ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯

যে কারণে ১৯ কেজির মাছটি ২ লাখ টাকায় বিক্রি

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট

প্রকাশিত: ১৯:৩৪, ১৯ আগস্ট ২০২২

যে কারণে ১৯ কেজির মাছটি ২ লাখ টাকায় বিক্রি

বঙ্গোপসাগরে জেলেদের জালে ধরা পড়ে ১৯ কেজির জাবাভোল মাছটি।

পূর্ব সুন্দরবন সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে জেলেদের জালে ধরা পড়েছে সাড়ে ১৯ কেজি ওজনের একটি জাবা
ভোল মাছ। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) বাগেরহাট মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের অনুপ কুমারের আড়তে মাছটি বিক্রি জন্য আনা হয়। পরে কেজি প্রতি ৯ হাজার ৭৪৩ টাকা মূল্যে ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা দিয়ে মাছটি কিনেন বাগেরহাটের মাছ ব্যবসায়ী মো.অলিল খলিফা। 

এর আগে গত ১৭ আগষ্ট বরগুনা জেলার পাথরঘাটা এলাকার মাছ ব্যবসায়ী মাসুমের “এফবি আলাউদ্দিন” ট্রলারে থাকা জেলেদের জালে মাছটি ধরা পড়ে। এই মাছের ঔষধি গুণ থাকার কারণে মাছটির মূল্য এত বেশি বলে জানা যায়।

মাছ ব্যবসায়ীরা জানান, বিভিন্ন ওষুধ উৎপাদনকারী সংস্থাগুলো তাদের কাছ থেকে এই মাছ কিনে নেয়।
জাবাভোল মাছের মন ৫ লাখ টাকা। সেই হিসাবে সাড়ে ১৯ কেজি ওজনের মাছটি ক্রয় করেছি ১ লাখ ৯০ হাজার টাকায়। এখন এই মাছটি বরফ দিয়ে পিরোজপুর জেলার পারেরহাট নিয়ে যাওয়া হবে। সেখান থেকে চট্রগ্রামে পাঠানো হবে। আশাকরি ৫০ হাজার টাকা লাভ করতে পারবো।

বাগেরহাট মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের আড়ৎদার সমিতির সভাপতি শেখ আবেদ আলী বলেন, জাবা ভোলা মাছ খুব একটা পাওয়া যায় না। এই মাছের ঔষধি গুণ থাকাতে এর মূল্য এত বেশি। মাছ ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ওষুধ উৎপাদন সংস্থাগুলো এই মাছ কিনে নেয়।

এফবি আলাউদ্দিন ট্রলারের মাঝি জাফর বলেন, সাগরে আবহাওয়া খারাপ থাকায় বাড়ি ফেরার সময় সাগরে জাল ফেলা হয়। রাতে জাল টানার সময় জাবা ভোল মাছটি পাওয়া যায়। এতে আমরা অনেক খুশি হয়েছি।