ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

নির্বাচনী প্রচারণায় বারবার হামলার শিকার হিরো আলম

প্রকাশিত: ২১:০০, ২৪ ডিসেম্বর ২০২৩

নির্বাচনী প্রচারণায় বারবার হামলার শিকার হিরো আলম

হিরো আলম 

নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে গিয়ে আবারও বাধার সম্মুখীন হয়েছেন বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনের প্রার্থী আলোচিত ইউটিউবার হিরো আলম।

রবিবার (২৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় কাহালু বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এদিন হিরো আলম কাহালু উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় নির্বাচনী গণসংযোগ করেন। আশরাফুল আলম হোসেন ওরফে হিরো আলম দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী হয়ে ডাব প্রতীকে বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

হিরো আলম ও তার নির্বাচনী কর্মীরা জানান, উপজেলার বিভিন্ন স্থানে প্রচারণা শেষে সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে কাহালু বাজার এলাকায় যান তারা। বাজারের বটতলা এলাকায় প্রচারণা চালানোর সময় অপরিচিত এক ব্যক্তি এসে হিরো আলমকে কটূক্তি করে কথা বলা শুরু করেন। পরে তাকে নিষেধ করা হলে আরও উত্তেজিত হয়ে পড়েন ওই ব্যক্তি। এক পর্যায়ে তার সঙ্গে আরও কয়েকজন জড়ো হয়ে হামলে পড়ে হিরো আলমের দিকে। এ সময় রবি নামে এক কর্মীর নাকে ঘুসি মারেন ওই ব্যক্তি। পরে ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ ও স্থানীয়রা এগিয়ে এলে ওই ব্যক্তি পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে হিরো আলম বলেন, আজকেও কাহালু বাজারে প্রচারণা চালানোর সময় আমাদের ওপর হামলা হয়। আমাদের প্রচারণার সময় দুজন পুলিশ ছিলেন। হট্টগোল শুনে তারা এগিয়ে এলে ওই হামলাকারী পালিয়ে যায়।  

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন কাহালু থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা। তিনি বলেন, এটা ব্যক্তিগত কারণ থেকে প্রার্থী হিরো আলমের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হয়েছে। আমি পুলিশ পাঠিয়েছি ওই ব্যক্তিকে আটক করার জন্য।  

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নন্দীগ্রামের মুরাদপুর বাজারে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে গিয়ে নৌকার সমর্থকদের হাতে হামলার শিকার হওয়ার অভিযোগ তুলেছিলেন বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী হিরো আলম। ওই হামলায় মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ তুলেন তিনি। তবে মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা পুলিশ খুঁজে পায়নি বলে জানিয়েছিলেন নন্দীগ্রাম থানার ওসি আজমগীর হোসাইন।

 

এবি

×