ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

প্রতিপক্ষ সুইজারল্যান্ড

নেইমারকে ছাড়া মাঠে নামছে ব্রাজিল

জাহিদুল আলম জয়

প্রকাশিত: ০০:৪৮, ২৮ নভেম্বর ২০২২; আপডেট: ০২:১৪, ২৮ নভেম্বর ২০২২

নেইমারকে  ছাড়া  মাঠে  নামছে  ব্রাজিল

অনুশীলনে নিজেদের মধ্যে পরামর্শ করছেন ব্রাজিলের ফুটবলাররা

তরুণ তারকা রিচার্লিসনের জাদুতে সার্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে ফেভারিটের মতোই বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছে ব্রাজিল। কিন্তু গত ২৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ম্যাচে বড় ধাক্কাও খেয়েছে সেলেসাওরা। ওই ম্যাচে দলের প্রাণভোমরা নেইমারকে রেকর্ড নয়বার ফাউল করেন সার্ব ফুটবলাররা। যে কারণে চোট পেয়ে মাঠের বাইরে ছিটকে গেছেন সেলেসাওদের সেরা তারকা। গ্রুপপর্বের শেষ দুই ম্যাচে পিএসজি তারকাকে ছাড়াই খেলতে হবে রেকর্ড সর্বোচ্চ পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। এমন অবস্থায় আজ রাতে ‘জি’ গ্রুপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে শিরোপাপ্রত্যাশী ব্রাজিল। কাতারের রাজধানী দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪ এ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১০টায়।
নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই জয় পেয়েছে ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ড। সুইসরা ১-০ ব্যবধানে আফ্রিকার অদম্য সিংহ ক্যামেরুনকে আর সেলেসাওরা হারিয়েছে সার্বিয়াকে। দুই দলের ভা-ারেই জমা পড়েছে ৩ পয়েন্ট করে। এই ম্যাচে যে দল জিতবে, তাদেরই নকআউট রাউন্ড অর্থাৎ শেষ ষোলো নিশ্চিত হয়ে যাবে। দুই দল এ লক্ষ্যেই খেলবে বলে জানা গেছে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, চোট থাকলেও এ ম্যাচে নেইমারকে স্কোয়াডে রাখবে ব্রাজিল। বাইরে রাখলে সাধারণ দর্শক হিসেবে গ্যালারিতে বসে ম্যাচ  দেখতে হবে তারকা এই ফরোয়ার্ডকে। কিন্তু নেইমারকে রাখা হবে স্কোয়াডের সঙ্গে, বদলি খেলোয়াড়দের বেঞ্চে! অর্থাৎ নেইমার অফিসিয়ালি ওই ম্যাচের খেলোয়াড় হিসেবেই স্কোয়াডে থাকবেন বলে শোনা যাচ্ছে। সুইসদের বিরুদ্ধে মাঠে না নামলেও ক্যামেরুনের সঙ্গে নিজেদের শেষ গ্রুপ ম্যাচে নেইমারকে কিছু সময়ের জন্য খেলানো হতে পারে গুঞ্জন আছে। ব্রাজিল কোচ তিতে আশাবাদী, পূর্ণ সুস্থই হয়েই নেইমার আবার মাঠে ফিরবেন।
সুইসদের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে পরিসংখ্যান ভালোভাবেই চোখ রাঙাচ্ছে ব্রাজিলকে। বর্তমানে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের ১৫ নম্বরে থাকা দলটির বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে জয়ের রেকর্ড নেই র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দলটির। আজকের ম্যাচের আগে সুইসদের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে দুইবার খেলেছে সেলেসাওরা। দুটি ম্যাচই ড্র হয়েছে। ১৯৫০ বিশ্বকাপে ২৮ জুন অনুষ্ঠিত ম্যাচটি অমীমাংসিত থেকেছিল ২-২ গোলে। আর সবশেষ ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের লড়াই শেষ হয় ১-১ গোলে। দুই দলের মধ্যে সবশেষ জয়ের স্মৃতিও সুইসদের। ২০১৩ সালের ১৪ আগস্ট আন্তর্জাতিক প্রীতিম্যাচে ১-০ গোলে ব্রাজিলকে হারিয়েছিল সুইজারল্যান্ড। সাম্বা ছন্দের দেশ সবশেষ সুইসদের হারিয়েছে সেই ২০০৬ সালের ১৫ নভেম্বর। ওই প্রীতিম্যাচ জিততেও ঘাম ঝরেছিল ফুটবলপাগল দেশটির।

জয়ের ব্যবধান ছিল ২-১ গোল। তবে সব মিলিয়ে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে আছে ব্রাজিল। এখন পর্যন্ত সুইসদের বিরুদ্ধে ৯টি ম্যাচ খেলেছে জাগো বনিতোরা। এর মধ্যে তিনটিতে জয় ব্রাজিলের, দুটি জিতেছে সুইসরা। আর বাকি চারটি ম্যাচ ড্র হয়।  বিশ^কাপের শুরুতেই কোচ তিতেসহ পুরো দলই ইঙ্গিত দিয়েছিল, ব্রাজিল এখন আর শুধুমাত্র নেইমারনির্ভর নয়। এ প্রমাণ তারা প্রথম ম্যাচেই রেখেছে। সুইসদের বিরুদ্ধে আরেকবার এ প্রমাণ রাখার পালা। কেননা, ম্যাচটি নেইমারকে ছাড়াই খেলতে হবে পেলের দেশকে। শুধু নেইমার নয়, ইনজুরিতে খেলতে পারছেন না ডিফেন্ডার ডানিলো। জানা গেছে, এ দুজনের পরিবর্তে ব্রাজিলের একাদশে খেলার দৌড়ে এগিয়ে আছেন দুই রিয়াল মাদ্রিদ তারকা ফরোয়ার্ড রডরিগো ও ডিফেন্ডার এডার মিলিটাও। ব্রাজিলের প্রথম ম্যাচের প্রতিপক্ষ সার্বিয়াকে ডার্ক হর্স হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছিল। কিন্তু সেলেসাওরা তাদের আধিপত্য দিয়েই সার্বদের উড়িয়ে দিয়েছে। দ্বিতীয়ার্ধে রিচারলিসেনর জোড়া গোলে দারুণ শুরু করেছে জাগো বনিতোরা। বিশ^কাপের শুরুতে ব্রাজিলিয়ান ও ব্রিটিশ গণমাধ্যমে রিচার্লিসনকে মূল একাদশে খেলানো নিয়ে যে সমালোচনা হয়েছিল, তার দাঁতভাঙা জবাব দিয়েছেন ২৫ বছর বয়সী টটেনহ্যাম হটস্পার তারকা। অন্যদিকে, সুইজারল্যান্ড তাদের প্রথম ম্যাচে ক্যামেরুনের বিরদ্ধে নিজেদের প্রমাণ করেছে। গোলরক্ষক ইয়ান সোমারকে খুব বেশি পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি আফ্রিকার অদম্য সিংহরা। নতুন কোচ মুরাট ইয়াকিন সেই একই কৌশলে সুইসদের এগিয়ে নিয়ে গেছেন। ওই জয়ে ইয়াকিন সন্তুষ্ট হতেই পারেন। কেননা, তার দল কোনো গোল হজম করেনি। শেষ দশ ম্যাচে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার সুইজারল্যান্ড কোনো গোল হজম না করে খেলা শেষ করেছে। সেই ম্যাচগুলোর বেশিরভাগই উয়েফা নেশন্স লিগে শীর্ষ দলগুলোর বিরুদ্ধে ছিল।
২০২০ ইউরো বাছাইপর্বে শেষ ছয়টি ম্যাচ সুইসরা মাত্র এক গোল হজম করেছিল। ওই সময়ই ইয়াকিন দলের দায়িত্ব নেন। ক্যামেরুনকে হারিয়ে টানা চার ম্যাচে তারা অপরাজিত আছে। এর মধ্যে দুই মহাদেশের পরাশক্তি স্পেন ও পর্তুগালকেও হারিয়েছে। ব্রাজিলের বিরুদ্ধে জয়ের সংখ্যাটা তারা পাঁচ করতে পারলেই নকআউট রাউন্ড নিশ্চিত হয়ে যাবে। এ সব পরিসংখ্যানই জানান দিচ্ছে, সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচটি সহজ হবে না ব্রাজিলের জন্য। বিশেষ করে নেইমারকে ছাড়া সুইসদের জমাট রক্ষণভাগ ভেদ করার বিরাট চ্যালেঞ্জ রিচার্লিসন, ভিনিসিয়াস, রফিনহাদের।

 

 

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart