ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

ইংল্যান্ড-উইন্ডিজ-প্রোটিয়া, বাদ পড়ছে কে?

শাকিল আহমেদ মিরাজ

প্রকাশিত: ০০:৩৪, ২৩ জুন ২০২৪

ইংল্যান্ড-উইন্ডিজ-প্রোটিয়া, বাদ পড়ছে কে?

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ৩৯ বলে ৮২ রানের অপরাজিত ম্যাচজয়ী ইনিংস খেলার পথে ছক্কা হাঁকাচ্ছেন উইন্ডিজ ওপেনার শাই হোপ

ইংল্যান্ডের সঙ্গে ন্যূনতম প্রতিরোধ গড়তে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। চারদিকে সমালোচনা, প্রধান কোচ ড্যারেন সামি বলছিলেন, একটা মাত্র হারে সবকিছু শেষ হয়ে যায়নি। যুক্তরাষ্ট্রকে খড়কুটোর মতো উড়িয়ে দিয়ে সেই তারা কেবল সেমির রেসেই ফেরেনি, নেট রান রেটেও ইংলিশদের তিনে নামিয়ে দুইয়ে উঠে এসেছে ক্যারিবীয়রা (+১.৮১৪, পয়েন্ট ২)। তাতে করে জমে উঠেছে সুপার এইটে গ্রুপ-২ থেকে সেমিতে ওঠার লড়াই।

যুক্তরাষ্ট্র এবং ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকাও (+০.৬২৫) স্বস্তিতে নেই; কারণ অ্যান্টিগায় সোমবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ছয়টায় তাদের প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্যতিক্রম কিছু না ঘটলে ওই ম্যাচটাই হয়ে উঠতে যাচ্ছে গ্রুপ-২এর অঘোষিত কোয়ার্টার! কারণ বার্বাডোজে আজ রাত সাড়ে আটটায় ফেভারিট হিসেবে মাঠে নামছে ইংল্যান্ড (+০.৪১২, পয়েন্ট ২)। প্রত্যাশিত জয় পেলে রেসে থাকবে জস বাটলারের দল। তিন দলেরই পয়েন্ট সমান হলে রানরেট হয়ে উঠবে মূল ‘ফ্যাক্টর’।  
আর নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইংলিশদের কাছে হারলেও এই জায়গাতেই প্রতিপক্ষকে টেক্কা দিয়েছে ক্যারিবীয়রা। কেনসিংটন ওভালে ১ বল বাকি থাকতে যুক্তরাষ্ট্রকে ১২৮ রানে অলআউট করে রোভমান পাওয়েলের দল সেটি পেরিয়ে গেছে ৯ উইকেট ও ৫৫ বল হাতে রেখে। ৩৯ বলে অপরাজিত ৮২ রানের টর্নোডে ইনিংসের পথে ৪ চারের বিপরীতে ৮টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন শাই হোপ! অবশ্য ১৯ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন স্পিনিং-অলরাউন্ডার রোস্টন চেইস।

টানা দুই হারের পর সহ-আয়োজক যুক্তরাষ্ট্র কার্যত বিদায়। এবার ইংলিশরা তাদের ওপর দিয়ে কতটা স্ট্রিম রোলার চালায়, সেটিই দেখার অপেক্ষা! গ্রুপ-পর্বে স্কটল্যান্ড ম্যাচ বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারÑ বাটলারদের সেরা আটে ওঠা নিয়েই ছিল সংশয়। কিন্তু ‘বি’ গ্রুপে দুর্বল ওমান ও নামিবিয়াকে গুঁড়িয়ে দিয়ে ঠিকই সুপার এইটের টিকিট কাটে বাটলারের দল। সেখানে ফিল সল্টের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে (৪৭ বলে অপরাজিত ৮৭) ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১৮০ রান চেজ করে ৮ উইকেটের বড় জয় তুলে নেয় ইংলিশরা।

দ্বিতীয় ম্যাচেই দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হারে মাত্র ৭ রানে। ৬ উইকেটে ১৬৩ রানের জবাবে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা থামে ১৫৬/৬-এ। ৩৭ বলে ৫৩ রানের ইনিংস খেলেও শেষ রক্ষা করতে পারেননি হ্যারি ব্রুক। ১৭ বলে ৩৩ রান করে ফেরেন লিয়াম লিভিংস্টোন।

যে কোনো ঘারনার ক্রিকেটে প্রথমবার ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হতে যাওয়া যুক্তরাষ্ট্র কি পারবে চমকে দিতে? অঘটন না ঘটলে কাজটা খুবই কঠিন! আর ইংলিশরা প্রত্যাশিত জয়ে ২ পয়েন্ট যুক্ত করলে গ্রুপÑ২এ ওয়েস্ট ইন্ডিজ-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচটাই হয়ে উঠবে ফয়সালার দ্বৈরথ। ফয়সালাটা ক্যারিবীয়দের জন্য, রান রেটের মারপ্যাঁচের মধ্য দিয়েও রেসে থাকতে জিততেই হবে পাওয়েলদের। হারলে নিশ্চিত বিদায়। দুইবারের সাবেক চ্যাম্পিয়নরা এবার ঘরের মাঠে সেমির আশা টিকিয়ে রাখতে তাই আরেকটা মরণ কামড় বসাতে চাইবে।

জ্বলে উঠতে হবে শাই হোপ, নিকোলাস পুরান, আন্দ্রে রাসেল, আলজারি জোসেফদের। স্লো-কন্ডিশনে তিন স্পিনার আকিল হোসেন, গুদাকেশ মোতি ও রোস্টন চেইসও স্পিনে-দুর্বল ইংলিশ ব্যাটারদের জন্য ‘ফ্যাক্টর’ হয়ে উঠতে পারেন। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ১৮ রানে ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৭ রানের জয় পেলেও সতর্ক দক্ষিণ আফ্রিকা। কোনরকম ঝামেলা ছাড়াই সরাসরি সেমির টিকিট পেতে আত্মবিশ্বাসী এইডেন মার্করামের দল। ব্যাট হাতে দারুণ ছন্দে আছেন কুইন্টন ডি কক। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৮ বলে ৪ চার ও ৪ ছক্কায় ৬৫ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হয়েছেন তুখোড় এ বাঁহাতি ওপেনার। 

২০০৭ থেকে এ পর্যন্ত ২২টি২০ ম্যাচে মুখোমুখি হয়ে সমান ১১ ম্যাচে জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সর্বশেষ এই বিশ্বকাপ শুরুর আগে ঘরের মাঠে প্রোটিয়াদের তিন ম্যাচের সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করেছিল ক্যারিবীয়রা।

×