ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯

এবার আলোচনায় ব্যাঙ্গালুরুর পিচ

প্রকাশিত: ০৪:৩৩, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

এবার আলোচনায় ব্যাঙ্গালুরুর পিচ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভারতীয় ক্রিকেটে এখন দুটি বিষয় আলোচনায়। কি হয়েছিল পুনের পিচে, কেনই বা আনকোড়া ও’কেফে ঘূর্ণিতে ওভাবে বেসামাল বিরাট কোহলির দল? মাত্র আড়াই দিনে হার ৩৩৩ রানে, চার টেস্টের সিরিজে শুরুতেই ব্যাকফুটে নাম্বার ওয়ান ভারত। এখন তাই বেঙ্গালুরুর দ্বিতীয় ম্যাচের পিচ নিয়ে কথা হচ্ছে। স্থানীয় কিউরেটর দলজিৎ সিংয়ের ইঙ্গিত, এখানে স্পিনারদের পাশাপাশি পেসারদেরও সম্ভাবনা থাকবে। আর সাবেক ডিরেক্টর রবি শাস্ত্রীর পরামর্শ, ও’কেফেকে কিছুতেই উড়তে দেয়া যাবে না। একাদশ গঠনের বিষয়ে সতর্ক হতে বলেছেন আরেক সাবেক তারকা মোহাম্মদ আজহারউদ্দীন। বেঙ্গালুরুর এম চিন্মাস্বামী স্টেডিয়ামে ৪ মার্চ শুরু দ্বিতীয় টেস্ট। সরল সমীকরণে সিরিজ জয়ের সম্ভাবনা টিকিয়ে রাখতে কোহলিদের যেখানে জিততেই হবে। পুনের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট এ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামের টেস্টটি ছিল ভেন্যুটিতে প্রথম কোন টেস্ট ম্যাচ। যেখানে ও’কেফে ঘূর্ণিতে দুই ইনিংসে মাত্র ১০৫ ও ১০৭ রানে অলআউট হয় ভারত। ব্যাঙ্গালুরুর ভেন্যু কেমন হবে, তা নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা। এম চিন্মাস্বামীর কিউরেটর দলজিৎ সিং বলেন, ‘ব্যাঙ্গালুরুর উইকেট এমনিতে যেমন হয়, তেমনই হবে। কিছুটা ঘাস থাকলে স্পিনারদের পাশাপাশি পেসাররাও সুবিধা পাবে। পুনের মতো তিনদিনেই টেস্ট শেষ হবে বলে মনে হয় না। পাঁচদিনের খেলার কথা ভেবেই উইকেট তৈরি করা হচ্ছে।’ পুনের পিচ নিয়ে কথা হলেও অধিনায়ক কোহলি কিন্তু সেদিকে যাননি। তিনি সততার সঙ্গে ব্যর্থতার দায় মাথা পেতে নিয়েছেন। ১২ উইকেট নিয়ে একাই ভারতকে ধসিয়ে দিয়েছেন ও’কেফে। সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার স্পিন বোলিং কোচ সাবেক ভারতীয় স্পিনার শ্রীধরণ শ্রীরাম ও সাবেক ইংল্যান্ড স্পিনার মন্টি পানেসার। শ্রীরামও মনে করেন ব্যাঙ্গালুরুর পিচ পুনের মতো হবে না, ‘এখানে কোন দিনই খারাপ উইকেট হয়নি। এবারও হবে না। কোন দল জঘন্য পারফর্মেন্স না করলে খেলা পাঁচদিন গড়াবে।’ প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া কোচ ড্যারেন লেহম্যান অবশ্য পিচ নিয়ে ভাবছেন না, ‘ব্যাঙ্গালুরুর পিচ কেমন হবে, আমরা সেটি নিয়ে মোটেও ভাবছি না। পুনের মতো এমন ঘূর্ণি উইকেটে যদি ভারতকে হারাতে পারি, তাহলে অন্য যেকোন উইকেটেও পারব। ব্যাঙ্গালুরুতে সাধারণত যেমন পিচ হয়, তা যদি থাকে, তবে আমার পেসার ও ব্যাটসম্যানর ম্যাচ জেতাবে।’ এম চিন্মস্বামী পুনের মতো নয়। পুনেতে প্রথমবারের মতো টেস্ট অনুষ্ঠিত হলেও এখানে সেই ১৯৭৪ সাল থেকে টেস্ট খেলা হয়ে আসছে। পিচ কন্ডিশন সবকিছুই ভারতীয়দের ভাল করে চেনা। ২০১৫ সালের নবেম্বরে সর্বশেষ টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়। দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে বৃষ্টিবিঘিœত ম্যাচটা অবশ্য ড্র করেছিল কোহলির ভারত।