রবিবার ৬ আষাঢ় ১৪২৮, ২০ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

লুটপাটের জন্যই খুন ॥ জবানবন্দী খুনীদের

লুটপাটের জন্যই খুন ॥ জবানবন্দী খুনীদের

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ ॥ নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার নজিপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকার মোবাইল ব্যবসায়ী চাঞ্চল্যকর আমিনুল খুনের ঘটনায় আটক ২জনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এই হত্যাকান্ডের সঙ্গে নিজেদের জড়িয়ে ফারুক হোসেন(২৩)ও সেলিমুজ্জামান শাওন(২৬) বৃহস্পতিবার বিকেলে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী দিয়েছে। তারা আমিনুলের কাছ থেকে বিকাশের অর্থ ছিনিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যেই তাকে নির্মমভাবে খুন করে বলে আদালতে স্বীকার করেছে।

জানা গেছে, গত ২২মার্চ(বুধবার) দিনগত মধ্যরাতে নজিপুর বাসস্ট্যান্ড ধামইরহাট সড়ক এলাকার জুলেখা সুপার মার্কেটের আল মুমিন মোবাইল সেন্টারের সত্বাধিকারী বিকাশের এজেন্ট আমিনুল ইসলাম(৩৩)কে বাসস্ট্যান্ড এলাকার মুগ্ধ স্কয়ারের (পাতাল মার্কেট) পিছনের গলিতে গলা কেটে খুন করা হয়।

এঘটনায় নিহত আমিনুলের বাবা সামছুল হক লেদু বাদী হয়ে পত্নীতলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। নওগাঁর পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হক বিপিএম, পিপিএমের তত্বাবধানে পত্নীতলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাজহারুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ নজিপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে আমিনুল খুনের মামলার এই ২জনকে আটক করে।

আটককৃতরা হলো, নজিপুর ঈদগাহ পাড়ার আতাউর রহমানের পুত্র ফারুক হোসেন(২৩) ও ধামইরহাট উপজেলার খেলনা ইউপির রসপুর গ্রামের নাসির উদ্দীনের পুত্র সেলিমুজ্জামান শাওন(২৬)। শাওন বর্তমানে নজিপুর হরিরামপুরে বাস করে। তারা আমিনুল হত্যার পুরো ঘটনা ও পকিল্পনা পুলিশের কাছে স্বীকার করে এবং বৃহস্পতিবার আদালতের কাছে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান করে।

শীর্ষ সংবাদ:
ক্ষমতা মানে ভোগ বিলাস নয়, ক্ষমতা হলো মানুষের সেবা করা         নরসিংদীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নারী ও শিশুসহ নিহত ৫, আহত ১০         বাবা-মা-বোনকে হত্যা ॥ মেহজাবিন ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা         কুষ্টিয়ায় জোড়া খুন ॥ দণ্ডিত ৪ আসামির জামিনের রিভিউ আপিল বিভাগে খারিজ         ব্রাজিলে করোনায় মৃত্যু পাঁচ লাখ ছাড়াল, পরিণতি আরো খারাপের শঙ্কা         বিষ ছড়াচ্ছে পলিথিন ॥ হুমকির মুখে জনস্বাস্থ্য ও প্রাকৃতিক পরিবেশ         প্রধানমন্ত্রী আজ ৫৩ হাজার পরিবারকে দিচ্ছেন জমি ও ঘর         রাজধানীতে একই পরিবারের ৩ জন খুন         গণটিকাদান কর্মসূচী শুরু         পুঁজিবাজারের সামনে ভাল ভবিষ্যৎ রয়েছে         প্রিয় পিতার জন্য ভালবাসা         ভুটানের সঙ্গে পিটিএ কার্যকর হচ্ছে নতুন বছরে         করোনায় একদিনে মৃত্যু বেড়ে ৬৭         করোনা বেড়ে যাওয়ায় পর্যটনশিল্প ফের অনিশ্চয়তায়         নাসির ও অমির তিন রক্ষিতা কারাগারে         রোহিঙ্গাদের এনআইডি পাওয়ার নেপথ্যে চাঞ্চল্যকর জালিয়াতি         প্রাকৃতিক গ্যাস অনুসন্ধানই জ্বালানি নিরাপত্তার অন্যতম উপায়         প্রমাণ সরবরাহ করলে তথ্য দেবে সুইস ব্যাংক         সাবেক জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা         একই স্থানে সব সেবা প্রদান সুবিধা থাকা বাঞ্ছনীয় : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী