ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

বেড়ায় সাত কিমি সড়কে চরম ভোগান্তি

নিজস্ব সংবাদদাতা, বেড়া, পাবনা

প্রকাশিত: ২২:২৮, ১২ অক্টোবর ২০২৩

বেড়ায় সাত কিমি সড়কে চরম ভোগান্তি

পাবনার বেড়ায় চকপাড়া মসজিদ হতে নলভাঙ্গা সড়ক বেহাল

সংস্কার না করায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে চকপাড়া মসজিদ হতে নলভাঙ্গা পর্যন্ত সাত কিলোমিটার রাস্তা। সাত কিলোমিটার রাস্তার ভাঙা অংশের তিন কিলোমিটার বেড়া পৌরসভার নিয়ন্ত্রণাধীন ও চার কিলোমিটার বেড়া উপজেলা এলজিইডির। এতে দুই ইউনিয়নের প্রায় ১৭ হাজার মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এ সড়কের বেহাল দশায় প্রতিনিয়ত দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন চাকলা, নলভাঙ্গা ইউনিয়নের ও বড়শিলা গ্রামের হাজারো মানুষ। সড়কের বিভিন্ন জায়গায় পিচ-খোয়া উঠে গেছে অনেক আগেই। এখন  সেখানে সৃষ্টি হয়েছে ছোট-বড় খানাখন্দের। ফলে সড়কে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। বৃষ্টি হলে পানি জমে দুর্ভোগ চরমে পৌঁছায়। 
বরশিলা গ্রামের আ. হালিম, ইলিয়াস, একেএম ফজলু, মনিরসহ মহল্লাবাসী অভিযোগ করে বলেন, তাদের এ সড়কটি বেশ কয়েক বছর হলো অবহেলার মধ্যে রয়েছে। সড়কটির অবস্থা খুবই নাজুক। এমন সড়ক পুরো উপজেলায় আর নেই। 
পাচুরিয়া গ্রামের ওমর ফারুক বলেন, সড়কটি নির্মাণের ফলে তারা ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক পরিহার করে খুব সহজে উপজেলা সদর ও চতুর হাটে যেতে পারেন।  এতে করে তাদের মহাসড়কে চলাচলে ঝুঁকি ও যাতায়াতের অনেক খরচ কম হতো। কিন্তু বর্তমানে রাস্তাটির অবস্থা এমন খারাপ যে, হেঁটে চলাচল করাই বিপদ হয়ে পড়েছে।
বেড়া পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী বলেন, বড়শিলা মহল্লাবাসীর দুর্ভোগ লাঘবে জরুরিভাবে মাটি ফেলে সচল রাখা হয়েছে, অর্থ বরাদ্দ পেলে সংস্কার করা হবে। এলজিইডির বেড়া উপজেলা প্রকৌশলী আক্তারুজ্জামান বলেন, তাদের নির্মাণ করা সাত কিলোমিটার সড়ক সংস্কারের জন্য অর্থ বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। বন্যার পানি কমলে রাস্তা মেরামতের কাজ শুরু হবে বলে আশা করছি।

×