ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

বোলারদের প্রশংসায় উইলিয়ামসন

প্রকাশিত: ০৬:৩২, ২৪ জানুয়ারি ২০১৭

বোলারদের প্রশংসায় উইলিয়ামসন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তৃতীয় দিনের পুরোটা বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়ার পরও চতুর্থ দিনেই ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট জিতে নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। সঙ্গে ২-০ তে সিরিজ। প্রথম দুই দিন সমানে-সমান লড়াই দেখে অনেকে ভেবেছিলেন ম্যাচটা ড্র হবে। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশকে ১৭৩ রানে অলআউট করে বোলাররা স্বাগতিকদের জয়ের পথ তৈরি করে দেন। ১০৯ রান তাড়া করতে নেমে ৯ উইকেট হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৩, মোট ৮ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন পেসার টিম সাউদি। ম্যাচে আরেক তারকা পেসার ট্রেন্ট বোল্টের শিকার ৭। স্বভাবতই বোলারদের প্রশংসায় ভাসিয়েছেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন, ‘টি২০, ওয়ানডে কিংবা টেস্ট সিরিজ, প্রতিটি ম্যাচেই প্রতিপক্ষ আমাদের যথেষ্ট চাপে রেখেছিল। ক্রাইস্টচার্চের শেষ দিনে বোলাররা প্রমাণ করেছে তারা যেকোন পরিস্থিতিতে নিয়ন্ত্রণ নিতে সক্ষম। আজ (সোমবার) ওরা নিজেদের সেরা খেলাটা খেলেছে। সাউদি-বোল্ট ছিল অসারধারণ। আমার মনে হয় পুরো সিরিজেই বোলাররা ভাল বল করেছে। সাফল্যের সিংহভাগ কৃতিত্ব তাদেরই।’ প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ২৮৯ রানের জবাবে ৩৫৪ রান করে নিউজিল্যান্ড। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে সফরকারী ব্যাটসম্যানরা পুরোপুরি ব্যর্থ। তামিম ইকবালের নেতৃত্বে নিয়মিত অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম ও অভিজ্ঞ ওপেনার ইমরুল কায়েসের অভাব স্পষ্ট হয়েছে। বিরূপ দ্রুতগতির পিচে একের পর এক ইনজুরি বাংলাদেশকে কঠিন পরিস্থিতির মুখে ঠেলে দিয়েছে বলে স্বীকার করেন প্রতিপক্ষ অধিনায়ক। প্রথম টেস্টের দুরন্ত লড়াইয়ের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে উইলিয়ামসন আরও যোগ করেন, ‘প্রথম টেস্টের কথা ভুলে গেলে চলবে না। ওয়েলিংটনে প্রথম ইনিংসে তারা আমাদের বোলারদের খুব চাপে রেখে প্রায় ৬ শ (৫৯৫) রান তুলে নিয়েছিল। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে আমরা নিয়ন্ত্রণ পেয়েছিলাম। মুশফিকুর রহীমের মতো একজন ব্যাটসম্যানকে মাথার ইনজুরির কারণে হারানোটা তাদের জন্য দুর্ভাগ্যের বিষয়। তবে আমাদের বোলাররা বল হাতে বেশ ভাল করেছে। মাঠ কিছুটা আর্দ্র ছিল। সে কারণে সবাই বল করে সুবিধা পাচ্ছিল।’ তিনি আরও বলেন, ‘এমন প্রতিকূল আবহাওয়া ও উইকেটেও অদিধিরা চমৎকার ব্যাটিং করেছিল।’ দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয়া তরুণ কিউই সেনাপতি অবশ্য সর্বোপরি সফরে টাইগার ক্রিকেটের প্রশংসা করতে ভোলেননি। উইলিয়ামসন বলেন, ‘আমার মতে তারা (বাংলাদেশ) যেভাবে খেলছে তা সত্যি অসাধারণ। কারণ বিদেশের মাটিতে তারা খুব বেশি খেলেওনি যে খুব অভিজ্ঞ হয়ে উঠবে। এমন কন্ডিশনে যত বেশি খেলবে ততই তারা আরও ভাল দল হয়ে উঠবে।’ তিনি আরও যোগ করেন, ‘সাকিব সবসময়ই একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়। সব মিলিয়ে জয় না পেলেও বাংলাদেশে তাদের ক্রিকেটের শক্তির কথাই জানান দিয়েছে।’ স্বল্পদৈর্ঘের ওয়ানডে ও টি২০ সিরিজ দুটিতে টাইগাররা নিজেদের সামার্থ্যরে প্রমাণ রাখলেও সেটার ধারাবাহিকতার কমতি ছিল বলে মনে করেন উইলিয়ামসন। বাংলাদেশের আসন্ন ভারত সফরের একমাত্র টেস্ট নিয়ে তিনি বলেন, ‘ভারতের কন্ডিশন বাংলাদেশের মতোই। পরিচিত কন্ডিশনে তারা সত্যি ভয়ঙ্কর দল। আমাদের এই কন্ডিশন সাকিব-তামিদের জন্য ছিল চ্যালেঞ্জিং, কিন্তু হায়দরাবাদে সেটা হবে না।’ তবে ঘরের মাটিতে সাম্প্রতিক ফর্ম ইন্ডিয়ানদের এগিয়ে রাখবে বলেই মনে করেন উইলিয়ামসন।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২