রবিবার ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ০৫ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মূল্যবোধের অবক্ষয়

শাহ আলম বাচ্চু

গোটা বিশ্ব নারীর কাছে ঋণী। নারী কখনও বোন, কখনও মা, কখনও বধূ। স্বামী, স্ত্রী, মা-বাবা, ভাই-বোন মিলে আমাদের পরিবার। এই একান্নবর্তী পরিবারে যদি অন্যঘরের কোন মেয়ে বধূ হিসেবে হাজির হন তখন কোন শাশুড়ি ঐ মেয়েকে পরের মেয়ে মনে করে। আবার কেউ কেউ নিজের পেটের মেয়ে মনে করে। অনেক মেয়ে আছে তারা একান্নবর্তী পরিবার পছন্দ করে না। তারা নিজেদের মধ্যে গুটিয়ে নিজের মতো সংসার করতে চায়। অর্থ গোছাতে চায়। বাচ্চাদের নিয়ে রঙিন স্বপ্ন দেখে। আবার পরিবারের মধ্যে যে কম বেতন পায়, বেশি বেতনের বধূ কম বেতনের বধূকে খোটা দেয়। সে পরিবারের কাজকর্মে ফাঁকি দেয়। আবার এই একান্নবর্তী পরিবার ভাঙ্গার পেছনে বড় কারণ মা-বাবা। পরিবারের কর্তারা যদি লোভী ধরনের হয় তাহলে পরের মেয়ের ওপর যৌতুক দাবি করে। যৌতুক না দিলে বাড়ে নির্যাতন। শ্বশুর-শাশুড়ির ওপর তখন বিদ্বেষ দেখা দেয়। ভেঙ্গে যায় সোনার সংসার। তখন ঐ মেয়ে অন্য কোথাও থাকতে চায়। আবার কিছু মেয়ে এই সংসারে আছে তারা বৃদ্ধ শ্বশুর-শাশুড়িকে বোঝা মনে করে। আর বাসাতে পুরাতন ও বেমানান মনে করে। তাই সংসারের বোঝাকে হালকা করার জন্য তাদের বৃদ্ধাশ্রমের মতো জায়গায় রেখে আসে। একবারও মনে করে না তাদের জন্যই আজ আমি স্বামী পেয়েছি। তাই তারাও আমার নিজের মা-বাবার মতো। অনেকে আছে মা-বাবাকে পরিচয় করিয়ে দিতে চায় না। কারণ বৃদ্ধ বাবা-মা গরিব হয়ে আছে আর ছেলে হয়ত অতীতকে ভুলে আভিজাত্যকে বেঁচে নিয়েছে এ জন্যÑ পরিচয় দিলে সামাজিক মর্যাদা ক্ষুণœ হবে। তাই গাঁয়ের পরিবার থেকে শহরে এসে চাকচিক্যময় পরিবার সাজায়।

ঘুণে ধরা সমাজে একান্নবর্তী পরিবারের ঐতিহ্য আজ উপরোল্লিখিত কারণে হারিয়ে যাচ্ছে। এখানে টেলিফোন, কম্পিউটারকে দায়ী করব না। খানিকটা দায়ী করব টিভিতে দেখানো ভারতীয় কিছু সিরিয়ালকে। আর সবচেয়ে বেশি দায়ী করব আমাদের মূল্যবোধকেই। আমাদের মূল্যবোধ আর মানসিকতাকে যদি পরিবর্তন করতে পারি তাহলে একান্নবর্তী পরিবার বজায় থাকবে। আমাদের এই পরিবর্তন আমাদের সন্তানের মধ্যেও আসবে। আর যদি না আসে তাহলে সন্তানদের মনে ও চরিত্রেও দেমাগ থাকবে। মানুষে মানুষে আন্তরিকতা থাকবে না। আর আন্তরিকতা ও পরিবারের মধ্যে একাত্মতা না থাকলে ঘটবে সামাজিক অপরাধ। তাই প্রতিটি পরিবারের মাঝে সচ্চরিত্র ও মূল্যবোধের অনুশীলন করতে হবে। নৈতিকতার চর্চা করতে হবে। ভাল মানুষ হতে হবে।

রাধানগর পাবনা থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
জামিন আবেদন নিষ্পত্তি এক লাখ ॥ ভার্চুয়াল কোর্টের ৩৫ কার্যদিবস         লকডাউন হলো ওয়ারী         ঈদের আগেই শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করুন ॥ কাদের         অনেক বিএনপি নেতা আইসোলেশনে থেকে প্রেসব্রিফিং করে সরকারের দোষ ধরেন ॥ তথ্যমন্ত্রী         পুলিশের বদলির তদবির কালচার বিদায় করতে চান বেনজীর         পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী করোনা আক্রান্ত         অধস্তনদের ওপর দায় চাপিয়ে বাঁচার চেষ্টা নির্বাহীদের ॥ বিদ্যুতের অতিরিক্ত বিল         উত্তরে বন্যা পরিস্থিতির ফের অবনতি হাজার হাজার পরিবার পানিবন্দী         তিনদিনের রিমান্ড শেষে রবিন কারাগারে         বাচ্চাদের সাবান দিয়ে হাত ধুতে বলুন         অহর্নিশ যুদ্ধের জীবন, করোনার ভয় যেন বিলাসিতা!         এখন আকাশের সংযোগ মিলবে ৩৪৯৯ টাকায়         ৬ মাসে ১০৬ নৌ দুর্ঘটনায় নিহত ১৫৩         পাটকল শ্রমিকদের ন্যায্য পাওনা শোধ করা হবে ॥ কেসিসি মেয়র         ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করা যাবে : সুপ্রিম কোর্ট         ৬ মাসে ১০৬ নৌ দুর্ঘটনায়, ১৫৩ জন নিহত, আহত ৮৪         ভুতুড়ে বিলের ঘটনায় ডিপিডিসির ৫ জন বরখাস্ত         বাংলাদেশকে ৫ কোটি ডলার ঋণ দেবে দ. কোরিয়া         প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়ন কমিটি         রেলে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করা হবে না : রেলমন্ত্রী        
//--BID Records