ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২২ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

খেলোয়াড়রা নিজের কাজে সৎ ছিল, ক্ষমা চাইলেন শান্ত

প্রকাশিত: ১৫:১৬, ২৫ জুন ২০২৪

খেলোয়াড়রা নিজের কাজে সৎ ছিল, ক্ষমা চাইলেন শান্ত

নাজমুল হাসান শান্ত

সুপার এইটে টানা দুই ম্যাচে বাজেভাবে হারের পরও সেমিফাইনালের ভালো সুযোগ ছিল বাংলাদেশের সামনে। নানা নাটকীয়তা আর সমীকরণের ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে হারের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ যাত্রা। 

সমীকরণ মিলিয়ে শেষ চার নিশ্চিতের লক্ষ্যে শুরুতে আশা দেখিয়েছিলেন টাইগার বোলাররা। ১১৫ রানেই রশিদ খানদের আটকে রাখে বাংলাদেশ। সেমিতে যেতে আফগানিস্তানের দেওয়া ১১৬ রানের লক্ষ্য ১২.১ ওভারের মধ্যে তাড়া করতে হতো নাজমুল হোসেন শান্তদের।

সেটা তো দূরের কথা, শেষ পর্যন্ত ম্যাচই জিততে পারেনি টিম টাইগার্স। বৃষ্টি আইনে ৮ রানের জয়ে প্রথমবারের মতো সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে আফগানিস্তান। বাংলাদেশের হারে বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়ারও।

সমর্থকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারায় ক্ষমা চেয়েছেন শান্ত। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে টাইগার এই অধিনায়ক বলেন, ‘বিশ্বকাপের পুরো যাত্রা সম্পর্কে বলব, আমরা দল হিসেবে বাংলাদেশের সব সমর্থককে হতাশ করেছি। যারা আমাদের খেলা অনুসরণ করেন, সবসময় অনুসরণ করেন তাদের লেট ডাউন করেছি। আমি দলের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাইছি (টিমের পক্ষ থেকে এপোলোজাইজ)।’

বিশ্বকাপের এবারের আসরে ব্যাট হাতে রঙ ছড়াতে পারেননি ব্যাটাররা। সামনে ভালো করার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ব্যাটিং গ্রুপ হিসেবে দেশের মানুষকে ভালো কিছু দিতে পারিনি। এটার জন্য আমরা সরি (উই ফিল সরি)। সামনের দিকে আমাদের এটাই চেষ্টা থাকবে, কীভাবে এখান থেকে বের হয়ে আসতে পারি।’

বিশ্বকাপের ভালো দিক নিয়ে শান্ত বলেন, ‘ইতিবাচক দিক অবশ্যই বোলাররা খুবই ভালো বোলিং করেছে। রিশাদ এরকম একটা টুর্নামেন্টে এসে সবগুলা ম্যাচে ভালো বোলিং করেছে। বেশ কিছু ইতিবাচক দিকও ছিল। তবে ব্যাটিং দিক থেকে আমরা সমর্থকদের হতাশ করেছি। দেশের মানুষকে আমরা বলতে গেলে কষ্ট দিয়েছি। তবে এটাও আমি বলতে চাই, চেষ্টার কমতি ছিল না। শতভাগ দিয়ে সবাই চেষ্টা করেছে। সবাই নিজের কাজে সৎ ছিল। তবে আমরা দিন শেষে পারিনি। তাই এটার জন্য দলের পক্ষ থেকে সরি।’

এবি 

×