ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

সুন্দরবনে আজ শুরু হচ্ছে তিন দিনব্যাপী রাস মেলা, বন্যপ্রাণী বাঁচাতে পাস পারমিট বন্ধ

প্রকাশিত: ০৫:৫৭, ১২ নভেম্বর ২০১৬

সুন্দরবনে আজ শুরু  হচ্ছে তিন দিনব্যাপী  রাস মেলা, বন্যপ্রাণী বাঁচাতে  পাস পারমিট বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ বঙ্গোপসাগরের কুঙ্গা নদীর মোহনায় বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবনের দুবলারচরে আজ শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে সনাতন ধর্মালম্বীদের তিন দিনব্যাপী শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রাস উৎসব। এ উৎসবকে ঘিরে দুবলারচরের আলোরকোলে বসছে রাস মেলা। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এ উৎসব মেলার উদ্বোধন করবেন। সুন্দরবনে প্রবেশে বন বিভাগ ৮টি রুট নির্ধারণ করেছে। এসব রুট দিয়ে নৌকা, ট্রলার, লঞ্চ ও অন্যান্য নৌযানে যোগে পুণ্যার্থী ও দর্শনার্থীরা আসা-যাওয়া করতে পারবে। তবে এবার এই উৎসবের বন্যপ্রাণী বাঁচাতে ৩ দিন সুন্দরবনে সব ধরনের পাস পারমিট বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে বন বিভাগ। শান্তিপূর্ণ আনন্দঘন পরিবেশ সুরক্ষায় র‌্যাব, পুলিশ, কোস্টগার্ড ও বনরক্ষী সমন্বয়ে কঠোর নিরাপত্তা নেয়া হয়েছে। পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ সাইদুল ইসলাম বলেন, প্রায় দুই শত বছর ধরে ঐতিহাসিক এই রাস উৎসবকে ঘিরে বঙ্গোপসাগর উপকূলের এবার সুন্দরবনে বন বিভাগের ১৮টি টহল টিমের পাশাপাশি কোস্টগার্ড, র‌্যাব, নৌবাহিনী ও পুলিশ নিয়োজিত থাকবে। এবার রাস মেলা উপলক্ষে ৩ দিন সুন্দরবনে মাছ শিকারসহ সকল ধরনের পাস পারমিট বন্ধ থাকবে। হরিণসহ বন্যপ্রাণী শিকার রোধে ভ্রাম্যমাণ টিমকে শক্তিশালী করা হয়েছে। পুর্ণার্থী ও দর্শনার্থীরা কোন প্রকার মাংস এমনকি ছাগল-মুরগিও সঙ্গে নিয়ে সুন্দরবনে ঢুকতে পারবে না। এবারই প্রথম পুর্ণার্থীদের চেয়ে অন্য ধর্মের দর্শনার্থীদের রাস উৎসবে যোগ দিতে পর্যটকদের ন্যায় রাজস্ব প্রদান করতে হবে। পুর্ণার্থী ও দর্শানার্থীদের জন্য এবার সুন্দরবনের রাস উৎসবে যেতে ৮টি রুট নির্ধারণ করাছে সুন্দরবন বিভাগ। এই ৮টি রুট হচ্ছে, ঢাংমারী স্টেশন হয়ে পশুর নদী দিয়ে দুবলারচর, বগি-বলেশ্বর হয়ে দুবলারচর, শরণখোলা স্টেশন হয়ে দুবলারচর, বুড়িগোয়ালিনী থেকে বাটুলানদী-বল নদী হয়ে দুবলারচর, কদমতলা থেকে ইছামতি নদী দুবলারচর, কৈখালী স্টেশন হয়ে আড়পাঙ্গাসিয়া হয়ে দুবলারচর, কয়রা শিবসা দুবলারচর ও নালিয়ান স্টেশন হয়ে শিবসা-মরজাত নদী দিয়ে দুবলারচর। সুন্দরবনের রাস উৎসবের আয়োজকরা জানান, প্রতিবছর অগ্রহায়ণ মাসের ভরা পূর্ণিমায় সাগর পাড়ের দুবলারচরে অনুষ্ঠিত হয় ৩ দিনব্যাপী রাস উৎসব। এ উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন স্থান ও প্রতিবেশী দেশসহ দেশী-বিদেশী লক্ষাধিক দর্শনার্থী এবং তীর্থ যাত্রীর ঢল নামে সুন্দরবনের দুবলারচরে। এ সময় আবাল-বৃদ্ধ-বণিতার পদচারণায় মুখোরিত হয়ে ওঠে পুরো সাগর পাড় এলাকা। এবার তিথি অনুযায়ী ১২ নবেম্বর থেকে ১৪ নবেম্বর পর্যন্ত এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে। ৭ নবেম্বর প্রত্যুষের জোয়ারে সাগরে পুণ্যস্নানের মধ্য দিয়ে এ মেলা শেষ হবে। মেলায় হস্ত ও কুটির শিল্পের কয়েক শ’ দোকানী পসরা সাজিয়ে বসবে। এছাড়া জারি-সারি ও বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজনও রয়েছে। বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় জানান, ঐতিহ্যবাহী এ রাস উৎসব মেলার উদ্বোধন করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল আসবেন। বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক তপন কুমার বিশ্বাস বলেন, শত বছরের ঐতিহ্যবাহী বৃহৎ এ রাস উৎসবে ধর্মবর্ণ, নারী-পুরুষ, শিশু-যুবা নির্বিশেষে হাজার হাজার পুর্ণার্থী ও পর্যটক এখানে মিলিত হবেন। এ বিষয়ে সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২