মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ জুন ২০১৭, ১২ আষাঢ় ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

জাতিসংঘ সদর দফতরের সামনে একুশে ভাস্কর্য উদ্বোধন

প্রকাশিত : ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৬
  • শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে

এনা নিউইয়র্ক থেকে ॥ যত দ্রুত সম্ভব সরকারী উদ্যোগে নিউইয়র্কে একটি শহীদ মিনার প্রতিষ্ঠা করা হবে। জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের সদর দফতরের সামনে মাসব্যাপী ভাস্কর্য স্থাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে এ কথা বলেন। জাতিসংঘের সামনে ভাস্কর্য স্থাপনের মধ্য দিয়ে বাংলা ভাষার নতুন জয়গান শুরু হলো, সৃষ্টি হলো নতুন ইতিহাস, স্বপ্ন রূপ পেল বাস্তবে। যার যাত্রা যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত জাতিসংঘ সদর দফতরের সামনেই। জাতিসংঘের সদর দফতরের সামনে ভাষা শহীদ স্মৃতি স্তম্ভ স্থাপনের ঐতিহাসিক মুহূর্তকে বাংলা ভাষা ও ভাষা শহীদদের জন্য বড় অর্জন বলে জানান অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া বিশিষ্টজনেরা। ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয় এই ভাস্কর্যের।

গত ১ ফেব্রুয়ারি (নিউইয়র্ক সময়) বিকেল তিনটায় জাতিসংঘের সদর দফতরের সামনে প্রথমবারের মতো স্থাপিত এই ভাস্কর্যের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ সরকারের পাশাপাশি নিউইয়র্ক সিটি এবং স্টেটের প্রতিনিধিরা। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের ঐতিহাসিক এই শুভ সূচনার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদনে এসে বিশ্বব্যাপী বাংলা ভাষা ছড়িয়ে পড়ায় উচ্ছ্বসিত বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মানুষ। সেমন্তী ওয়াহিদের সঞ্চালনায় এবং আয়োজক সংগঠন মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের কর্ণধার বিশ্বজিত সাহার সার্বিক তত্ত্বাবধানে অমর একুশে ভাষা শহীদদের ভাস্কর্য উন্মোচনের আগে সংক্ষিপ্ত আলোচনার শুরুতেই বক্তব্য রাখেন অভিনেতা জামাল উদ্দিন হোসেন, জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশ মিশনের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন ও কনসাল জেনারেল শামীম আহসানসহ নিউইয়র্ক সিটি এবং স্টেটের প্রতিনিধিরা।

স্বামীর নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ বিয়ের পর থেকেই শুরু হয় স্বামীর নির্যাতন। দিন দিন বাড়তে থাকে এই নির্যাতনের মাত্রা। স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে শেষ পর্যন্ত শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন জালিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চলিয়েছে জান্নাতুন (১৭) নামের এক গৃহবধূ।

রবিবারের এ ঘটনার পর থেকে স্বামীর বাড়িতে গোপনে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল জান্নাতুনকে। এদিকে ঘটনাটি জানার পর জান্নাতুনের বাবার বাড়ির লোকজন মঙ্গলবার সকালে তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করে। সে এখন রামেকের বার্ণ ইউনিটে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে। জানা গেছে, উপজেলার পাঁচন্দর গ্রামের মৃত নওসাদ আলীর মেয়ে জান্নাতুন। দেড় বছর আগে একই উপজেলার মোহর গ্রামের সালাউদ্দিনের ছেলে রনির (২২) সঙ্গে তার বিবাহ হয়। চার মাস আগে একটি ছেলে সন্তানও হয় তাদের। গৃহবধূর নানি হানুফা জানান, জান্নাতুনের বাবা-মা জান্নাতুনকে ছোট রেখে মারা যায়। সেই থেকেই তিনি তাকে মানুষ করেন। দেড় বছর আগে ৩০ হাজার টাকা যৌতুক দিয়ে তার বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর থেকে আরও টাকার জন্য জান্নাতুনের ওপর নির্যাতন চালাতো তার স্বামী রনি। তিনি জানান, গরিব মানুষ হওয়ায় তাকে টাকা দেয়ার সামর্থ্য ছিল না আমাদের। তাই জান্নাতুনের উপর বিভিন্নভাবে নির্যাতন চালান হতো। জান্নাতুনের শরীরে ৭০ ভাগের বেশি পুড়ে গেছে। কথা বলতে পারছে না।

প্রকাশিত : ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

০৩/০২/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: