ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

বাণিজ্যমেলার সময় ১০ দিন বাড়ছে

প্রকাশিত: ০৩:৪২, ২৬ জানুয়ারি ২০১৫

বাণিজ্যমেলার সময়  ১০ দিন বাড়ছে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার মেয়াদ ১০ দিন বাড়ানো হচ্ছে। মেলায় অংশ নেয়া ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলোর আবেদনের ভিত্তিতে আয়োজক রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রবিবার ইপিবির বোর্ডসভায় এ সিদ্ধান্ত হয় বলে জানান, ইপিবির মহাপরিচালক-২ এসএম মাহবুবুর রহমান। তিনি বলেন, ইপিবির এ সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রীর সর্বশেষ নির্দেশনার ভিত্তিতে কার্যকর হবে। বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন। চলমান অবরোধ-হরতালে বিক্রি কম। এ জন্য ক্ষতি পুষিয়ে নিতে গত বৃহস্পতিবার মেলার সময় ১৫ দিন বাড়ানোর জন্য আবেদন করেন স্টল মালিকরা। স্টল মালিকরা মনে করছেন, রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে মানুষ তেমন মেলায় আসছে না। গত বছরের তুলনায় এবার বেচাকেনা অনেক কম। বিত্তশালী ক্রেতারা যানবাহন ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঝুঁকি মাথায় নিয়ে মেলায় আসছেন না। সেজন্য আশানুরূপ বিক্রিও হচ্ছে না। বিনিয়োগ করা টাকা তোলা তো দূরের কথা, ভালভাবে পণ্যের প্রচারও হচ্ছে না। তাই মেলার সময় বাড়লে ক্ষতি কিছুটা পুষিয়ে নেয়া যাবে। এর আগে ১ জানুয়ারি মাসব্যাপী ২০তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, অস্ট্রেলিয়া, জামার্নিসহ ১৪টি দেশের ৪৮টি প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিয়েছে। ১৩ লাখ ৭৩ হাজার বর্গফুট আয়তনে দেশী-বিদেশী ৫১৬টি স্টল ও প্যাভিলিয়ন রয়েছে। এর মধ্যে প্রথমবারের মতো নারী উদ্যোক্তাদের জন্য আলাদা ২৯টি সংরক্ষিত স্টল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। বর্ধিত সময় কার্যকর হলে মেলা ৩১ জানুয়ারির পরিবর্তে ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মেলা খোলা থাকে। প্রবেশমূল্য প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ৩০ ও শিশুদের জন্য ২০ টাকা আগে থেকেই নির্ধারণ করা হয়েছে। ভিআইপিদের আসা-যাওয়ার জন্য রয়েছে আলাদা গেট। মহাখালীতে স্যামসাংয়ের ফ্ল্যাগশিপ সার্ভিস সেন্টার অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স ঢাকায় প্রথমবারের মতো চালু করলো তাদের ফ্ল্যাগশিপ সার্ভিস সেন্টার। এটি স্যামসাং-এর প্রথম সার্ভিস সেন্টার যেখানে গ্রাহকরা একই ছাদের নিচে স্যামসাং-এর সকল পণ্যের জন্য বিক্রয়োত্তর সেবা লাভ করতে পারবেন। মহাখালীর এএল কমপ্লেক্সে অবস্থিত এই ফ্ল্যাগশিপ সার্ভিস সেন্টারটি রবিবার এক বিশেষ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্যামসাং বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সি এস মুন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্যামসাং ভারতের সার্ভিস ডিরেক্টর শিমইয়ং জুং এবং ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার সার্ভিস (সার্ক) গুরপ্রিত সিং বকশী। এ সময় সি এস মুন বলেন, “স্যামসাং-এর সকল পণ্যের জন্য দ্রুত ও সহজ সেবা প্রদানের জন্যই স্যামসাং ফ্ল্যাগশিপ সার্ভিস সেন্টার চালু করা হয়েছে। গ্রাহকদের সর্বোত্তম সেবা প্রদানের জন্য স্যামসাং প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। উচ্চমানের সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে এই খাতে একটি নিদর্শন সৃষ্টি করার লক্ষ্যে আমরা আশাবাদী।”
monarchmart
monarchmart