সোমবার ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭, ১০ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ভারত থেকে আসা যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা হচ্ছে বেনাপোলে

  • জিকা ভাইরাস

স্টাফ রিপোর্টার, বেনাপোল ॥ জিকা ভাইরাস প্রতিরোধে বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস ভবনে আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ইমিগ্রেশন স্বাস্থ্যকেন্দ্রের কর্মীদের তৎপর থাকতে দেখা গেছে। জিকা ভাইরাস আক্রান্ত বিদেশী কোন যাত্রী আসছেন কি না সে ব্যাপারে নজর রাখছেন তারা। স্বাস্থ্যকর্মীরা ভারত থেকে আসা যাত্রীদের থার্মাল স্ক্যানিং মেশিনে শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করছেন।

জানা যায়, দক্ষিণ আমেরিকা থেকে ছড়িয়ে পড়া জিকা ভাইরাসের ঝুঁকিতে রয়েছে ভারতের পশ্চিমাঞ্চল। ভারত থেকে প্রতিদিন বিভিন্ন দেশের প্রায় চারশ’ বিদেশী যাত্রী বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে বাংলাদেশে আসেন। তাদের কেউ যদি এ ভাইরাস আক্রান্ত হন, তার মাধ্যমে এদেশে জিকা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে- এ আশঙ্কা থেকে সতর্কতা অবলম্বন করেছে স্থলবন্দরের স্বাস্থ্য বিভাগ।

ইমিগ্রেশন অফিস সূত্রে জানা যায়, ১-৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারত থেকে বিভিন্ন দেশের ৮৬৫ নাগরিক বাংলাদেশে এসেছেন। এর মধ্যে ভারতের ৮১৯, অস্ট্রেলিয়ার চার, শ্রীলঙ্কা, ইতালি ও ব্রিটেনের একজন করে, বেলারুশের দুই, মালয়েশিয়ার ১০, আমেরিকার ৮, কানাডার ৯ ও ইন্দোনেশিয়ার ১০ নাগরিক রয়েছেন।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম জানান, বিদেশীরা ইমিগ্রেশনে আসার পরপরই তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য স্বাস্থ্য কর্মীদের কাছে পাঠানো হচ্ছে।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনে কর্মরত উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার প্রণয় কুমার জানান, এর আগে ইবোলা ও সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস প্রতিরোধে কাজ করেছে ইমিগ্রেশন স্বাস্থ্য কেন্দ্র। নতুন করে জিকা ভাইরাস প্রতিরোধে নির্দেশনা পাওয়ায় এ বিষয়ে নজরদারি বাড়িয়েছেন তারা। ইমিগ্রেশন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ভারত থেকে আসা বিভিন্ন দেশের যাত্রীদের তালিকা ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীদের জানিয়ে দিচ্ছে। স্বাস্থ্যকর্মীরা তালিকা অনুযায়ী যাত্রীদের থার্মাল স্ক্যানিং মেশিনে শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করছেন। তিনি আরও জানান, জিকা ভাইরাস আক্রান্ত দেশে সাধারণত প্রসূতি মা এবং শিশুরা বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। এই ভাইরাস বাংলাদেশে ছড়ানো সম্ভাবনা নেই। কারণ, ছোট শিশু এবং প্রসূতি মায়েরা বাড়ি থেকে বেরই হয় না। আর ওই দেশের কোন লোককে সীমান্ত অতিক্রম করতে দেয়া হচ্ছে না। জানা যায়, দক্ষিণ আমেরিকা জুড়ে এডিস এজিপ্টি নামে এক প্রজাতির স্ত্রী মশার মাধ্যমে বাহিত জিকা ভাইরাসের কারণে মায়ের পেট থেকেই নানা সমস্যা নিয়ে জন্ম নেয় শিশু।

শীর্ষ সংবাদ:
৩ রুট ছাড়া বিমানের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বাতিল         বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে সমাহিত হবেন আলাউদ্দিন আলী         অর্থ আত্মসাতের মামলায় সাহেদ ৭ দিনের রিমান্ডে         সিনহা হত্যা ॥ পুলিশের দুই মামলায় সিফাতের জামিন         কক্সবাজারের পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার চায় রাওয়া         যুক্তরাষ্ট্রে নাগরিকত্ব ত্যাগের হিড়িক         ভারতে করোনায় একদিনে সহস্রাধিক মৃত্যু!         বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ২ কোটি ছাড়াল         তথ্যমন্ত্রীর পর লেবাননের পরিবেশমন্ত্রীও পদত্যাগ         হংকংয়ে গণতন্ত্রপন্থী ব্যবসায়ী গ্রেফতার         ভারতে সেপটিক ট্যাংকে নেমে ৬ শ্রমিকের মৃত্যু         উপসর্গহীনেই করোনা মুক্তির আশা         অনির্দিষ্টকালীন সময়ের জন্য বাতিল হচ্ছে আইপিএল নিলাম         লেবাননের বিস্ফোরণের নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি ফ্রান্সের         নাইজারে দুষ্কৃতদের হামলায় ৬ ফরাসীসহ নিহত ৮         ওয়াশিংটনে বন্দুকধারীদের হামলায় গুলিবিদ্ধ ২১, মৃত ১         ৯৪ বছরের মধ্যে নর্থ ক্যারোলিনায় সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প         পিজিসিসির ইরানবিরোধী আহ্বানে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উচ্ছ্বাস!         ঘুরে দাঁড়াচ্ছে অর্থনীতি ॥ শক্তিশালী হয়ে উঠছে সূচকগুলো         দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার জন্য বড় হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে        
//--BID Records