ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

যুবকের দুই পা ভেঙে দিলো ইউপি সদস্যের ছেলে

নিজস্ব সংবাদদাতা, দৌলতখান, ভোলা

প্রকাশিত: ১৯:০৩, ২৩ মে ২০২৪

যুবকের দুই পা ভেঙে দিলো ইউপি সদস্যের ছেলে

নাজিম

ভোলার দৌলতখানে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নাজিম (৩৫) নামে এক যুবককে রড দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে দুই পা ভেঙে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় তার স্ত্রী লিপি বেগম এগিয়ে আসলে তাকেও লাঞ্ছিত করা হয়। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম তাজমুল। তিনি চরখলিফা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেনের ছেলে। আহত নাজিম দৌলতখান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নাজিম দৈনিক জনকণ্ঠকে জানান, ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেনের ভাতিজা সুমন মালের সঙ্গে তার নানা শ্বশুর নাছির মালের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। জমির বিষয়টি সুরাহ করার কথা বললে ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন প্রায় তাকে হুমকি-ধামকি দিতো। গত বুধবার (২২মে) নাজিম দুপুরের খাবার খেতে ঘরে আসলে ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেনের ছেলে তাজমুল সহ ৬ জনের একটি গ্রুপ ঘর থেকে তুলে নিয়ে লোহার রোড দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে তার দু’পা ভেঙে দেন। এ সময় ডাক-চিৎকারে তার স্ত্রী লিপি বেগম এগিয়ে আসলে তাকে মারধর করা হয়। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে দৌলতখান হাসপাতালে এনে ভর্তি করান। নাজিমের অভিযোগ, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে  ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেনের ছেলে তাজমুল এ ঘটনা ঘটিয়েছে। যদিও এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন। তার দাবি, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তার ছেলে তাজমুলের সঙ্গে নাজিমের হাতাহাতি হয়েছে।

দৌলতখান থানার ওসি সত্য রঞ্জন খাসকেল জানান, আহত নাজিমের স্ত্রী বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে নির্বাচনী পরবর্তী সহিংসতার ঘটনা উল্লেখ্য করা আছে। জমিজমা সংক্রান্ত কোন ঘটনা সেখানে উল্লেখ্য করেনি। তবুও বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।  
 

এসআর

×