রবিবার ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রোগীর ব্যবস্থাপত্র নিয়ে টানাটানি

  • ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতাল

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও, ২১ অক্টোবর ॥ ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের ব্যবস্থাপত্র নিয়ে ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা প্রকাশ্যে টানাটানি করলেও কর্তৃপক্ষ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছেন।

হাসপাতালটিতে সপ্তাহে দুই দিন প্রতিনিধিদের চিকিৎসকদের সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি থাকলেও প্রতিদিনই তাদের হাতে রোগীদের হয়রানি হতে হচ্ছে।

বুধবার দুপুরে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, কর্তব্যরত চিকিৎসকদের কক্ষের সামনে ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের কয়েকজন প্রতিনিধি দাঁড়িয়ে। এসব কক্ষ থেকে কোন রোগী বের হলেই প্রতিনিধিরা ছুটে যাচ্ছেন ব্যবস্থাপত্র দেখতে।

বহির্বিভাগ থেকে চিকিৎসক দেখিয়ে ওষুধ কাউন্টারের দিকে এগিয়ে আসছিলেন এক রোগী। তাকে দেখে এগিয়ে যান দুই ব্যক্তি। রোগীর হাত থেকে ব্যবস্থাপত্রটি নিয়ে দেখতে শুরু করেন একজন। পরে পকেট থেকে মুঠোফোনটি বের করে ব্যবস্থাপত্রটির ছবি তুলে নেন।

ছবি তোলার কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে ওই ব্যক্তি নিজেকে ওষুধ উৎপাদনকারী একটি প্রতিষ্ঠানের তত্ত্বাবধায়ক পরিচয় দিয়ে জানান, তার নাম জামাল উদ্দীন। পরে বলেন, বুধবার চিকিৎসকদের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় দেয়া রয়েছে। তাই একটু আগেভাগে এসে রোগীর ব্যবস্থাপত্রগুলো যাচাই করে নিচ্ছি। এটাকে এক অর্থে জরিপ বলতে পারেন।’

এদিকে সদর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়ন থেকে চিকিৎসা নিতে আসা মনোয়ারা বেগম (৪৩) অভিযোগ করেন, ‘পেটের ব্যথা নিয়ে চিকিৎসার জন্য এসেছিলাম। চিকিৎসকের কক্ষ থেকে বের হওয়ার পর এক ব্যক্তি তার হাত থেকে ব্যবস্থাপত্রটি কেড়ে নেন। এরপর একজনের পর একজন সেটি দেখতে থাকেন। এভাবে চারজনের হাতবদলের পর নিজেদের মধ্যে কী যেন বলাবলি শেষে তারা আমার হাতে ব্যবস্থাপত্রটি ফেরত দেন।’ ততক্ষণ পেটে ব্যথা নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় বলে অভিযোগ করেন ওই নারী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক চিকিৎসক বলেন, ‘প্রতিদিন এই হাসপাতালে গড়ে ৩০ থেকে ৪০ জন প্রতিনিধি আসেন। সুযোগ বুঝে নিজ প্রতিষ্ঠানের ওষুধ লেখার অনুরোধ করতে তারা চিকিৎসকের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। পরে তারা রোগীদের কাছ থেকে ব্যবস্থাপত্র নিয়ে ওষুধের নামগুলো যাচাই করে দেখেন। এতে অনেক সময় রোগীদের হয়রানির শিকার হতে হয়।’

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের সিভিল সার্জন ডাঃ নজরুল ইসলাম বলেন, সপ্তাহে দুই দিন বেলা একটার পর ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের চিকিৎসকদের সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি রয়েছে। এর বাইরে কোন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি হাসপাতালে ঢোকার অনুমতি নেই। রোগীদের ব্যবস্থাপত্র নিয়ে টানাটানি তো একেবারেই কাম্য নয়। এটা বন্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩২৭৯৪৪০৭
আক্রান্ত
৩৫৭৮৭৩
সুস্থ
২৪১৯৩২৯৩
সুস্থ
২৬৮৭৭৭
শীর্ষ সংবাদ:
সবার সুরক্ষা চাই ॥ করোনা সঙ্কট উত্তরণে বহুপাক্ষিকতাবাদের বিকল্প নেই         সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণ         পুলিশে শুদ্ধি অভিযান         প্রধান আসামি মিজান সাত দিনের রিমান্ডে         কয়েক মাসেও হয়ত জানা যাবে না জয়ী কে ॥ ট্রাম্প         কঠিন শর্তের বেড়াজালে সিঙ্গাপুরগামী যাত্রীরা         দেশে করোনা রোগী শনাক্ত কমেছে         শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কর্মসূচী         কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার নির্মাণে দুর্নীতির প্রমাণ         গণফোরাম ভেঙ্গেই গেল ॥ ২৬ ডিসেম্বর এক পক্ষের কাউন্সিল         রূপপুর আবাসন প্রকল্পের আসবাবপত্র কেনা হচ্ছে অস্বাভাবিক দামে         বিনা খরচে আইনী সহায়তা পেলেন ৫ লাখের বেশি দরিদ্র অসচ্ছল মানুষ         পর্যটন শিল্পকে চাঙ্গা করতে ‘রিকভারি প্ল্যান’         বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে করোনা ভাইরাসের সনদ নেয়া ৩২ জনকে রেখে গেল সাউদিয়া         পাবনা-৪ আসনে ৭৫ কেন্দ্রের বেসরকারী ফলাফলে আওয়ামীলীগের নুরুজ্জামানের জয়         সবার সুরক্ষা চাই ॥ বিশ্বসভায় প্রধানমন্ত্রী         সোমবার প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ১০ টিভিতে ‘হাসিনা: অ্যা ডটারস টেল’         ভাঙলো গণফোরাম ॥ ২৬ ডিসেম্বর কাউন্সিলের ঘোষণা সাইয়িদ-মন্টু পক্ষের         ডোপ টেস্ট পজিটিভ হওয়ায় ২৬ পুলিশ সদস্যকে চাকরিচ্যুত করা হবে-ডিএমপি কমিশনার         করোনা ভাইরাসে আরও ৩৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১০৬