২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১২ ফাল্গুন ১৪২৬, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসবে আজ জাগরণী থিয়েটারের ‘রাজার চিঠি’

প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯
গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসবে আজ জাগরণী থিয়েটারের ‘রাজার চিঠি’

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসবে আজ জাগরণী থিয়েটারের ‘রাজার চিঠি’ নাটকের মঞ্চায়ন হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার স্টুডিও থিয়েটার হলে আজ সন্ধ্যা ৭টায় নাটকটির বিশেষ মঞ্চায়ন হবে। জাগরণী থিয়েটারের ১৫তম প্রযোজনা ‘রাজার চিঠি’ নাটকটি রচনা করেছেন মাহফুজা হিলালী। নির্দেশনা দিয়েছেন দেবাশীষ ঘোষ। নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করবেন স্মরণ সাহা, ¯িœগ্ধা শ্রাবণ, সেবেকুন নাহার মুন, শাহানাজ শারমিন খান শিমু, জুলিয়েট সুপ্রিয়া, মোঃ ইয়াসিন শামীম, মোঃ বাহারুল ইসলাম বাহার, মোঃ রফিকুল ইসলাম রনি, সজীব ঘোষ, রুকুনুজ্জামান আপেল, রিপা হালদার, মীম, শেখ আকাশ, পল্লব সরকার, মোহানী মানিক, ইমন ও সোয়েব হাসনাত মিতুল।

‘রাজার চিঠি’ নাটকের কাহিনীতে তুলে ধরা হয়েছে ১৯৩৯ সালে শাহজাদপুরের শ্রী হরিদাস বসাকের একটি চিঠির উত্তর লিখেছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। এই চিঠি এবং রবীন্দ্রসাহিত্যের প্রভাবে হরিদাস বসাকের জীবন রবীন্দ্রনাথের ‘ঠাকুরদা’ চরিত্রের মতো হয়ে ওঠে। এই কাহিনী নিয়েই ‘রাজার চিঠি’ নাটকটি লেখা। এক সময় যুবক হরিদাস রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কাছে চিঠি লিখেছিলেন। এ নিয়ে তার পরিবার-পরিজন এবং বন্ধু-বান্ধব হাসাহাসি করেছিল। কিন্তু দেখা যায়, একদিন রবীন্দ্রনাথ সে চিঠির উত্তর দিয়েছেন। এ সময় হরিদাস বসাককে সবাই সমীহ করতে শুরু করে। অন্যদিকে হরিদাস বসাক ও সাহিত্য সংস্কৃতির কাজে নিজেকে সঁপে দেন। সময়ের প্রবাহে আসে ১৯৪৭ সাল। এ সময় অনেকেই দেশ ছেড়ে ভারতে চলে যায়। কিন্তু যে ঠিকানায় রবীন্দ্রনাথ তাকে চিঠি লিখেছেন, সে ঠিকানা হরিদাস বসাক বদল করতে চান না। নাটকে ১৯৪৭ সালের দেশ বিভাগের চিত্র এবং হরিদাস বসাকের মাতৃভূমি আঁকড়ে থাকা দেখা যায়। এরপর আসে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ। মুক্তিযুদ্ধের ভয়াবহতায় হরিদাস বসাকের স্বপ্নভঙ্গ হয়। পুড়িয়ে ফেলা বাড়ি ঘর দুয়ারের সামনে দাঁড়িয়ে হরিদাস বসাক সেদিন তাঁর আত্মজনের খোঁজ নেন না, শুধু শিশুর মতো হাহাকার করেন চিঠিটির জন্য। এ অবস্থায় পাকিস্তানী আর্মি এসে দাঁড়ায় হরিদাস বসাকের সামনে। তার মুখে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নাম শুনে আর্মিরা তাকে বেয়োনেট দিয়ে মারতে থাকে। নাটকের কাহিনী এখানেই শেষ হলেও এর বিস্তৃতি বহুদূর পর্যন্ত প্রসারিত।

প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯

১৭/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

সংস্কৃতি অঙ্গন



শীর্ষ সংবাদ: