শনিবার ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ইউপি চেয়ারম্যান হলেন যারা-

  • জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে যারা বেসরকারীভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তাদের নাম। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতার।

নেত্রকোনা

রোয়াইলবাড়ীতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী এসএম ইকবাল রুমী, আশুজিয়ায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী রফিকুল ইসলাম, পাইকুড়ায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী হুমায়ুন কবীর চৌধুরী, নওপাড়ায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী শফিকুল ইসলাম, দলপায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী আমিনুর রহমান খান পাঠান, গড়াডোবায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মজিবুর রহমান বাবলু, মোজাফরপুরে আওয়ামী লীগের জাহাঙ্গীর চৌধুরী, গন্ডায় আওয়ামী লীগের সন্জুর রহমান, সান্দিকোনায় আওয়ামী লীগের আজিজুল ইসলাম, কান্দিউড়ায় বিএনপির শহিদুল্লাহ কায়সার, বলাইশিমুলে বিএনপির আলী আকবর তালুকদার মল্লিক, চিরাংয়ে বিএনপির মাহবুব আলম খান ও মাসকায় বিএনপির বিদ্রোহী একেএম মোস্তাফিজুর রহমান। মোহনগঞ্জে সকল ইউনিয়নে জয়লাভ করেছে আওয়ামী লীগ। বড়কাশিয়া বিরামপুর ইউনিয়নে মোতাহার হোসেন চৌধুরী, বড়তলী বানিয়াহারীতে হাজী মুখলেছুর রহমান, তেঁতুলিয়ায় রফিকুল ইসলাম মুরাদ, মাঘান সিয়াধারে আবু বকর সিদ্দীক, সমাজ সহিলদেওয়ে আমিনুল ইসলাম খান সোহেল, সুয়াইরে কামরুল হাসান সেলিম, গাগলাজুরে হাবিবুর রহমান।

নারায়ণগঞ্জ

এনায়েতনগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আসাদুজ্জামান, গোগনগর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র নওশেদ আলী ও কুতুবপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র মনিরুল আলম সেন্টু।

কিশোরগঞ্জ

নিকলী সদর ইউপিতে আওয়ামী লীগের কারার বোরহান উদ্দিন, কারপাশায় তাকি খান আমান, দামপাড়া ইউপিতে আবু তাহের, সিংপুরে আ’লীগের বিদ্রোহী আনোয়ার হোসেন, ছাতিরচরে জামাল উদ্দিন, জারইতলায় কামরুল ইসলাম মামুন ও গুরুই ইউপিতে বিএনপির আবু তাহের।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

গোবরতলা ইউনিয়নে আসজাদুর রহমান মান্নু (নৌকা), বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নে তরিকুল (নৌকা), মহারাজপুর ইউনিয়নে এজাবুল হক বুলি (নৌকা), বারঘোরিয়া ইউনিয়নে আবুল খায়ের (জামায়াত), সুন্দরপুর ইউনিয়নে হাবিবুর রহমান মাস্টার (নৌকা), ঝিলিম ইউনিয়নে তসিকুল ইসলাম তসি (ধানের শীষ), অনুপনগর ইউনিয়নে সাদেকুল ইসলাম বাচ্চু (নৌকা), রানীহাটি ইউনিয়নে মহসিন আলী (নৌকা), চরবাগডাঙ্গা ইউনিয়নে শাহিদ রানা টিপু (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), শাহজাহানপুর ইউনিয়নে আব্দুস সালাম (নৌকা), দেবীনগর ইউনিয়নে আব্দুর রাজ্জাক বিশ্বাস (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ইসলামপুর ইউনিয়নে আক্তারুজ্জামান টিপু (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) এবং নারায়ণপুর ইউনিয়নে মোঃ কামাল উদ্দিন হোদা (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী)।

নাচোল উপজেলার নাচোল ইউনিয়নে ইনায়েতুল্লাহ (স্বতন্ত্র), নেজামপুরে আমিনুল হক (স্বতন্ত্র) ও ফতেপুরে ইসরাইল হক (নৌকা) নির্বাচিত হয়েছেন।

নড়াইল

আওয়ামী লীগের নির্বাচিতরা হলেনÑ চ-ীবরপুর ইউনিয়নে আজিজুর রহমান ভূঁইয়া, আউড়িয়া ইউনিয়নে পলাশ মোল্যা, হবখালী ইউনিয়নে রিয়াজুল ইসলাম চঞ্চল, তুলারামপুর ইউনিয়নে বুলবুল আহমেদ, মুলিয়া ইউনিয়নে রবীন্দ্রনাথ অধিকারী ও মাইজপাড়া ইউনিয়নে জিল্লুর রহমান। স্বতন্ত্র (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) দেলোয়ার হোসেন পান্না শাহাবাদ ইউনিয়নে নির্বাচিত হয়েছেন।

শেরপুর

চরশেরপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী আনোয়ার হোসেন সুরুজ, চরমোচারিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের খোরশেদুজ্জামান, লছমনপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী সেলিম মিয়া, বলাইরচর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ইয়াকুব আলী মিলিটারি, চরপক্ষীমারী ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির আব্দুর রউফ, কামারেরচর ইউনিয়নে একটি কেন্দ্র বাদে আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমান হাবিব।

রাজবাড়ী

বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নে আব্দুস সালাম মাস্টার (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ইসলামপুর ইউনিয়নে আবুল হোসেন খান (স্বতন্ত্র), বালিয়াকান্দি সদর ইউনিয়নে নায়েব আলী শেখ (আওয়ামী লীগ), বহরপুর ইউনিয়নে রেজাউল করিম (আওয়ামী লীগ), জামালপুর ইউনিয়নে ইউনুস আলী সর্দার (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), নবাবপুর ইউনিয়নে আবুল হাসান আলী (আওয়ামী লীগ)। জঙ্গল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৃপেন্দ্র নাথ বিশ^াস ইতোপূর্বে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

গোয়ালন্দ উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়নে আমজাদ হোসেন (আওয়ামী লীগ), উজানচর ইউনিয়নে আবুল হোসেন ফকির (স্বতন্ত্র)।

নাটোর

১নং ছাতনী ইউনিয়নে তোফাজ্জল হোসেন সরকার, ২নং তেবাড়িয়া ইউপিতে ওমর আলী প্রধান, ৩নং দিঘাপতিয়া ইউপিতে খন্দকার ওমর শরীফ চৌহান, ৪নং লক্ষ্মীপুর খোলাবাড়িয়া ইউপিতে আব্দুল বাতেন ভূঁইয়া, ৫নং বড় হরিশপুর ইউপিতে ওসমান আলী ভূঁইয়া, ৬নং কাফুরিয়া ইউপিতে ইলিয়াস হোসেন ও ৭নং হালসা ইউপিতে জহুরুল ইসলাম প্রামাণিক নির্বাচিত হন। সবাই আওয়ামী লীগের।

ফটিকছড়ি

দাঁতমারা ইউনিয়নে জানে আলম (নৌকা), নারায়নহাটে হারুনুর রশিদ (নৌকা), সুন্দরপুরে শাহনেওয়াজ (নৌকা), রোসাংগিরীতে সোয়েব আল ছালেহীন (নৌকা), বক্তপুরে এসএম সোলায়মান (নৌকা), জাফতনগরে আব্দুল হালিম (নৌকা), আব্দুল্লাহপুরে হোসেন আলী (নৌকা), পাইন্দংয়ে সরোয়ার হোসেন স্বপন (ধানের শীষ), কাঞ্চনগরে আব্দুর রশিদ কাতেব (স্বতন্ত্র) এবং হারুয়ালছড়িতে ইকবাল হোসেন (স্বতন্ত্র)।

রাজশাহী

তানোর ও গোদাগাড়ীর ১৬ ইউনিয়নে ১১টিতে আওয়ামী লীগ, ৪টিতে বিএনপি ও একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। তানোরের ৭টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সব প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। তানোর উপজেলার কলমায় লুৎফর হায়দার রশীদ ময়না, বাধাইড়ে আতাউর রহমান, পাঁচন্দরে আব্দুল মতিন, সরনজাইয়ে আব্দুল মালেক, তালোন্দতে আবুল কাশেম, কামারগাঁওয়ে মুসলিম উদ্দিন ও চান্দুড়িয়া ইউনিয়নে মজিবুর রহমান। গোদাগাড়ী সদর ইউনিয়নে রুহুল আমীন, মোহনপুরে মোস্তফা হোসেন, বাসুদেবপুরে হাবিবুর রহমান বেবী, পাকড়িতে আবদুর রাকিব সরকার, মাটিকাটায় আলী আজম তৌহিদ, রিশিকুলে শহীদুল ইসলাম টুলু, গোগ্রামে মজিবুর রহমান, দেওপাড়ায় আকতারুজ্জামান আখতার এবং চর আষাড়িয়াদহে সানাউল্লাহ।

বগুড়া

গাবতলী উপজেলার ১১ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিজয়ীরা হলেনÑ রামেশ্বরপুর ইউনিয়নে রফি নেওয়াজ খান রবিন, নারুয়ামালায় গোফ্ফার আলী, নেপালতলিতে লতিফুল বারী মিন্টু, দুর্গাহাটায় আব্দুল মতিন মিঠু, সোনারায়ে তারাজুল ইসলাম, মহিষাবাড়ীতে আমিনুল ইসলাম। বিএনপির বিজয়ী হলেন- কাগইলে আগা নিহাল বিন জলিল, দক্ষিণপাড়ায় আমিনুল ইসলাম সাইফুল। স্বতন্ত্র বিজয়ীরা হলেনÑনশিপুরে নজরুল ইসলাম মিন্টু ও বালিয়াদীঘিতে মাহবুবর রহমান এবং গাবতলী সদরে আলমগীর হোসাইন খান।

ধুনট উপজেলার বিজয়ীরা হলেন- চিকাশীতে নজরুল ইসলাম শিপন, ভা-ারবাড়ীতে বেলাল হোসেন, এলাঙ্গীতে এমএ তারেক হেলাল, চৌকিবাড়িতে জুলফিকার আলী ভুট্টো, মথুরাপাড়ায় হারুনুর রশীদ, গোপালনগরে গোলাম হোসেন, কালেরপাড়ায় সাইফুল ইসলাম ফটিক। বিএনপির বিজয়ীরা হলেনÑ গোসাইবাড়ীতে মইনুল ইসলাম মুকুল, নিমগাছিতে আজাহার আলী পাইকার। স্বতন্ত্র বিজয়ী হলেন ধুনট সদরে লাল মিয়া।

নওগাঁ

নিয়ামতপুর উপজেলার হাজিনগর ইউনিয়নে আব্দুর রাজ্জাক (আঃ লীগ), চন্দননগর ইউনিয়নে বদিউজ্জামান বদি (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), ভাবিচা ইউনিয়নে ওবাইদুল হক (আ’লীগ), নিয়ামতপুর ইউনিয়নে বজলুর রহমান নঈম (আ’লীগ), রসুলপুর ইউনিয়নে আব্দুর রাজ্জাক (আ’লীগ), পাড়ইল ইউনিয়নে সৈয়দ মুজিব গ্যান্দা (আ’লীগ), শ্রীমন্তপুর ইউনিয়নে আজহারুল ইসলাম বুলু (আ’লীগ) এবং বাহাদুরপুর ইউনিয়নে আবুল কালাম আজাদ (আ’লীগ)।

চাঁদপুর

হাজীগঞ্জ উপজেলার ১নং রাজারগাঁও আঃ হাদী (আওয়ামী লীগ), ২নং বাকিলা মাহফুজুর রহমান ইউসুফ পাটওয়ারী (আওয়ামী লীগ), ৩নং কালচোঁ উত্তর : মানিক হোসেন প্রধানিয়া (আওয়ামী লীগ), ৪নং কালচোঁ দক্ষিণ গোলাম মোস্তফা স্বপন স্বতন্ত্র (বিএনপির বিদ্রোহী), ৫নং সদর সফিকুর রহমান (আওয়ামী লীগ), ৬নং বড়কুল পূর্ব কবির মিয়াজী (আওয়ামী লীগ), ৭নং বড়কুল পশ্চিম মনির গাজী (আওয়ামী লীগ), ৮নং হাটিলা পূর্ব জলিলুর রহমান মির্জা দুলাল (স্বতন্ত্র ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ৯নং গন্ধর্ব্যপুর উত্তর রফিকুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ), ১০নং গন্ধর্ব্যপুর দক্ষিণ গিয়াস উদ্দিন বাচ্চু (আওয়ামী লীগ) ও ১১নং হাটিলা পশ্চিম জাকির হোসেন লিটু (আওয়ামী লীগ)।

ফরিদগঞ্জ ১নং বালিথুবা সফিকুর রহমান পাটওয়ারী (আওয়ামী লীগ), ২নং বালিথুবায় এইচ এম হারুনুর রশিদ (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), ৩নং সুবিদপুর মাওঃ সরাফত উল্লাহ (আওয়ামী লীগ), ৪নং সুবিদপুর মহসিন পাটওয়ারী (বিএনপি), ৫নং গুপ্টি আঃ গনি বাবুল পাটওয়ারী (আওয়ামী লীগ), ৬নং গুপ্টি আবুল কালাম ভূঁইয়া (আওয়ামী লীগ), ৭নং পাইকপাড়া আলী আক্কাছ পাটওয়ারী (আওয়ামী লীগ), ৮নং পাইকপাড়া শওকত বিএসসি (আওয়ামী লীগ), ৯নং গোবিন্দপুর সোহেল চৌধুরী (আওয়ামী লীগ), ১০নং গোবিন্দপুর আঃ হান্নান (বিএনপি), ১১নং চরদুঃখিয়া বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী শাহাদাত হোসেন টেলু এগিয়ে, ১২নং চরদুঃখিয়া আব্দুল হাই (আওয়ামী লীগ), ১৫নং রূপসা উত্তর ওমর ফারুক (আওয়ামী লীগ) ও ১৬ং রূপসা দক্ষিণ ইস্কান্দার আলী (আওয়ামী লীগ)।

কুড়িগ্রাম

নাগেশ্বরী উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়ন থেকে আব্দুল্লাহ আল ওয়ালিদ মাসুম, সন্তোষপুর ইউনিয়নে লিয়াকত আলী লাকু, রামখানা ইউনিয়নে আব্দুল আলিম ও কেদার ইউনিয়নে মাহবুব হোসেন নৌকা মার্কা নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। আওয়ামী লীগ থেকে বিদ্রোহী নুনখাওয়া ইউনিয়নে শাহাবুল হোসেন (চশমা মার্কা) ও বেরুবাড়ী ইউনিয়নে আব্দুল মোত্তালেব (মোটরসাইকেল)। জাতীয় পার্টি থেকে বিজয়ী হয়েছে বামনডাঙ্গা ইউনিয়নে আমজাদ হোসেন, ভিতরবন্দ ইউনিয়নে আমিনুল হক খন্দকার বাচ্চু ও নেওয়াশি ইউনিয়নে আমজাদ হোসেন, কালিগঞ্জ ইউনিয়নে মতিয়ার রহমান ও কচাকাটা ইউনিয়নে আব্দুল আউয়াল। জাতীয় পার্টির বিদ্রোহী আকমল হোসেন (চশমা মার্কা) বল্লভের খাস ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। বিএনপি থেকে হাসনাবাদ ইউনিয়নে গোলাম মওলা বাবলু বিজয়ী হয়েছে। এছাড়া বিএনপির বিদ্রোহী মজিবর রহমান (আনারস মার্কা) নারায়ণপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয়ী হয়েছে।

নীলফামারী

সদরের রামনগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মিজানুর রহমান বাবু সংগলশী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোস্তাফিজার রহমান, চড়াইখোলা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র মোশারফ হোসেন বসুনিয়া, কচুকাটা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র আব্দুর রউফ চৌধুরী, সোনারায় ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী জামায়াত নেতা মোস্তফা কামাল। ডিমলা উপজেলার পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের আনোয়ারুল হক সরকার, বালাপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের জহুরুল ইসলাম ভুইয়া, ডিমলা সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আবুল কাশেম সরকার, নাউতারা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সাইফুল ইসলাম লেলিন, খালিশা চাপানি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আতাউর রহমান সরকার, ঝুনাগাছ চাপানি ইউনিয়নের স্বতন্ত্র আমিনুর রহমান ও পূর্ব ছাতনাই ইউনিয়নে স্বতন্ত্র আব্দুল লতিফ খান।

পাবনা

চাটমোহরের ৫টি ইউনিয়নেই জয়ী হয়েছে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। বিজয়ীরা হলেনÑ মথুরাপুর ইউনিয়নে সরদার আজিজুল হক, ফৈলজানা ইউনিয়নে আবু হানিফ, পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়নে আজাহার আলী, মুলগ্রাম ইউনিয়নে রাশেদুল ইসলাম বকুল ও ডিবিগ্রাম ইউনিয়নে নবীর উদ্দিন মোল্লা।

সিরাজগঞ্জ

চৌহালী উপজেলার সদিয়াচাঁদপুর ইউনিয়নে রাশেদুল ইসলাম সিরাজ (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) খাসকাউলিয়ায় শহিদুর রহমান (বিএনপি), উমরপুরে আব্দুল মতিন ম-ল (আওয়ামী লীগ), বাঘুটিয়ায় আব্দুল কাহহার আকন্দ (আওয়ামী লীগ)।

বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুরে আসিকুর রহমান লাজুক বিশ্বাস (আওয়ামী লীগ), সদরে সোলায়মান হোসেন (আওয়ামী লীগ), ভাঙ্গাবাড়িতে গাজী ফজলুল হক ভাসানী (আওয়ামী লীগ), রাজাপুরে সোনিয়া সবুর আকন্দ (আওয়ামী লীগ), ধুকুরিয়া বেড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী জামায়াত নেতা মাহবুবুর রশিদ শামীম।

কামারখন্দ উপজেলার ভদ্রঘাটে মোজাম্মেল হক (আওয়ামী লীগ), ঝাঐলে আলতাফ হোসেন ঠান্ডু (আওয়ামী লীগ) জামতৈলে আনোয়ার হোসেন (আওয়ামী লীগ), রায় দৌলতপুরে লুৎফর রহমান (বিএনপি)। সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউনিয়নে নবিদুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ) । তাড়াশ উপজেলার তালম ইউনিয়নে আব্বাসউজ্জামান (আওয়ামী লীগ), বারুহাঁসে প্রভাষক মোক্তার হোসেন মুক্তা (আওয়ামী লীগ), সগুনায় তালুকদার আব্দুল্লাহেল বাকী (আওয়ামী লীগ), মাগুড়াবিনোদে আতিকুল ইসলাম বুলবুল (আওয়ামী লীগ), নওগাঁয় এসএম আমিরুল ইসলাম গ্রহ (বিএনপি), তাড়াশ সদরে বাবুল শেখ (আওয়ামী লীগ), ৭নং মাধাইনগরে আবু হাসান মির্জা (আওয়ামী লীগ), দেশীগ্রামে আব্দুল কুদ্দুস (আওয়ামী লীগ)।

জয়পুরহাট

পাঁচবিবি উপজেলার, ধরঞ্জী ইউনিয়নের গোলাম মোস্তফা (আওয়ামী লীগ), আয়মারসুলপুর ইউনিয়নে জাহেদুল আলম বেনু (আওয়ামী লীগ), বালিঘাটা ইউনিয়নে নুরুজ্জামান চৌধুরী বিপ্লব (আওয়ামী লীগ), বাগজানা ইউনিয়নে নাজমুল হক (বিএনপি), আটাপুর ইউনিয়নে আবু সালে মোঃ সামছুল আরেফিন (বিএনপির বিদ্রোহী), মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের হাবিবুর রহমান (আওয়ামী লীগ), কুসুম্বা ইউনিয়নের মুক্তার হোসেন (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), আওলায় ইউনিয়নে আব্দুল রাজ্জাক ম-ল (বিএনপি) বিজয়ী হয়েছেন।

নবীনগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

কৃষ্ণনগর ইউপি (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) জিল্লুর রহমানু, বড়াইল ইউপি আওয়ামী লীগ জাকির হোসেন, সলিমগঞ্জ ইউপি আওয়ামী লীগ খোরশেদ আলম, জিনদপুর ইউপি আওয়ামী লীগ আবদুর রউফ, বড়িকান্দি ইউপি আওয়ামী লীগ আনোয়ার পারভেজ, শ্যামগ্রাম ইউপি বিএনপি আমীর হোসেন, রতনপুর ইউপি আওয়ামী লীগ রুহুল আমীন, শিবপুর ইউপি আওয়ামী লীগ শাহীন সরকার ও বীনগর পশ্চিম ইউপিতে আওয়ামী লীগ ফিরোজ মিয়া।

কক্সবাজার

চকরিয়ার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী। সুরাজপুর-মানিকপুরে আওয়ামী লীগের আজিমুল হক আজিম। চিরিঙ্গা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের জসীম উদ্দিন। সাহারবিল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মহসিন বাবুল।

কাকারা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শওকত ওসমান। হারবাং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মিরানুল ইসলাম। কৈয়ারবিল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মক্কী ইকবাল হোসেন। বরইতলী ইউনিয়নে বিএনপির জালাল আহমদ সিকদার। বমুবিলছড়ি ইউনিয়নে বিএনপির আবদুল মতলব। খুটাখালী ইউনিয়নে স্বতন্ত্র মাওলানা আবদুর রহমান। লক্ষ্যারচর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র গোলাম মোস্তাফা কাইছার। ডুলাহাজারা ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির (এরশাদ) নুরুল আমিন।

গোপালগঞ্জ

আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যানরা হলেন কাশিয়ানী সদর ইউনিয়নে মশিউর রহমান খান, নিজামকান্দি ইউনিয়নে মহব্বত হোসেন মোল্লা (জুয়েল), সাজাইল ইউনিয়নে কাজী জাহাঙ্গীর আলম, রাতইল ইউনিয়নে বিএম হারুণ-অর-রশিদ পিনু, ফুকরা ইউনিয়নে মোঃ ইমদাদুল হক, পারুলিয়া ইউনিয়নে মকিমুল ইসলাম মকিম, সিঙ্গা ইউনিয়নে প্রণব সরকার, হাতিয়াড়া ইউনিয়নে দেবদুলাল বিশ্বাস, পুইশুর ইউনিয়নে মোল্লা আলিউজ্জামান পান্নু ও মাহমুদপুর ইউনিয়নে মাসুদ রানা। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহীরা হলেন ওড়াকান্দি ইউনিয়নে বদরুল আলম বিটুল ও মহেশপুর ইউনিয়নে কাজী আবুল কালাম আজাদ।

শীর্ষ সংবাদ:
এখন অপার সম্ভাবনা ॥ এক সময়ের অবহেলিত, বঞ্চিত দক্ষিণাঞ্চল         রায়ার ইচ্ছা পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী         পেঁয়াজ আতঙ্ক কেটে গেছে, কেনার হিড়িক নেই         এটিএম জালিয়াতি কমেছে         পাত্র চাই বিজ্ঞাপন দিয়ে এক নারী হাতিয়েছে ৩০ কোটি টাকা         করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত কমেছে, বেড়েছে সুস্থতা         করোনা শনাক্তে এ্যান্টিজেন ও এ্যান্টিবডি টেস্ট চালুর পরামর্শ         টিকা থেকে মাস্ক বেশি কার্যকর ॥ সিডিসি         ভারি বৃষ্টি উজানের ঢল- ধরলার পানি বিপদসীমার ওপরে         করোনা উপসর্গে ঝালকাঠিতে গৃহবধূর মৃত্যু         অপ্রতিরোধ্য গতিতে বাড়ছে মাদক পাচার, সেবন         আল্লামা আহমদ শফী আর নেই         পেঁয়াজ ভর্তি ট্রলার ভিড়েছে টেকনাফে         অর্থনৈতিক উন্নয়ন বেগবানে ৩৪ হাজার কোটি টাকার ফান্ড ঘোষণা এডিবির         করোনা ভাইরাসে আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪১         করোনা ভাইরাস ॥ বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ৯ লাখ, আক্রান্ত ৩ কোটির বেশি         অ্যাটর্নি জেনারেলের অবস্থার অবনতি, আইসিউতে স্থানান্তর         করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় কারিগরি কমিটির ৭ পরামর্শ         বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের নয় তিনি সারা বিশ্বের সম্পদ ॥ খাদ্যমন্ত্রী         ভিডিও কলে কথা বলে কিশোরীর ইচ্ছা পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী