ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে পদ্মা নদীতে ডুবে বাবার মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর 

প্রকাশিত: ১৮:০০, ১১ এপ্রিল ২০২৪

ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে পদ্মা নদীতে ডুবে বাবার মৃত্যু

ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা লাশ উদ্ধার করে।

ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে গতকাল বুধবার পদ্মা নদীতে ডুবে নিখোঁজ বাবা শাহাদাত খানের (৫৫) লাশ উদ্ধার করেছে চরভদ্রাসন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

ডুবে যাওয়ার প্রায় ১৭ ঘণ্টা পর বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে গোপালপুর ঘাট থেকে আধা কিলোমিটার দূরে ভাসমান অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। লাশটি উদ্ধার করে প্রাথমিকভাবে নিহতের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

নিহত শাহাদাত খানের বাড়ি চরভদ্রাসন ইউনিয়নের বাদুল্লা মাতুব্বরের ডাঙ্গী গ্রামে। তিনি সপরিবারে ঢাকায় থাকতেন। ঈদের ছুটিতে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে গ্রামের বাড়িতে এসেছিলেন তিনি। গতকাল বুধবার বিকালে ছেলেকে নিয়ে পদ্মা নদীতে গোসল করতে গেলে ছেলে সিয়াম নদীতে ভেসে যেতে থাকলে পিতা শাহাদাত নদীতে ঝাঁপ দেন। ছেলে নদীর চরে উঠতে পারলেও পিতা ভেসে যান।

চরভদ্রাসন ফায়ার স্টেশনের (ভারপ্রাপ্ত) অফিসার মুর্তজা ফকির জানান, ঘটনার দিন তারা নদীতে ডুব দিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। অন্ধকার হয়ে যাওয়ায় সেদিন অপারেশন স্থগিত করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার ঈদুল ফিতরের নামাজের পর তারা আবারও উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে কিছু দূর ভেসে থাকা নিহত এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করেন।

চরভদ্রাসন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফয়সাল বিন করিম জানান, নদীতে গোসল করতে নেমে একজন নিখোঁজ হওয়ার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকে দ্রুত উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করতে বলা হয়। ঘটনার পরদিন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা লাশ উদ্ধার করে।

 

এম হাসান

×