১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ৬ ফাল্গুন ১৪২৬, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

বৃষ্টির পর ফের ঠান্ডার প্রকোপ শুরু

প্রকাশিত : ২১ জানুয়ারী ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বৃষ্টির কারণে আবার হিমশীতল ঠান্ডা শুরু হয়েছে। দেশের উত্তরাঞ্চলসহ বিভিন্ন এলাকায় বয়ে যাচ্ছে হিমেল হাওয়া। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, কিছু জায়গায় বৃষ্টি হওয়ায় ঠান্ডা বেশি অনুভূত হচ্ছে। আরও কয়েকদিন এই আবহাওয়া বিরাজ করবে। দুএকদিনে তাপমাত্রা আরও কমবে। এছাড়া আবারও শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার আভাস রয়েছে। সোমবার দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় ১০ দশমিক ২ ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, গত দুই দিনে কিছু কিছু এলাকায় বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টির কারণে তাপমাত্রাও কমছে। আরও কিছুটা কমতে পারে। শৈত্যপ্রবাহ না হলেও কাছাকাছি যাবে তাপমাত্রা। এদিকে ঢাকায় তাপমাত্রা না কমলেও বাতাসের কারণে শীত অনুভূত হচ্ছে।

পঞ্চগড় ॥ এদিকে জেলায় আবারও জেঁকে বসেছে শীত। কমেছে তাপমাত্রা, বইছে ঠান্ডা বাতাস। কনকনে ঠান্ডা বাতাস আর শীতে ঠকঠক করে কাঁপছে জেলার মানুষ। গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টির পর সোমবার সকাল থেকে দিন ও রাতের তাপমাত্রা কমতে শুরু করে। গত দুদিন সারাদিন সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। ঘন কুয়াশায় ঢেকে থাকছে পথ ঘাট। ঠান্ডা বাতাস বয়ে চলায় প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হচ্ছে না কেউ। দিনের বেলায়ও হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে যানবাহনগুলো। মানুষের পাশাপাশি প্রাণিকুলেরও অবস্থা জবুথবু। সবচেয়ে দুর্ভোগে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। প্রয়োজনীয় শীতবস্ত্রের অভাবে খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন তারা। শীতের প্রকোপ আর ঠান্ডা বাতাসের কারণে কাজে যেতে পারছেন না শ্রমজীবীরা। হাসপাতালগুলোতে শীতজনিত রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। সরকারী-বেসরকারী ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানগুলোর পক্ষ থেকে দুস্থ শীতার্তদের দেয়া হচ্ছে শীতবস্ত্র। সরকারীভাবে এ পর্যন্ত ৪৫ হাজার শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয় বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।

ঠাকুরগাঁও ॥ জেলায় গত ৩/৪ দিন ঝলমলে সূর্যের আলো এবং শীতের তীব্রতা কম থাকলেও সোমবার মাঘের কনকনে শীত আবারও জেঁকে বসেছে। সকাল থেকেই হিমেল হাওয়ায় শীতের তীব্রতা অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যায়। আকাশে মেঘের কারণে সোমবার দিনব্যাপী জেলায় সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। হিমেল হাওয়া বয়ে যাওয়ার কারণে হাড়কাঁপানো শীত অনুভূত হচ্ছে। শীতে কাহিল হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে খেটে খাওয়া মানুষ মাঠে কাজ করতে পারছে না। গত ২৪ ঘণ্টায় বিভিন্ন স্থানে মাঝে মাঝে টিপটিপ বৃষ্টি হয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক আফতাব হোসেন জানান, শীত বৃদ্ধির কারণে গম ও আলুর ফলন বেড়ে যাবে।

প্রকাশিত : ২১ জানুয়ারী ২০২০

২১/০১/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: