২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রাজধানীতে গৃহবধূর আত্মহত্যা, ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার


স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর কাফরুলে এক সরকারী কর্মচারীর স্ত্রী গলা কেটে আত্মহত্যা করেছেন। মিরপুরে বোটানিক্যাল গার্ডেনের ভেতরে একটি গাছ থেকে এক ব্যক্তির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয়েছে। মালিবাগে ট্রেনে কাটা পড়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে মিরপুরে নিষিদ্ধ সংগঠন হিযবুত তাহ্রীরের এক সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অন্যদিকে গ্রীন রোডে সেন্ট্রাল হাসপাতালে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রাজধানীর মিরপুর ১৪ নম্বর সেকশনের পুলিশ লাইন সংলগ্ন ১৪/২ নম্বর ছয়তলা ভবনের ৫ তলায় মাহমুদা আক্তার (৩৮) নামে এক গৃহবধূ নিজ গলায় বঁটি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। নিহতের স্বামী মোঃ জহিরউদ্দিন (৪৫) সরকারী চাকুরে। কাফরুল থানার এসআই রকিবুল ইসলাম জানান, বুধবার মধ্যরাতে মিরপুর ১৩ নম্বর সেকশনের এই ঘটনা ঘটে। তিনি জানান, বিষয়টিকে আত্মহত্যা বলে মনে করলেও তার স্বামী জহিরউদ্দিনকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তার স্বামী জহিরউদ্দিন রাত পৌনে ১টার দিকে স্ত্রী মাহমুদাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী পরিদর্শক সেন্টু চন্দ্র দাস জানান, ওই নারীর গলা বঁটি দিয়ে কাটা বলে মনে হয়েছে। জহির আমাদের বলেছেন, রাতের বেলা তিনি বাথরুমে গিয়েছিলেন। ফিরে দেখেন স্ত্রী রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছেন। কাফরুল থানার ওসি শিকদার মোহাম্মদ শামীম বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে এটা আত্মহত্যা। তার পরও আমরা জহিরকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। নিহতের স্বামী জহিরউদ্দিন জানান, তার স্ত্রীকে পাশের ফ্ল্যাটের এক বখাটে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত। এ নিয়ে মাহমুদা বেশ মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন। এ ঘটনার জের ধরেই রাত ১২টার দিকে রান্নাঘরে বঁটি দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালাতে পারেন। রাত সোয়া ১২টার দিকে বাসায় ফিরে দেখি স্ত্রী বাথরুমের সামনে গলা কাটা রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। পরে তাকে ওই অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে আনার পর ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে দাবি করেন তিনি।

এক ব্যক্তির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ॥ জাতীয় উদ্যান মিরপুরে বোটানিক্যাল গার্ডেনের ভেতরে একটি গাছ থেকে অজ্ঞাত (৪৫) এক ব্যক্তির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। শাহ আলী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল হামিদ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জাতীয় উদ্যানের লেকের পাশের একটি হিজলগাছ থেকে ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়। তার পরনে খয়েরি রঙের ফলহাতা শার্ট ও চেক লুঙ্গি ছিল। তিনি জানান, পরে তার লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু ॥ মালিবাগে ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত (৩৫) এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পৌনে ছয়টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটনার পর ঢাকা রেলওয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গেছেন। পরে রাতে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠাবেন বলে ঢাকা রেলওয়ে পুলিশের ওসি আব্দুল মজিদ জানান।

হিযবুত তাহ্রীর এক সদস্য গ্রেফতার ॥ রাজধানীর মিরপুরে নিষিদ্ধ সংগঠন হিযবুত তাহ্রীরের ফাইদুর রহমান (৩৬) নামে এক সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে টোলারবাগের বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) বিশেষ সুপার মোঃ আবুল কালাম আজাদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে গার্মেন্টসের ঝুট ও মাছ ব্যবসায়ী ফাইদুর ইন্টারনেটের মাধ্যমে হিযবুত তাহ্রীরের পক্ষে ও সরকারের বিরুদ্ধে প্রচার চালিয়ে আসছিল। যার প্রমাণ তার ল্যাপটপে পাওয়া গেছে। ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থান থেকে সদস্য সংগ্রহ করা দায়িত্ব ছিল তার। ২০১০ সালে সে শাহবাগ এলাকা থেকে একবার গ্রেফতার হয়েছিল। তার বিরুদ্ধে তথ্য ও প্রযুক্তি আইনে মিরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা আজাদ। তার আরও কয়েকজন সহযোগী রয়েছে। যাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ২০০৭ সালে হিযবুত তাহ্রীর নিষিদ্ধ করা হয়।

আগুন ॥ রাজধানীর গ্রীন রোডের সেন্ট্রাল হাসপাতালে আগুন লাগে। বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে নিচতলার গোডাউনে আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চেলায়। প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে দুপুর আড়াইটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার কর্মীরা। সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ওসি এনায়েত হোসেন জানান, ফায়ার সার্ভিসের ৭টি ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। বেজমেন্টে আগুন লাগায় ও কালো ধেঁাঁয়ার কারণে ফায়ার কর্মীদের কাজে কিছুটা সমস্যা হয়। ধানম-ি থানার ওসি নূরে আজম মিয়া জানান, হাসপাতালের নিচতলার গোডাউনে আগুন লাগে। তবে কি কারণে আগুন লেগেছে তা জানা যায়নি। ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা তদন্ত করে বিষয়টি জানাবেন। পুলিশও তদন্ত করছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: