ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

খাগড়াছড়িতে সংবর্ধিত মনিকা-মগিনীরা

পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি, খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ০০:২৮, ১ অক্টোবর ২০২২

খাগড়াছড়িতে সংবর্ধিত মনিকা-মগিনীরা

শুক্রবার খাগড়াছড়িতে পৌঁছানোর পর মনিকা, আনাই, আনুচিং, তৃষ্ণা চাকমাকে ফুলেল শুভেচ্ছার

সাফজয়ী খাগড়াছড়ির তিন নারী ফুটবলার ও এক সহকারী কোচকে সংবর্ধনা দিয়েছে খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থা। শুক্রবার সকালে নিজ জেলা খাগড়াছড়িতে পৌঁছানোর পর মনিকা চাকমা, আনাই মগিনী, আনুচিং মগিনী এবং নারী ফুটবল দলের সহকারী কোচ তৃষ্ণা চাকমাকে ফুল দিয়ে বরণ করা হয়। পরে নারী তারকা ফুটবলদের ছাদ খোলা জীপে করে শোভাযাত্রা করা হয়। এ সময় শত শত মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় নেয়।
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সংবর্ধনা ও পুরস্কারসহ নগদ অর্থ প্রাপ্তি জোয়ারে ভাসতে ভাসতে অবশেষে হিমালয় জয় করে সাফ চ্যাম্পিয়ন হওয়া তিন কৃতী ফুটবলার আনাই, আনুচিং, মনিকা ও কোচ  তৃষ্ণা চাকমা নিজ জেলা খাগড়াছড়িতে হাজারো মানুষের ভালবাসায় সিক্ত হলেন।

বাংলাদেশ দলের গর্বিত ফুটবলার ও খাগড়াছড়ির অহংকার এই চার ফুটবল তারকা শুক্রবার সকালে খাগড়াছড়ি এসে পৌঁছলে খাগড়াছড়ি-রাঙ্গামাটি সড়কের ঠাকুরছড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তাদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা, ক্রীড়া সংস্থা পরিবারের সদস্যরা। এরপর তাদের সুসজ্জিত একটি ছাদ খোলা গাড়িতে করে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় পুরো শহর প্রদক্ষিণ করানো হয়।

এ সময় ব্যান্ড দলের বাদ্যের তালে তালে জাতীয় পতাকা হাতে চার ফুটবল তারকা হাত নেড়ে পথচারীদের ভালবাসার জবাব দেন। এর পর ঐতিহাসিক খাগড়াছড়ি স্টেডিয়ামে খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে দেয়া হয় সম্মানমা স্মারক। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা, পুলিশ সুপার নাইমুল হক, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শানে আলম, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য শতরুপা চাকমা ও শাহিনা আক্তার এবং জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চাকমা উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় তিন ফুটবল কন্যাকে ও এক কোচকে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি প্রতাপ চন্দ্র বিশ^াস ৪ লাখ টাকা পুরস্কারের চেক হস্তান্তর করা হয়। অনুষ্ঠানে হাজারো মানুষের ভালবাসায় তিন কৃত্তিমান ফুটবলার আবেগ-আপ্লুত হয়ে পড়েন। নিজের জেলায় এমন সংবর্ধনা পেয়ে উচ্ছ্বসিত নারী ফুটবলাররা।

জেলাবাসীর এমন আন্তরিকতায় কৃতজ্ঞতা জানিয়ে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য ক্রীড়া উপযোগী সুযোগ সুবিধা তৈরিতে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ চান আনাই আনুচিং ও মনিকা ।তারা জেলা পর্যায়ে  ফুটবলে নারীর অংশগ্রহণ বাড়ানোর ওপর জোর দেন এবং দুর্গম এলাকার খেলোয়াড়কে যাতে নিয়মিত অংশ নিতে পারে সেজন্য আবাসিক হোস্টেল নির্মাণের দাবি জানান। ভবিষ্যতে বিদেশী লীগে খেলতে চান পাহাড়ী এ নারী ফুটবলাররা। এ সময় তারা আরও বলেন  আগের অনেকবার বাড়ি ফিরেছি তবে এবারের বাড়ির ফেরার অনুভূতি অন্যরকম।
গেল ১৯ সেপ্টেম্বর হিমালয়ের দেশ নেপালের মাটিতে স্বাগতিক দেশকে ৩-১ গোলে হারিয়ে সাফ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। দেশে ফিরে অধীর অপেক্ষায় ছিলেন জন্মভূমি পাহাড়ী জেলা খাগড়াছড়িতে। তবে জাতীয়ভাবে সংবর্ধনাসহ অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতায় বাড়ি ফিরতে হয়েছে অনেক দেরিতে। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহ-কোচ তৃষ্ণা চাকমা বলেন পর্যাপ্ত সুযোগ পেলে পাহাড়ী এলাকায় আরও নারী ফুটবলার সৃষ্টি হবে। এদিকে জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সাফ নারী ফুটবল জয়ী খাগড়াছড়ির চার কৃতী সন্তান কৃষ্ণা, আনুচিং, আনাই ও মনিকাদের উষ্ণ অভ্যর্থনার মাধ্যমে সংবর্ধনা দিয়েছে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেয়া হয়।
শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে পুলিশ লাইন্সের ড্রিল সেডে তাদের সংবর্ধনা জানানো হয়। পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির আয়োজনে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ির  পুলিশ সুপার নাইমুল হক। খাগড়াছড়ি সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিনিয়া চাকমার সঞ্চালনায় পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির সভানেত্রী রেহানা ফেরদৌস এর সভাপতিত্বে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান, কে এইচ এম এরশাদ ও খাগড়াছড়ি  প্রেস ক্লাবের সভাপতি জিতেন বড়ুয়া অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন।
উল্লেখ্য, খাগড়াছড়ির তারকা ফুটবলারদের নানা সমস্যা সমাধানে জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। তিনি আনাই-আনুচিং এবং মনিকা চাকমার বাড়ি সরেজমিন পরিদর্শন করে তাদের মা-বাবা স্বজন ও  স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  সঙ্গে কথা বলে তাদের সমস্যা জেনেছেন। সরকারী অর্থায়নে জেলা  প্রশাসনের প্রতিশ্রুত মনিকা চাকমার বাড়ি নির্মাণ ও বিদ্যুতায়ন, আনাই-আনুচিংদের বাড়িতে গভীর নলকূপ স্থাপন ও বিদ্যুতায়ন করেছেন। সে সঙ্গে জেলার তিন কৃতী ফুটবলারকে দুই লাখ টাকা করে সঞ্চয়পত্র করে দিয়েছেন। সর্বশেষ এবার সাফ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় তিন কৃতী ফুটবলার ও সহকারী কোচ তৃষ্ণা চাকমাকেও এক লাখ টাকা করে প্রদান করেন।

monarchmart
monarchmart