ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১

ডাব চুরি করতে গিয়ে গাছেই অজ্ঞান কিশোর

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর

প্রকাশিত: ১২:৫১, ২৯ মার্চ ২০২৩

ডাব চুরি করতে গিয়ে গাছেই অজ্ঞান কিশোর

ম্যাপে ফরিদপুর

ফরিদপুরে ডাব চুরি করতে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে নারিকেল গাছেই আটকা পড়ে এক কিশোর। জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ছয় ঘণ্টা পর তাকে উদ্ধার করেছেন পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। 

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) রাতে মধুখালী পৌরসভার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়রের মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় বাসিন্দা মধুখালী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হাবিবুর রহমান জানায়, ‘রাত সাড়ে ৮টার দিকে ছোট ভাই ও তার কয়েক সহযোগিকে নিচে রেখে ডাব চুরির উদ্দেশ্যে মধুখালী পৌরসভার বনমালীদিয়া গ্রামের বাসিন্দা জিহান(১৪) ওই গাছে ওঠে। পরে আর নামতে পারেনি। ভয়ে সে গাছেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে। সাড়া শব্দ না পেয়ে গাছের নিচে থাকা তার ছোট ভাই স্থানীয়দের জানালে তারা ৯৯৯-এ ফোন করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এসে চার ঘণ্টার চেষ্টায় তাকে উদ্ধার করেন।’
 
ঘটনাস্থলের পাশেই বাড়ি ব্যাংক কর্মকর্তা আমির হোসেন এর। তিনি জনকন্ঠকে জানান, ডাব পাড়ার উদ্দেশ্যে জিহান নামে ওই কিশোর তার কয়েক সহযোগিকে নিচে রেখে গাছে উঠে আর নামতে পারছিল না। পরে গাছেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তার ভাইয়ের চিৎকার চেচামেচি শুনে আমরা ঘটনাস্থলে এসে ৯৯৯-এ ফোন করি। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করেন।
 
মধুখালী ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বলেন, রাত ১০টার দিকে ৯৯৯-এ কল পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। রাত দেড়টার দিকে ওই ছেলেকে উদ্ধার করা হয়। নারিকেল গাছটি বেশ বড় হওয়ায় আমাদের ফায়ার সার্ভিস অফিসে যাবতীয় সরঞ্জাম না থাকার কারণে ফরিদপুর জেলা ফায়ার সার্ভিস একটি ইউনিটের সাহায্য নেওয়া হয়।

মধুখালী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, জিহান নামে এই কিশোরটি ডাব ও সুপারিসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র চুরি করে। সে ডাব চুরির উদ্দেশ্যে গাছে ওঠার পর আর নামতে পারেনি। ভয়ে গাছের ওপরই অজ্ঞান হয়ে যায়। গাছ থেকে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে।  তখনও অজ্ঞান থাকায় তাকে মধুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। পরবর্তীকালে সুস্থ হওয়ায় সে বাড়িতে চলে গেছে। শিশু হওয়ায় তার বিরুদ্ধে আইনগত কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

টিএস

×