ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯

সান সিরোতে আর্সেনালকে স্বাগত জানাবে আজ এসি মিলান, ব্রিটিশ গণমাধ্যমে কোচ ওয়েঙ্গারের বরখাস্তের গুঞ্জন

কী আছে ওয়েঙ্গারের কপালে?

প্রকাশিত: ০৫:৩৫, ৮ মার্চ ২০১৮

 কী আছে ওয়েঙ্গারের কপালে?

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘ দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে কোচ হিসেবে আর্সেনালের প্রতিনিধিত্ব করছেন আর্সেন ওয়েঙ্গার। এই সময়ে ফরাসী কোচের সাফল্যের গ্রাফটা খুব উর্ধমুখী ছিল তা বলা যাবে না, কিন্তু তারপরও ওয়েঙ্গারের ওপর আস্থা রেখেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের অন্যতম সফল ক্লাব আর্সেনাল। দীর্ঘ ২২ বছরের ক্যারিয়ারে গানারদের লীগ শিরোপা উপহার দিয়েছেন মাত্র তিনবার। সর্বশেষ ২০০৩-০৪ মৌসুমে তার অধীনে প্রিমিয়ার লীগের চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্সেনাল। এরপর কেটে গেছে প্রায় দেড় দশক। এই সময়টাতে কখনই ক্লাবকে লীগ শিরোপা উপহার দিতে পারেননি তিনি। তবে এবার অতীতের ধারাবাহিক ব্যর্থতার বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসার জন্য দলটাকে নতুন করে ঢেলে সাজিয়েছিল আর্সেনাল। ফাইনালে উঠে লীগ কাপ জয়ের সম্ভাবনাও তৈরি করেছিল গানাররা। কিন্তু শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে হেরে যায় তারা। ভক্ত-অনুরাগীদের প্রত্যাশা ছিল শীর্ষ চারে থেকে মৌসুম শেষ করবে গানাররা। কিন্তু সেই স্বপ্নটাও এখন ফিকে হয়ে গেছে তাদের। কেননা প্রিমিয়ার লীগে সর্বশেষ গত রবিবার তুলানমূলক খর্বশক্তির দল ব্রাইটনের কাছেও হেরে যায় আর্সেন ওয়েঙ্গারের শিষ্যরা। ১৯৮২ সালের পর এই প্রথম আর্সেনালকে হারাল ব্রাইটন। ২০১৮ সালে এখন পর্যন্ত ১৪ ম্যাচ খেলা ওয়েঙ্গারের দল তার ৮ ম্যাচেই লজ্জাজনকভাবে হেরেছে। তিন যুগ পর ব্রাইটনের কাছে হারায় লীগ টেবিলের চার নাম্বারে থাকা টটেনহ্যাম হটস্পারের চেয়েও এই মুহূর্তে ১৩ পয়েন্ট পিছিয়ে আর্সেনাল। এই হারের ধাক্কা কী সামলে উঠতে পারবেন ক্লাবটির অভিজ্ঞ কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গার? ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলোতে তার বরখাস্তের খবর এখন হট ইস্যু। তবে কোচের পদকে আঁকড়ে রাখার জন্য ওয়েঙ্গারের সামনে এখনও সুযোগ আছে। আর সেটা হলো ইউরোপা লীগে গানারদের চ্যাম্পিয়নের মুকুট পরানো। ইউরোপ সেরার এই দ্বিতীয় টুর্নামেন্টের শিরোপা জিততে পারলেই আগামী মৌসুমে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার সুযোগ পাবে ওয়েঙ্গারের দল। পারবে কী আর্সেনাল? সেই পথে বড় পরীক্ষাটা আজই হয়ে যাবে ইংলিশ জায়ান্টদের। কেননা, ইউরোপা লীগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে যে এসি মিলানের মুখোমুখি হবে তারা। ম্যাচটা হবে সান সিরোতে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে টানা চার ম্যাচে হারা আর্সেনাল আজ প্রতিপক্ষের মাঠে কেমন খেলবে? ভক্ত-অনুরাগীদেরও অপেক্ষা এখন সেটাই দেখার। এদিকে আর্সেনাল যখন প্রিমিয়ার লীগের শীর্ষ চারে থাকা নিয়ে সংশয়ে তখন শিরোপা জয়ের খুব দ্বারপ্রান্তে ম্যানচেস্টার সিটি। সর্বশেষ চেলসিকেও পরাজিত করে লীগ শিরোপা উঁচিয়ে ধরার স্বপ্নটাকে আরও কাছাকাছি নিয়ে এসেছেন পেপ গার্ডিওলা। সাবেক বার্সিলোনা ও বেয়ার্ন মিউনিখের সফল কোচ গার্ডিওলার ম্যানচেস্টার সিটির কাছে এক সপ্তাহের মধ্যেই দুইবার হেরেছে আর্সেনাল। প্রথমবার হারের পর সাংবাদিকরা ওয়েঙ্গারকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, গার্ডিওলা কি ইংলিশ ফুটবলে কোচদের জন্য নতুন মান নির্ধারণ করে দিয়েছেন? ফরাসী কোচের উত্তর ছিল, ‘না তা নয়, কারণ গার্ডিওলা বার্সিলোনা ছাড়ার পরও তারা একইরকম ভাল খেলছে। ইউরোপের কিছু ক্লাব এখন প্রচুর পয়সা দিয়ে ভাল ভাল ফুটবলার কিনে সাফল্য পাচ্ছে, কোচ সেখানে খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ নন।’ পয়সা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ, নামী ফুটবলার কেনা যায়। কিন্তু শুধু নামী বা ভাল হলেই হবে না, দলের জন্য উপযুক্ত ফুটবলার আনতে হবে। একজন ভাল কোচের দক্ষতা সেখানে। কোচ ফুটবল খেলা শেখান না। তিনি একজন খেলোয়ড়ের দক্ষতা বের করে আনতে সাহায্য করেন। তিনি জেতার জন্য মনোবল তৈরি করেন, উদ্বুদ্ধ করেন। উদাহরণ হিসেবে মি বোস ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের ২০১৬ মৌসুমে লিচেস্টার সিটি ক্লাবের শিরোপা জেতার কথা উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘যেবার লিচেস্টার প্রিমিয়ার লীগ জিতলো, সেবার তেমন কোন বিখ্যাত খেলোয়াড় তাদের ছিল না, কিন্তু কোচ রানিয়েরি তাদের শিরোপা জিততে উদ্বুদ্ধ করতে পেরেছিলেন।’