২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

দু’একজনের সুবিধার জন্য আমাদের মন্ত্রীত্বের প্রয়োজন নেই- জি. এম কাদের


স্টাফ রিপোর্টার ॥ জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জি.এম কাদের বলেছেন, আমরা লেজুরবিত্তির বিরোধী দল চাই না। শক্তিশালী বিরোধী দল চাই। কিছু ব্যক্তির ব্যক্তিগত স্বার্থের কারণে বিরোধী দল হিসেবে জাতীয় পার্টি সঠিক ভূমিকা পালন করতে পারছে না। কারণ তারা মন্ত্রী পরিষদে আছেন। দু’একজনের সুবিধার জন্য আমাদের মন্ত্রীত্বের প্রয়োজন নেই। বুধবার দুপুরে কাকরাইলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, মন্ত্রী পরিষদ থেকে দলের নেতাদের পদত্যাগের বিষয়ে প্রেসিয়াম সদস্যরা একমত হয়েছেন। তৃনমূলের দাবিও তাই। আমিও মনে করে সরকারের থাকলে বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করা যায় না। মানুষ এখন সবই বোঝে। তাই সত্যিকারের বিরোধী দল গঠন করতে হলে মন্ত্রী পরিষদ থেকে দলের নেতাদের বেরিয়ে আসতে হবে। আশাকরি বিষয়টি আমাদের দলের মন্ত্রীরা গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করবেন।

জাপার জাতীয় কাউন্সিল উপলক্ষে আয়োজিত প্রস্তুতি সভায় তিনি বলেন, আমরা সত্যিকারের বিরোধী দল হতে চাই। সরকারে মন্ত্রীত্ব রেখে বিরোধীদল হওয়া যায়না। আমাদের অনেক দীর্ঘপথ পাড়ি দিতে হবে। আর তা পাড়ি দেওয়া সহজ হবে তা ভাবার দরকার নেই।

তিনি বলেন, আমাদের নিজেদের মাঝে যে বিভেদ আছে তা ভূুল যেতে হবে। আমরা সকল বিভেদ ভুলে যেতে চাই। সবাইকে নিয়ে কাজ করতে চাই। এ বিভেদ জাতীয় পার্টিকে অনেক পিছনে নিয়ে গেছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, ইতিপূর্বে জাতীয় পার্টি থেকে যারা বহিস্কার হয়েছে পর্যায়ক্রমে তাদের সকলকে দলে ফিরিয়ে নেয়া হবে। অতীতে যে সকল জেলায় সম্মেলনে অনেককেই বাদ দিয়ে কমিটি করা হয়েছে তাদেরও ফিরিয়ে আনা হবে। নতুন কোন জেলা কাউন্সেলে কাউকে বাদ দিয়ে কমিটি করা হবে না।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে জিএম কাদের বলেন, কর্মীরাই আমার শক্তি। আমি বিত্তশালী নই, আমার কোন বাহিনী নেই। আমি মন্ত্রীত্বের জন্য কাজ করিনা। তিনি সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানিয়ে বলেন, দলের যে কোন সিদ্ধান্ত আপনারা মেনে চলবেন। কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় দ্বিমত থাকলেও কার্যকরের সময় দ্বিমত করা যাবেনা। আর এটিই হলো একতা।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ত্ব করেন দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি। আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, সাইদুর রহমান টেপা, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, হাজী সাইফুদ্দিন মিলন, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা রিন্টু আনোয়ার, ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মাওলা চৌধুরী, এ এইচ এন সফিকুর রহমান, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভঁইয়া, জহিরুল আলম রুবেল, সুলতান মাহমুদসহ সকল অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: