ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ৯ আশ্বিন ১৪২৯

সাফারোভাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন তিমিয়া

প্রকাশিত: ০৪:৩০, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

সাফারোভাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন তিমিয়া

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শিরোপা জয়ের স্বাদ পেলেন তিমিয়া বাবোস। রবিবার বুদাপেস্ট ওপেনের ফাইনালে লুসি সাফারোভাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন তিনি। টুর্নামেন্টের শীর্ষ বাছাই তিমিয়া বাবোস এদিন পিছিয়ে পড়েও ৬-৭ (৪), ৬-৪ এবং ৬-৩ সেটে পরাজিত করেন বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান তারকা লুসি সাফারোভাকে। সেই সঙ্গে দীর্ঘ চার বছরেরও বেশি সময় পর ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শিরোপা নিজের শোকেসে তুললেন এই হাঙ্গেরিয়ান। ২০১২ সালে মন্টেরিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর বুদাপেস্টে হাসলেন শিরোপা জয়ের হাসি। নিজের দেশের সমর্থকদের সামনে তাও আবার লুসি সাফারোভার বিপক্ষে জিতে চ্যাম্পিয়ন হয়ে উচ্ছ্বাসের জোয়ারে ভাসছেন তিমিয়া বাবোস। এ প্রসঙ্গে ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমি সত্যি, সত্যিই অনেক খুশি। এই অনুভূতিটা অবিশ্বাস্য রকমের। লুসি সাফারোভার বিপক্ষে খেলে জেতাটা আমার ক্যারিয়ারেরই সেরা মুহূর্ত। সে একজন বিস্ময় খেলোয়াড়। তার বিপক্ষে লড়াই করে নিজের দেশের সমর্থকদের সামনে জেতার অনুভূতিটা আসলেই অবিশ্বাস্য।’ উভয় খেলোয়াড়ের জন্যই বুদাপেস্ট ওপেন ছিল মৌসুমের প্রথম ফাইনাল। তবে ২০১৫ সালে ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনাল খেলা লুসি সাফারোভার বিপক্ষে লড়াই করতে করতে হাফিয়ে যান তিমিয়া বাবোস। ম্যাচ শেষে নিজের মুখেই স্বীকার করেছেন তা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার জন্য এটা খুবই ক্লান্তিকর ছিল। কেননা অনেক মোভ করতে হয়েছে কোর্টে। কিন্তু আক্রমণাত্মক খেলেছি। খেলোয়াড় হিসেবে সে খুবই কঠিন প্রতিপক্ষ, সেরাদের একজন। তাই তার বিপক্ষে খেলাটা স্বাভাবিকভাবেই খুব কঠিন ছিল, বিশেষ করে আমি যখন প্রথম সেটেই হেরে যাই তখন তো আরও কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু আমি শান্ত থাকার চেষ্টা করেছি এবং আমার কৌশলগুলো প্রয়োগ করার চেষ্টা করেছি। যাই হোক সবই সঠিকভাবে কাজে লেগেছে। বিশেষ করে যখন ২-২ তখনই আমার মধ্যে একটা পরিবর্তন আসে। তখন থেকেই আমি কোর্টে উড়তে শুরু করি এবং আরও আক্রমণাত্মক হয়ে পড়ি।’ বুদাপেস্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সৌজন্যে বাবোসের বিশ্বাস ইন্ডিয়ান ওয়েলসেও এগিয়ে থেকে কোর্টে নামবেন তিনি। এ প্রসঙ্গে তার অভিমত, ‘আমি মনে করি ইন্ডিয়ান ওয়েলসেও এই বাতাস প্রবাহিত হবে কিন্তু সেখানে যাওয়ার আগে এই সময়টা আমার শুধুই উপভোগের।’ তিমিয়া বাবোসের কাছে হেরে রীতিমতো হতাশ লুসি সাফারোভা। তবে হাঙ্গেরিয়ান তারকার প্রশংসা করতে মোটেই ভুল করেননি তিনি। এ প্রসঙ্গে সাবেক ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালিস্ট বলেন, ‘দ্বিতীয় সেটে সে দারুণভাবে ম্যাচে ফিরে। এটাই তাকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করে। তবে ম্যাচটা খুব প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হয়েছে তা স্বীকার করতেই হবে। ম্যাচে সে খুবই আক্রমণাত্মক খেলেছে এবং দারুণভাবে ম্যাচ নিয়ন্ত্রণ করেছে।’