ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

সৌদিকে হারিয়ে রেসে থাকল পোল্যান্ড

শাকিল আহমেদ মিরাজ

প্রকাশিত: ২৩:৩৬, ২৬ নভেম্বর ২০২২

সৌদিকে হারিয়ে রেসে থাকল পোল্যান্ড

বিশ্বকাপে গোল করে পোল্যান্ডের রবার্ট লেভানডোস্কির

কাতার বিশ্বকাপে সৌদি আরবের শুরুটা ছিল চমক জাগানো। লিওনেল মেসিদের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয়ে কেবল পরাশক্তি আর্জেন্টিনাকে নয়, ফুটবল বিশ্বকেই চমকে দেয় হার্ভে রেনার্ডের শিষ্যরা। যেটিকে বলা হচ্ছে বিশ্বকাপ ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অঘটন। পোল্যান্ড ম্যাচে তাই মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির ওপর ছিল বিষে দৃষ্টি। কিন্তু এবার আর পেরে উঠল না তারা। সৌদিকে ২-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপ-সি থেকে শেষ ষোলোর রেসে টিকে থাকল নিজেদের প্রথম ম্যাচে মেক্সিকোর সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করা পোলিশরা।

দোহার এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে সালমান আল-ফারাজদের শুরুটা ছিল বেশ চনমনে, আত্মবিশ্বাসী। কিন্তু প্রথমার্ধের ৩৯ মিনিটে এগিয়ে যায় পোল্যান্ড। ডান দিক থেকে সতীর্থের পাস বক্সে পান অধিনায়ক রবার্ট লেভানডোস্কি। তবে গোলরক্ষক এগিয়ে আসায় শট নিতে পারেননি তিনি। বাইলাইনের কাছাকাছি থেকে বার্সিলোনা ফরোয়ার্ডের কাটব্যাকে জোরাল শটে বল জালে পাঠান মিডফিল্ডার পিওতর জেলিনস্কি। ৮২ মিনিটে দ্বিতীয় গোলটি করেন লেভানডোস্কি। পোল্যান্ডের বড় তারকা ও দেশটির ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলের মালিক এই  স্ট্রাইকারের বিশ্বকাপে প্রথম গোল এটি।
ফুটবল যে গোলের খেলা ম্যাচে সেটিই প্রমাণ করেছে পোল্যান্ড। শুরুতে প্রায় ৭০ শতাংশ এবং সর্বোপরি ৬৩ শতাংশ বল দখলে রেখে, পেনাল্টি পেয়ে, ৫ টি অন টার্গেট শট করেও গোলের দেখা পায়নি সৌদি আরব। উল্টো আল ফারাজদের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন লেভনডোস্কি। সৌদির রক্ষণভাগের খেলোয়াড়ের ভুলে ম্যাচের ৮২ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ হয় পোল্যান্ডের। এ সময় বক্সের সামনে রক্ষণভাগের খেলোয়াড়ের পা ফসকে চলে আসা বলের নিয়ন্ত্রণ নেন লেভানডোস্কি। সৌদির গোলরক্ষক কিছুটা এগিয়ে আসেন।

ঠাণ্ডা মাথায় তাকে পরাস্ত করে বল জালে জড়ান বার্সেলোনার এই ফরোয়ার্ড। বিশ্বকাপের মঞ্চে তার প্রথম গোল আর বিশ্বকাপের ইতিহাসে ২৬০০তম গোল। ২০০৮ সালে আন্তর্জাতিক ফুটবলে অভিষেক হয় লেভানডোস্কিার। তবে প্রথম বিশ্বকাপ খেলতে তাকে অপেক্ষা করতে হয় ২০১৮ আসর পর্যন্ত। কারণ ২০১০ ও ২০১৪ বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি পোল্যান্ড। রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত গত বিশ্বকাপে (২০১৮) অবশ্য আলো ছড়াতে পারেননি। জালের দেখা পাননি একবারও।

গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেওয়া পোল্যান্ড গোল করেছিল মোটে দুটি। এবার অবশ্য সবখানেই দারুণ ছন্দে ছিলেন লেভানদোভস্কি। কাতার বিশ্বকাপে এবার মেক্সিকোর বিপক্ষে দলের প্রথম ম্যাচেই সুযোগ এসেছিল বিশ্বকাপে প্রথম গোলের দেখা পাওয়ার। পেনাল্টি পেয়েও লক্ষ্যভেদ করতে অবশ্য ব্যর্থ হন। অথচ তিনি তার দেশের পক্ষে রেকর্ড সর্বোচ্চ ৭৬ গোলের মালিক। অবশেষে বিশ্বকাপে কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পেলেন বার্সিলোনা ফরোয়ার্ড।
ম্যাচের শুরু থেকেই দাপট দেখাতে থাকে সৌদি আরব। পোল্যান্ডের রক্ষণে কয়েকটি আক্রমণ চালায় তারা। ম্যাচের ১৩ মিন্টে ডান দিক থেকে কাট ব্যাক থেকে মোহাম্মদ কান্নোর শট করেন। কিন্তু পোল্যান্ড গোলরক্ষক সেজেসনি তা কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন। ম্যাচের ১৬ মিনিটে ফাউল করার কারণে হলুদ কার্ড দেখেন ম্যাটি ক্যাশ। ডান দিক থেকে ফ্রি কিক পায় সৌদি আরব। তবে ফ্রি কিক থেকে সুবিধা করতে পারেনি তারা।

ম্যাচের ১৯ মিনিটে আল-মালকিকে ফাউল করার কারণে হলুদ কার্ড দেখেন পোল্যান্ডের মিলিক। এরপর একের পর এক আক্রমণ চালাতে থাকে সৌসি আরব। ম্যাচের ২৫ মিনিটে কর্নার পায় পোল্যান্ড। ম্যাচের ৩২ মিনিটে গুছিয়ে আক্রমণে যায় সৌদি আরব। ডান দিক থেকে বাড়ানো বলে মাথা ছোঁয়াতে ব্যর্থ হয় শেহরি। ম্যাচের ৩৯ মিনিটে গোলের দেখা পায় পোল্যান্ড। ডি বক্সের ভেতর লেভানদোস্কির পাস থেকে বল জালে জড়িয়ে পোল্যান্ডকে লিড এনে দেন জেলিনস্কি।
৪৩ মিনিটে পেনাল্টি পায় সৌদি। কিন্তু পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন সালেম আল দাওসারি। তার নেওয়া শট ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে রুখে দেন সেজেসনি। তার ফিরিয়ে দেওয়া বল সামনে পান মোহাম্মদ আল-বুরাইক। তিনি শট নেন। দারুণ দক্ষতায় তার নেওয়া শট কর্নারের বিনিময়ে রুখে দেন পোল্যান্ডের গোলরক্ষক। দ্বিতীয়ার্ধে বল দখলে রাখলেও কাজের কাজটাই করতে পারেনি সৌদি। উল্টো পাল্টা আক্রমণে একাধিকবার তাদের কাঁপিয়ে দিয়েছিল পোলিশরা।

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart