ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

হেরেও দ্বিতীয় পর্বে পোল্যান্ড, সৌদিকে হারিয়েও কপাল পুড়ল মেক্সিকোর

দাপুটে জয়ে শেষ ষোলোতে আর্জেন্টিনা

রুমেল খান

প্রকাশিত: ০৩:৫১, ১ ডিসেম্বর ২০২২

দাপুটে জয়ে শেষ  ষোলোতে আর্জেন্টিনা

পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনার দ্বিতীয় গোলদাতা আলভারেজ (বাঁয়ে) ও ফার্নান্দেজের উল্লাস

ফুটবলের জাদুকর লিওনেল মেসি মিস করেছেন পেনাল্টি। কিন্তু তারপরও সব শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে দাপটের সঙ্গেই দ্বিতীয় রাউন্ডে নাম লিখিয়েছে দু’বারের বিশ্বকাপ শিরোপাধারী আর্জেন্টিনা। চলমান কাতার বিশ্বকাপে বৃহস্পতিবার তাদের যেন সত্যিই ‘বৃহস্পতি তুঙ্গে’ ছিল। দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ অনুষ্ঠিত সি-গ্রুপের ম্যাচে আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে হারায় পোল্যান্ডকে। এই জয়ে সি-গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হলো তৃতীয় র‌্যাংকিংধারী আর্জেন্টিনা।

দ্বিতীয় রাউন্ডে তারা আগামী ৩ ডিসেম্বর মুখোমুখি হবে ডি-গ্রুপের রানার্সআপ অস্ট্রেলিয়ার। এদিকে একই সময়ে অনুষ্ঠিত হওয়া একই গ্রুপের অপর ম্যাচে মেক্সিকো ২-১ গোলে হারায় এশিয়ার দেশ সৌদি আরবকে (বিজয়ী দলের হেনরি মার্টিন ৪৭ মিনিটে, লুইস চাভেজ ৫২ মিনিটে; বিজিত দলের সালিম আল দাওসারি ৯০+৫ মিনিটে ১টি করে গোল করেন)। খেলাটি অনুষ্ঠিত হয় লুসাইলের লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে।
এই জয়েও সি-গ্রুপের রানার্সআপ হতে পারেনি লাতিন আমেরিকার দেশ মেক্সিকো। কেননা পোল্যান্ডের মতো সমান ৪ পয়েন্ট হলেও গোলগড়ে তাদের পেছনে ফেলতে পারেনি মেক্সিকো। তাই তাদের কপাল পুড়ল। আর হেরেও গোলগড়ে (পোল্যান্ড ০, মেক্সিকো-১) গ্রুপ রানার্সআপ হয় পোল্যান্ড।  ৪ ডিসেম্বর শেষ  ষোলোতে পোল্যান্ডের প্রতিপক্ষ বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স।  
৪০ বছর আগে ১৯৮২ আসরে সর্বশেষ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল মেক্সিকো। এ পর্যন্ত সৌদি আরব মেক্সিকোর মুখোমুখি হলো ৬ ম্যাচে। ৫-০ ব্যবধানে জিতে এগিয়ে মেক্সিকো। সর্বশেষ ১৯৯৯ সালে খেলা ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছিল।   
২৬ র‌্যাংকিংধারী এবং ‘দ্য ঈগলস্’ খ্যাত পোল্যান্ড এই ম্যাচে আর্জেন্টিনার সঙ্গে কমপক্সে ড্র করলেই শেষ ১৬ তে চলে যেতে পারতো। হেরে গিয়ে বাদ পড়ার শঙ্কায় ছিল তারা। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে মেক্সিকো জিতেও বেশি গোল করতে না পারায় কপাল খুলে যায় লেভানডোস্কিদের।
বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ১২ ম্যাচে মুখোমুখি হলো আর্জেন্টিনা ও পোল্যান্ড। এগিয়ে অবশ্য আর্জেন্টিনাই (৭-৩)। বাকি ২টি ম্যাচ ড্র হয়। বিশ্বকাপে অবশ্য দু’বারের সাক্ষাতে দু’দলই একটি করে ম্যাচ জিতেছিল। বৃহস্পতিবার আর্জেন্টিনা জিতে এগিয়ে গেল ২-১ ব্যবধানে। বিশ্বমঞ্চে এবার উভয় দলের লড়াইটা হলো দীর্ঘ ৪৪ বছর পর।
আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে ইউরোপিয়ান কোন দেশকে হারিয়েছিল ২০১৪ আসরে। সেবার তারা সেমিতে হল্যান্ডকে টাইব্রেকারে ৪-২ (০-০) গোলে হারিয়েছিল। ২০১৮ আসরে গ্রুপপর্বে আইসল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে, ক্রোয়েশিয়ার কাছে ০-৩ গোলে হেরে যায় এবং দ্বিতীয় রাউন্ডে ৩-৪ গোলে হেরে যায় ফ্রান্সের কাছে। এবার পোল্যান্ডকে হারিয়ে অবশেষে ‘ইউরোপ-কুফা’ কাটিয়ে উঠলো তারা!
বৃহস্পতিবারের ম্যাচে পোল্যান্ড ৪-৪-২, আর্জেন্টিনা ৪-৩-৩ ফর্মেশনে খেলা শুরু করে। আর্জেন্টিনা বেশি আক্রমণাতœক ছিল। পোল্যান্ড খেলে প্রতি আক্রমণে। বল পজিশনে ও আক্রমণে ‘লা আলবিসেলেস্তে’রাই এগিয়েছিল।
ম্যাচের ৩৮ মিনিটে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। জুলিয়ান আলভারেজের উড়ন্ত ক্রস বক্সের ভেতরে লাফিয়ে ওঠে হেড করতে যান মেসি। কিন্তু গোলরক্ষক ওজিনে সিজিসনি বল পাঞ্চ করতে গেলে তার হাতের ধাক্কা মেসির কপালে লাগলে মাটিতে পড়ে যান মেসি। আর্জেন্টিনার পেনাল্টির দাবি জানায়। রেফারি রিপ্লে দেখে পেনাল্টির নির্দেশ দিলে উল্লাসে ফেটে পড়ে আর্জেন্টিনা শিবির। কিন্তু সেই উল্লাস হাহাকারে পরিণত হয়, যখন মেসির পেনাল্টি শট ঝাঁপিয়ে পড়ে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন সিজিসনি। ২০১৮ আসরের গ্রুপ পর্বে আইসল্যান্ডের বিপক্ষেও পেনাল্টি মিস করেছিলেন মেসি।
তবে পেনাল্টি মিসের শোককে শক্তিতে পরিণত করে বিরতির পর আরও উজ্জীবিত হয়ে খেলতে থাকেন মেসিরা। ৪৬ মিনিটেই কাক্সিক্ষত গোলের সন্ধান পেয়ে যায় তারা। ডিফেন্ডার নাহুয়েল মোলিনার কাছ থেকে ক্রস পেয়ে বক্সের ভেতরে চমৎকার বা পায়ের গড়ানো-কৌনিক শটে লক্ষ্যভেদ করেন এবং সতীর্থদের সঙ্গে উল্লাসে মেতে ওঠেন মিডফিল্ডার ম্যাক এলিস্টার (১-০)।
৬৭ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে আর্জেন্টিনা। বক্সের ভেতরে ঢুকে দুই পোলিশ ডিফেন্ডারের মাঝখান দিয়ে ডান পায়ে চমৎকার জোরালো শটে পোলিশ গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ফরোয়ার্ড জুলিয়ান আলভারেজ। (২-০)।

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart