১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সাতক্ষীরায় আসতে পারে নতুন চমক


স্টাফ রিপোর্টার, সাতক্ষীরা ॥ সাতক্ষীরা পৌরসভার নির্বাচনে মেয়রপদে জেলা আওয়ামী লীগ থেকে কেন্দ্রে মনোনয়ন দিয়ে নাম পাঠানো হয় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলামের নাম। কিন্তু কেন্দ্র থেকে চূড়ান্ত মনোনয়নের তালিকায় নাম আসে পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহাদাত হোসেনের নাম। ফলে কিছুটা হলেও আওয়ামী লীগ সমর্থিত ভোটারদের মধ্যে দেখা দেয় দ্বিধাভক্ত। তবে শাহাদাত সমর্থক ও কর্মীরা মনে করেন নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করায় শাহাদাত হোসেনের ভোটব্যাংক অনেক বেশি। পাশাপাশি মাঠ চষে ফিরছেন জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শিল্প ও বণিক সমিতির সাবেক সভাপতি মেয়রপ্রার্থী শেখ আজাহার হোসেন। হোসেইন মুহম্মদ এরশাদের লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে মাঠে থাকা এই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা মনে করেন ব্যক্তি ইমেজে আজহার হোসেন লাঙ্গল দিয়ে অনেকটা জমি চষে ফেলেছেন। এখন বীজ বপন আর ফলনের অপেক্ষা। বিএনপির প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ নিয়ে মাঠে রয়েছেন জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তরুণ প্রার্থী তাসকিন আহমেদ চিশতি। বিএনপির ভোট ছাড়াও জামায়াত সমর্থকদের অনেক ভোট তিনি আশা করছেন। অপরদিকে ব্যবসায়ী মহলের পক্ষ থেকে নির্বাচনের মাঠে রয়েছেন সাবেক জেলা যুবদলের সেক্রেটারি বর্তমান সাতক্ষীরা শিল্প ও বণিক সমতির সভাপতি নাছিম ফারুক খান মিঠু। প্রচারণায় তিনিও মাঠ জমিয়ে রেখেছেন। সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনে এই চার প্রার্থীর নির্বাচণী ফলাফলে আসতে পারে নতুন চমক। বিশ্লেষকদের মতে, ভোটাররা এখন অনেক সচেতন। এ কারণে বদলে যেতে পারে ভোটের সমীকরণ।

আর মাত্র ১৩ দিন পর ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পৌর নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে সাতক্ষীরা পৌর এলাকায় জমে উঠেছে চার মেয়র প্রার্থীর প্রচার। শুরু করেছে নির্বাচনী পথসভা ও মতবিনিময়। দেয়ালে দেয়ালে সাঁটানো হয়েছে পোস্টার। শহরের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি মোড়ে নির্মাণ করা হয়েছে তোরণ। রয়েছে ব্যানারও। আর নির্বাচনের সঙ্গী ‘প্রতিশ্রুতি’ তো রয়েছেই। সাতক্ষীরা পৌরসভার ৭৯ হাজার ভোটারের মধ্যে এবার কে হবেন সেই সৌভাগ্যমান পৌর মেয়র সেটাই এখন আলোচিত হচ্ছে শহরের বিভিন্ন চায়ের স্টলে। ৩১.১০ বর্গকিলোমিটার আয়তন বিশিষ্ট ৯টি ওয়ার্ডে ৪০টি মহল্লা নিয়ে গঠিত সাতক্ষীরা পৌরসভায় বর্তমানে প্রায় ৭৯ হাজার ৬শ’ ৩৪ ভোটার রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ৩৯ হাজার এক শ’ দশ জন ও মহিলা ভোটার ৪০ হাজার পাঁচ শ’ ২৪ জন। এবার কাউন্সিলর পদে ৩৫ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। পৌরবাসী ও রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনে ভোটারদের পছন্দের তালিকায় প্রধান্য পাচ্ছে দলীয় পরিচয়ের পাশাপাশি ব্যক্তি ইমেজ। আর একারণে এবারের পৌর নির্বাচনে আসতে পারে নতুন চমকের পাশাপাশি নতুন সমীকরণ।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: