ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

রাজধানীতে স্বাভাবিক হয়নি গ্যাস সরবরাহ

প্রকাশিত: ০৫:৩৮, ৩০ জানুয়ারি ২০১৬

রাজধানীতে স্বাভাবিক হয়নি গ্যাস সরবরাহ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সঙ্কট কাটিয়ে এখনও স্বাভাবিক হয়নি গ্যাসের সরবরাহ। এতে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন আবাসিক এলাকার বাসিন্দাসহ বিভিন্ন ফিলিং স্টেশনে গ্যাস নিতে আসা গাড়ির চালকরা। এক মাসেরও বেশি সময় ধরে এ সমস্যা চললেও বেশ কয়েক দিন এই সঙ্কট আরও প্রকট হয়েছে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের। গ্যাসের চাপ না থাকায় বিকল্প উপায়ে কেরোসিনের চুলা, ওভেন অথবা রাইস কুকারের সাহায্যে রান্না করতে বাধ্য হচ্ছেন। অনেকেই আবার মাটির চুলায় সেরে নিচ্ছেন তাদের দৈনন্দিন রান্নার কাজ। রাজধানীর মিরপুর, মগবাজার, শ্যামলী, কল্যাণপুর, বাড্ডা এলাকায় ভুক্তভোগীদের অভিযোগ গত এক মাস ধরেই ভোর ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত গ্যাস থাকছে না। এছাড়াও রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার ফিলিং স্টেশনগুলোতে মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার এ্যাম্বুলেন্সসহ বিভিন্ন যানবাহনকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। চট্টগ্রামে গ্যাসের চাপ বাড়লেও কাটেনি সঙ্কট ॥ গ্যাস সঙ্কট থেকে সহসাই মুক্তি মিলছে না চট্টগ্রামের বাসিন্দাদের। গত কয়েক দিনের তুলনায় গ্যাসের চাপ বাড়লেও এখনও কাটেনি সঙ্কট। তাই এখনও চাহিদা অনুযায়ী গ্যাস না পাওয়ায় দুর্ভোগে আছেন নগরবাসী। সকাল থেকে সিএনজি স্টেশনগুলোতে দেখা যায় গ্যাস প্রত্যাশীদের দীর্ঘ লাইন। কাক্সিক্ষত কয়েক ইউনিট গ্যাসের জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে দেখা যায় সিএনজি অটোরিকশা ও প্রাইভেট গাড়ি চালকদের। প্রয়োজনীয় গ্যাস নিতে অপেক্ষা করতে হচ্ছে অন্তত ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা। আর গ্যাস নিতে সময় বেশি লাগায় জমার টাকা তুলতে হিমশিম খেতে হচ্ছে অটোরিকশা চালকদের। একই অবস্থা আবাসিক এলাকার বাসিন্দাদের। গ্যাসের চাপ কম থাকায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে তাদেরও। চট্টগ্রামে প্রতিদিন ৫০ থেকে ৫৫ কোটি ঘনফুট গ্যাসের চাহিদা রয়েছে। আর কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন থেকে সরবরাহ করা হচ্ছে মাত্র ২৫ থেকে ২৭ কোটি ঘনফুট। এতে গ্যাসের তীব্র সঙ্কট সৃষ্টি হয়েছে।
monarchmart
monarchmart