিকুর রহমান শিকদার। এ বিষয় অভিযোগ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শরীফুল ইসলাম ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ওই অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন। শিক্ষার্থীর মা আফরোজা বেগম বলেন, প্রাইভেট পড়া বন্ধ করে দেয়ায় আমার মেয়েকে শিক্ষক মারধর করেছেন এবং কি আমার স্বামীকে মারধর করা হয়েছে। এ বিষয় অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ সরোয়ার হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ঘটনা মিথ্যা। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শরীফুল ইসলাম বলেন, ওই ছাত্রীকে আমরা দেখতে হাসপাতালে গিয়েছি। তার উপরে যে নির্যাতন করা হয়েছে তা অমানবিক। আমি ব্যবস্থা নিতেছি।
monarchmart
monarchmart