ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

তিউনিসিয়ার বিপক্ষে ১-০ গোলে জয়

এক যুগ পর বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:২৫, ২৭ নভেম্বর ২০২২

এক যুগ পর বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার জয়

অস্ট্রেলিয়ার জয়ের নায়ক মিচেল ডিউক (বাঁয়ে)

অবশেষে বিশ্বকাপে জয়ের দেখা পেল অস্ট্রেলিয়া। শনিবার কাতার বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ম্যাচে তারা ১-০ গোলে হারিয়েছে তিউনিসিয়াকে। আর তাতেই বিশ্বমঞ্চে টানা ৭ ম্যাচে জয়ের বঞ্চনা থেকে বেরিয়ে এলো সকারুজরা। এর আগে ২০১০ বিশ্বকাপে সর্বশেষ জয়ের স্বাদ পেয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। সেবার সার্বিয়াকে হারিয়ে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল তারা। দীর্ঘ এক যুগ পর শনিবার তিউনিসিয়াকে হারিয়ে যেন প্রায় ভুলে যাওয়া সেই জয়ের স্বাদ পেল অস্ট্রেলিয়া। সেইসঙ্গে ‘ডি’ গ্রুপের পয়েন্ট টেবিলের দুই নম্বরে উঠে এসেছে তারা।

অস্ট্রেলিয়ার জয়ের নায়ক মিচেল ডিউক। তার অসাধারণ হেডের সৌজন্যেই যে গোল করে জয় নিশ্চিত করে সকারুজরা। শুধু তাই নয়? এই জয়ে এখন বিশ্বকাপে টিকেও রয়েছে তারা। এবার নিয়ে বিশ্বকাপে ছয়বার প্রতিনিধিত্ব করছে অস্ট্রেলিয়া। ১৯৭৪ সালে প্রথমবার বিশ্বমঞ্চে খেলার সুযোগ পাওয়া সকারুজদের সেরা সাফল্য আসে ২০০৬ সালে। সেবারই প্রথম এবং শেষবারের মতো বিশ্বকাপের শেষ ষোলোর টিকিট কেটেছিল অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে তিউনিসিয়া নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই জয়বঞ্চিত।

প্রথম ম্যাচে ডেনমার্কের সঙ্গে গোলশূন্য ব্যবধানে ড্র করার ফলে ১ পয়েন্ট পেলেও টেবিলের চার নম্বরে অবস্থান করছে তারা। শেষ ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ ফ্রান্স। বুধবার এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের মুখোমুখি হবে তারা। সেই ম্যাচেও নিঃসন্দেহে ফেভারিট জিরুড-এমবাপেরা। এর ফলে কার্যত বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে তিউনিসিয়ার।
কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই ফ্রান্সের কাছে বড় ব্যবধানের হার দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। সেই ধাক্কা সামলিয়েই শনিবার আল জানুব স্টেডিয়ামে তিউনিসিয়ার মুখোমুখি হয় সকারুজরা। তবে শুরু থেকেই ভুল পাসে খেলতে থাকেন দুই দলের ফুটবলাররা। এর মধ্যে ১৯ মিনিটের এক পাল্টা আক্রমণে গোলের সুযোগ তৈরি করে তিউনিসিয়া। কিন্তু সুযোগটি কাজে লাগতে পারেননি ইউসেফ এমসাকনি।

প্রতিপক্ষ সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে না পারলেও ২৩ মিনিটে ঠিকই কাজে লাগিয়ে দেয় অস্ট্রেলিয়া। বাম প্রান্ত থেকে ক্রেইগ গুডউইনের দুর্দান্ত ক্রসটিতে মাথা ছুঁইয়ে অস্ট্রেলিয়াকে লিড এনে দেন মিচেল ডিউক। অসাধারণ গতির এই গোলটি থামানোর কোনো সুযোগই পাননি তিউনিসিয়ার গোলরক্ষক আইমেন দাহমেন। বিরতিতে ওয়ার আগে ৪৪ মিনিটে আরও একটি সুযোগ তৈরি করেছিলেন গুডউইন ও ডিউক জুটি।

কিন্তু এবার প্রথম গোলের নায়ক ডিউকের নেওয়া বাঁকানো শটটিতে ঠিকমতো মাথা লাগাতে পারেননি গুডউইন। ফলে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় অস্ট্রেলিয়া। ফলে একযুগ পর বিশ্বকাপের মঞ্চ থেকে প্রথম জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অস্ট্রেলিয়া।

monarchmart
monarchmart