২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাংলাদেশে টুইটার, স্কাইপ, ইমো বন্ধ ?


বাংলাদেশে টুইটার, স্কাইপ, ইমো বন্ধ ?

অনলাইন ডেস্ক॥ বাংলাদেশে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটার এবং ইন্টারনেটে সহজে কথা বলার মাধ্যম স্কাইপ ও ইমো বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। একটি ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান বলছে তাদের কাছে বিটিআরসির এ ধরনের নির্দেশ সম্বলিত একটি চিঠি এসেছে।

ব্যবহারকারীরা বলছেন গত রাত থেকে এই তিনটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম বন্ধ পাচ্ছেন তারা।

সরকারি নির্দেশে টুইটার, স্কাইপ ও ইমো বন্ধ করা হয়েছে, নাকি কারিগরি কোন ত্রুটির কারণে বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে সে ব্যাপারে আসলে সরকারের তরফ থেকে নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি।

তবে বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম এ সংক্রান্ত খবর দিচ্ছে।

তারা বলছে সব মোবাইল ফোন অপারেটর ও ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে সরকারি প্রতিষ্ঠান বিটিআরসির পক্ষ থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে এই সেবাগুলো বন্ধ রাখার জন্য।

একটি ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান বলছে, এ ধরণের নির্দেশ তাদের কাছেও এসেছে।

এছাড়া ঢাকায় কয়েকজন ইউজার বা ব্যবহারকারী বলছেন রাত ১১টার পর তারা, অল্প খরচে দেশে ও দেশের বাইরে কথা বলা যায়, এই সেবা টি নিতে পারেননি। অর্থাৎ বন্ধ পেয়েছেন।

২২ দিন বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক খুলে দেয়া কয়েক দিন আগে।

ফেসবুক বন্ধের একি সময়ে বন্ধ করা হয় মোবাইল ফোনের অ্যাপ ফেইসবুক ম্যাসেঞ্জার, ভাইবার ও হোয়াটসঅ্যাপ।

তবে ফেসবুক খুলে দিলেও , ভাইবার ও হোয়াটসঅ্যাপ এখনো বন্ধ রয়েছে।

যুদ্ধাপরাধী সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও আলী আহসান মো. মুজাহিদের মৃত্যুদণ্ড পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ হওয়ার পর গত ১৮ নভেম্বর।

নিরাপত্তার স্বার্থেই যে এসব অ্যাপস বন্ধ রাখা হয়েছিল সেসময় সরকারের পক্ষ থেকে এমটাই বলা হয়।

সূত্র : বিবিসি বাংলা

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: