ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ১৬ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

চট্টগ্রামের বাকলিয়ায় আইটি পার্ক স্থাপন করা হবে

প্রকাশিত: ০৪:৪১, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৬

চট্টগ্রামের বাকলিয়ায় আইটি পার্ক স্থাপন করা হবে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চট্টগ্রামের বাকলিয়ায় ১৪ একর জমির ওপর একটি আইটি পার্ক স্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। শনিবার চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের জিমনেশিয়াম হলে লার্নিং এ্যান্ড আর্নিং মেলার উদ্বোধনী ভাষণে তিনি এ কথা জানান। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামে ডিজিটাল যোদ্ধা তৈরি করতে বাকলিয়ায় ১৪ একর জমির ওপর একটি আইটি পার্ক স্থাপন করা হবে। খুব শীঘ্রই এ পার্কের নির্মাণকাজ শুরু হবে। এ পার্ক স্থাপনে ব্যয় হবে ৩০০ কোটি টাকা; এ প্রকল্পের কাজ আগামী ৫ বছরের মধ্যে শেষ হবে। প্রাথমিক পর্যায়ে ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে আইটি ভিলেজ স্থাপন করা হবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, আইটি পার্ক স্থাপন শেষ হলে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে চট্টগ্রামের ৫০ হাজার তরুণের কর্মসংস্থান হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে বিশ্বের নাম্বার ওয়ান আউট সোর্সিংয়ের শহর ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর মতো শহর হবে চট্টগ্রামও। চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক সামসুল আরেফিনের সভাপতিত্বে মেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। মেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে একটি তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে ঘোষণা দিয়েছিলেন তা ধীরে ধীরে বাস্তবায়ন করছেন। চট্টগ্রামে আইটি পার্ক হচ্ছে- এটি এ অঞ্চলের মানুষের জন্য অনেক বড় পাওয়া। এটি বাস্তবায়ন হলে আমাদের হাজার হাজার তরুণের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে। ২১ ডিসেম্বর আবাসন মেলা শুরু অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আগামী ২১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে রিহ্যাব ফেয়ার-২০১৬। ওই দিন সকাল ১০টায় এ মেলার উদ্বোধন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। আগামী ২৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে এ মেলা। রিহ্যাব ফেয়ার উপলক্ষে শনিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সংগঠনের প্রেসিডেন্ট আলমগীর শামসুল আলামিন। তিনি জানান, ৫ দিনব্যাপী এ মেলার প্রথম দিন সকাল ১১টা থেকে টিকেট সংগ্রহ করে মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশের সুযোগ পাবেন দর্শনার্থী। দ্বিতীয় দিন থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দর্শনার্থীর জন্য মেলা উন্মুক্ত থাকবে। আলমগীর শামসুল আলামিন বলেন, এবারের মেলায় দর্শনার্থীর জন্য সিঙ্গেল ও মাল্টিপল এন্ট্রির জন্য দুই ধরনের টিকেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সিঙ্গেল এন্ট্রি টিকেটের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ টাকা। এ টিকেট দিয়ে একজন দর্শনার্থী মাত্র একবার মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশের সুযোগ পাচ্ছেন। আর ১০০ টাকার বিনিময়ে পাওয়া যাবে মাল্টিপল এন্ট্রি টিকেট, এটি ব্যবহার করে একজন দর্শনার্থী ৫ বার মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশ করতে পারবেন। মেলায় আগত দর্শনার্থীকে টিকেট সংগ্রহ করে প্রতিদিন একবার র‌্যাফেল ড্র করা হবে বলে জানান রিহ্যাব প্রেসিডেন্ট। তিনি আরও জানান, এবারের মেলায় মোট ১৭৫টি স্টল থাকছে। এর মধ্যে বিল্ডিং ম্যাটেরিয়ালস এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের স্টল থাকছে ৩০টি। এবার ২৪টি প্রতিষ্ঠান কো-স্পন্সর হিসেবে মেলায় অংশ নিচ্ছে।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২