মঙ্গলবার ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

জোয়ারের পানি ভোলার পানচাষীদের হাসি কেড়ে নিয়েছে

হাসিব রহমান, ভোলা ॥ জোয়ারে সৃৃষ্ট বন্যার পানি নেমে গেলেও পানচাষীদের মুখে হাসি নেই। তাদের অতি যতেœর অর্থকরী ফসল পানগাছের গোড়ায় পচন দেখা দিয়েছে। গত এক বছর ধরে লাখ লাখ টাকার পুঁজি খাটিয়ে ফলন ঘরে তোলার আগে তাদের পানগাছ মরে যাওয়ায় তারা এখন চরম বিপাকে পড়েছে। টানা দুই সপ্তাহের পানিতে কোটি কোটি টাকার পানের বরজ নষ্ট হয়ে গেছে। শুকিয়ে বিবর্ণ নষ্ট পান এখন গবাদিপশুর খাবারে পরিণত হয়েছে। কৃষকরা কিভাবে ক্ষতি পুষিয়ে উঠবে তা নিয়ে দিশাহারা হয়ে পড়েছে। এ দুঃসময়ে কৃষি বিভাগের কোন কর্মী তাদের কোন পরামর্শ দেয়নি বলে অভিযোগ করেছে পানচাষীরা। স্থানীয়রা জানিয়েছে, পান চাষের জন্য বিখ্যাত দক্ষিণাঞ্চলের জেলা ভোলা সদরের উত্তরের ইউনিয়ন ইলিশা ও রাজাপুর। এখান থেকে কৃষকদের উৎপাদিত পান ভোলার চাহিদা মিটিয়ে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন বড় বড় পাইকারি বাজারে পাঠানো হয়। এ এলাকার কয়েক শ’ একর জমিতে তিন শতাধিক চাষী গত বছর পানের বরজ করে। কৃষি বিভাগের মতে, গত বছর ভোলা জেলায় প্রায় ১৪শ’ একর জমিতে পানের আবাদ করা হয়।

আর উৎপাদন হয় এক লাখ ৩৮ হাজার ৬২৫ মেট্রিক টন পান। পানের আবাদ ভাল হওয়ায় কৃষকরা তাই পান চাষে ঝুঁকে পড়ে। কৃষক সফিজল জানান, এক বছর ধরে রোপিত পানগাছ ধীরে ধীরে বড় হয়। পানের ফলন ভাল হওয়ায় কৃষকদের মনে নানা স্বপ্ন দানা বাঁধে। তাদের স্বপ্ন যখন বাস্তবে রূপ নেবে তার ঠিক আগ মুহূতে সর্বনাশা মেঘনা সব কেড়ে নিয়ে গেছে। ইলিশা ও রাজাপুরে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙ্গে জোয়ারের পানিতে পানের বরজ ৩-৪ ফুট পানিতে দুই সপ্তাহ ডুবে থাকে।

কিছুদিন আগে পানি নেমে গেলেও পানগাছের গোড়ায় পচন দেখা দিয়েছে। এতে গাছ শুকিয়ে যাচ্ছে আর পান লালচে ও হলুদ বর্ণ হয়ে ঝরে পড়ছে। এদিকে অমাবস্যার জোতে ভেঙ্গে যাওয়া বাঁধ দিয়ে ফের পানি ঢুকলে বরজের অস্তিত থাকবে কি-না তা নিয়ে কৃষকরা অজানা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। কৃষকদের দাবি, দ্রুত বাঁধ সংস্কার করে তাদের যেন পানি থেকে রক্ষা করা হয়। তা না হলে শত শত কৃষক পরিবার পথে বসে যাবে।

শীর্ষ সংবাদ:
সাহেদের যাবজ্জীবন ॥ আড়াই মাসেই অস্ত্র মামলায় রায়         আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াই শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন         বেসরকারী মেডিক্যাল ও ডেন্টাল কলেজ আইনের খসড়া অনুমোদন         এ পর্যন্ত ৭ জন গ্রেফতার ৩ জন রিমান্ডে বিক্ষোভ, সমাবেশ         বিদেশী ঋণে জর্জরিত ঢাকা ওয়াসা         সুপ্রীমকোর্ট প্রাঙ্গণে মাহবুবে আলমকে শেষ শ্রদ্ধা         দেশে করোনা রোগী শনাক্তের হার বেড়েছে         দুর্ভোগ পিছু ছাড়ছে না সৌদি প্রবাসীদের         মুজিববর্ষে গৃহহীনদের ৯ লাখ ঘর দেবে সরকার         তদারকির অভাব নৌ যোগাযোগ খাতে         আজন্ম উন্নয়ন যোদ্ধার অপর নাম শেখ হাসিনা ॥ কাদের         অসময়ের বন্যায় ব্যাপক ক্ষতির মুখে কৃষক         মৌজা ও প্লটভিত্তিক ডিজিটাল ভূমি জোনিং ম্যাপ হচ্ছে         শেখ হাসিনার জন্মদিনে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত         নবেম্বরে আসতে পারে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী         শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী করুন ॥ স্পিকার         কর্মের মধ্য দিয়ে দলের চেয়ে অধিক জনপ্রিয় শেখ হাসিনা ॥ কাদের         এমসি কলেজে ধর্ষণ ॥ সাইফুর, অর্জুন ও রবিউল রিমান্ডে         ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ উপনির্বাচন ১২ নবেম্বর         শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলতে চাইলে মত দেবে মন্ত্রিসভা