ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১

বরিশালে আসছে নতুন চমক

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল

প্রকাশিত: ২২:৪৭, ২ এপ্রিল ২০২৪

বরিশালে আসছে নতুন চমক

আশিক আব্দুল্লাহ, মনিরুন নাহার, হারিছুর রহমান, জাকির হোসেন, মতিউর রহমান, আদনান আলম, জহির উদ্দীন ও রাজু ঢালী

নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলার দশটি উপজেলার সাতটিতে আসছে নতুন চমক। এর মধ্যে একটি উপজেলায় প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৌহিত্র সেরনিয়াবাত আশিক আব্দুল্লাহ।
বাকি ছয়টি উপজেলায় নতুন মুখের জনপ্রিয় ব্যক্তিরা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর পরই দীর্ঘদিন মাঠে থাকা প্রায় অর্ধশত সম্ভাব্য প্রার্থীরা হঠাৎ করে নিশ্চুপ বনে গেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নতুন চকম আসা উপজেলাগুলো হচ্ছেÑ বরিশাল সদর, আগৈলঝাড়া, গৌরনদী, বাবুগঞ্জ, বাকেরগঞ্জ, হিজলা ও মুলাদী। গত ৩০ মার্চ নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) আহসান হাবিব খান বরিশাল সফরে এসে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পর থেকেই এসব উপজেলার গ্রহণযোগ্য, সৎ ও জনপ্রিয় ব্যক্তিরা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

সূত্রমতে, প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বরিশাল সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হচ্ছেন বরিশাল প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেন। দলমত নির্বিশেষে পুরো উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের কাছে তার রয়েছে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা। প্রথম ধাপের বাকেরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিশ্বাস মুতিউর রহমান বাদশা। ক্লিন ইমেজের এ প্রার্থীর এলাকায় রয়েছে ব্যাপক সমর্থন।

দ্বিতীয় ধাপে বাবুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক মেধাবী ছাত্র ও করোনাকালে সময়ে এলাকায় ব্যাপক সহযোগিতা করে আলোড়ন সৃষ্টি করা আদনান আলম খান বাবু। বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের বাসিন্দা জনতা ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত ডিজিএম বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম খান ফিরোজের ছেলে আদনান আলম খান বাবু নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করায় উপজেলাবাসীর মধ্যে আনন্দের জোয়ার বয়ে যাচ্ছে।
তৃতীয় ধাপে আগৈলঝাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র ও বরিশাল-১ আসনের সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর জেষ্ঠ পুত্র জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য সেরনিয়াবাত আশিক আব্দুল্লাহ। একই ধাপের নির্বাচনে গৌরনদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বর্তমান গৌরনদী পৌর মেয়র হারিছুর রহমান।

গত কয়েকদিন থেকে দুই উপজেলার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দুই নেতার ছবি দিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন। তবে মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে গৌরনদী উপজেলার বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা মনিরুন নাহার মেরী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়েছেন।
চতুর্থ ধাপে হিজলা উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন সদ্য প্রয়াত উপজেলা চেয়ারম্যান বেলায়েত হোসেন ঢালীর একমাত্র ছেলে নজরুল ইসলাম রাজু ঢালী। 
 
চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভোটের মাঠে জামায়াত নেতারা
নিজস্ব সংবাদদাতা চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে জানান, রাজনীতিতে দীর্ঘদিন কার্যত ‘অনুপস্থিত’ থাকা জামায়াতে ইসলামী আবার নতুন করে আলোচনায় এসেছে। আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, এর আগের উপজেলা ও পৌর নির্বাচনে অংশ নেয়নি দলটি। তবে আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে দলটির নেতারা।

জামায়াতের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে চলছে নানামুখী আলোচনা। দলটির নেতারা বলছেন নির্বাচনে যাওয়ার বিষয়ে দলীয় কোনো সিদ্ধান্ত নেই। তবে কেউ চাইলে নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন। জামায়াত নেতাদের ভাষ্য, উপজেলা নির্বাচনের ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় কমিটির অবস্থান হলোÑ দলের স্থানীয় নেতা ও প্রার্থীর ব্যক্তিগত সামর্থ্যে ভোটে অংশ নিতে পারবেন।  
জানা গেছে, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে জামায়াত। চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোটের মাঠে নেমে পড়েছেন দলটির নেতারা। পাঁচটি উপজেলায় এরই মধ্যে জামায়াতের নেতারা প্রচার শুরু করেছেন। প্রথম ধাপে ৮ মে নাচোল, গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

মোরেলগঞ্জে আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী 
নিজস্ব সংবাদদাতা, মোরেলগঞ্জ, বাগেরহাট থেকে জানান, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে তৃতীয় ধাপে মোরেলগঞ্জে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। মাঠে-ময়দানে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী, জামায়াতে ইসলামীর  নেতারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নেমেছেন মাঠে। বিএনপি ও জাতীয় পার্টির দেখা মিলছে না। বড় দল আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক না থাকায় নিজ দলে একাধিক প্রার্থী মাঠে-ময়দানে কুশল বিনিময়, মতবিনিময় ও বিগত দিনের দলে তাদের নিজ নিজ অবস্থান ও কর্মকা-ের কথা তুলে ধরে লিফলেট বিতরণ করছেন নেতাকর্মী ও ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী থাকায় তৃণমূল পর্যায়ের কর্মীরা পড়েছে বিপাকে, হচ্ছে দ্বিধা-বিভক্ত। প্রার্থীদের মধ্যে অনেকেই নিজ দলের স্থানীয় সংসদ সদস্যের কাছের লোক ও আস্থাভাজন বলে প্রচারে রয়েছেন। 

পোরশায় ডজনের অধিক সম্ভাব্য প্রার্থী
নিজস্ব সংবাদদাতা নওগাঁ থেকে জানান, দ্বিতীয় ধাপে ২১ মে হবে পোরশা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। এ নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য ডজনেরও বেশি পুরুষ ও নারী মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রার্থিতার কথা জানিয়ে দিচ্ছেন উপজেলার জনগণকে। এবারের উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির কোনো প্রার্থী না থাকায় প্রার্থীদের মধ্যে প্রায় সবাই উপজেলার আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের সদস্য এবং অনেকে বয়সে তরুণ। পুরো রমজানেও তারা দিনরাত নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।

বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান কাজীবুল ইসলাম এবারেও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়বেন বলে জানিয়েছেন। বর্তমান যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান খোকন নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন জোরেশোরে। সাবেক ছাত্রনেতা তৈয়ব আলী নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে যাচ্ছেন। উপজেলা আদিবাসী পরিষদের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মহেন্দ্র পাহান ভাইস চেয়ারম্যান পদের জন্য মাঠে রয়েছেন।

×