ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০

দিনাজপুরে কৃষিমন্ত্রী

লোক দেখানো পদযাত্রা শুরু করেছে বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর

প্রকাশিত: ০০:০৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

লোক দেখানো পদযাত্রা শুরু করেছে বিএনপি

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, বিএনপি কয়েক বছর ধরে আওয়ামী লীগ সরকারের পতনের জন্য আন্দোলন করছে। তারা বলেছিল, শেখ হাসিনার সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দলীয় কার্যালয় থেকে বের হবেন না। কিন্তু ৯০ দিন পর তিনি বের হয়ে বাড়িতে ফিরে গেছেন। এখন তারা আবার লোক দেখানো পদযাত্রা শুরু করেছে। তাদের কোনো আন্দোলন সফল হয়নি। সকল আন্দোলন বিফলে গেছে।  শেখ হাসিনার পতনের জন্য আন্দোলন করে নিজেই দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন তারেক রহমান। 
মঙ্গলবার দিনাজপুর নশিপুরের  বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটে একটি কেন্দ্রীয় গবেষণা কমপ্লেক্সের উদ্বোধন ও গ্রিন হাউসে গমের ব্লাস্ট রোগ প্রতিরোধী জাত উদ্ভাবনসহ চলমান গবেষণা কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক  এ কথা বলেন। 
বিএনপির আগুন সন্ত্রাসের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, আমরা চাই সংসদে ও দেশে একটা শক্তিশালী বিরোধী দল থাকুক। সেই বিরোধী দল সংসদে সরকারের কার্যক্রমের ওপর সমালোচনা করবে। কিন্তু বিএনপি আগুন সন্ত্রাসের কার্যক্রম শুরু করেছে। তারা যাত্রীবাহী গাড়িতে অগ্নি সংযোগ করেছে। বহু মানুষকে মেরেছে। এমনকি পুলিশের গাড়িতে অগ্নি সংযোগ করেছে। যা বিশ্বে বিরল। ভারত থেকে ডিম আমদানির বিষয়ে তিনি বলেন, ইতোপূর্বে কয়েক বছরে দেশে পোল্ট্রি শিল্প ক্ষতির মুখে পড়েছিল। সে সময় খামারিরা ডিম বিক্রি করে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছিলেন। কিন্তু চলতি বছর ডিমের দাম বেশি পাওয়ায় এবার খামারিরা লাভবান হচ্ছেন। কিন্তু ডিমের দাম অত্যধিক বাড়িয়ে দিয়ে খামারিদের লাভবান হওয়া কোনোভাবে মেনে নেওয়া যায় না। তাই সরকার ডিমের দাম নির্ধারণ করে দিয়েছিল।

কিন্তু তাতেও দাম না কমায় ভারত থেকে ডিম আমদানির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আলুর দাম বৃদ্ধির বিষয়ে তিনি বলেন, চলতি বছর দেশে আলুর আবাদ কম হয়েছে। পাশাপাশি দেশের আলু বাইরের দেশে রপ্তানি করা হয়েছে। তাই দেশের বাজারে আলুর দাম বেড়েছে। তবে আলুর দাম বাড়লেও আলুর বীজের দাম গত বছরের মতোই থাকবে। কৃষকরা কম দামে আলুর বীজ পাবেন। পাশাপাশি বাংলাদেশের আলুর উৎপাদন দেখে বিভিন্ন বড় বড় কোম্পানি এখানে কাজ করার আগ্রহ দেখিয়েছে। 
কৃষিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি ও কৃষি খাদ্য নিরাপত্তার জন্য গম ও ভুট্টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে গড়ে তোলার চেষ্টা করছি। এখানকার বিজ্ঞানীদের উন্নত প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। আগামীতে আন্তর্জাতিকমানের গবেষণা কেন্দ্রে হবে বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট। আর বাংলাদেশের অর্থনীতিতে এই গবেষণা প্রতিষ্ঠান একটি বিরাট ভূমিকা রাখবে। তিনি বলেন, কৃষিকে বাণিজ্যিকীকরণ ও লাভজনক করতে চাই। কৃষি হবে উন্নত জীবনের জন্য। একজন কৃষক যাতে কৃষি কাজ করে তার সন্তানসহ পরিবারকে উন্নত জীবন যাপন করাতে পারে, সরকার সেই লক্ষ্যে কাজ করছে। তাই দিনাজপুরের সম্ভাবনাকে শতভাগ ব্যবহার করার জন্য সরকার সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কৃষি উন্নয়ন কর্মকা- করছে। এর ফলে কৃষি কাজ করে মানুষ অনেক বেশি লাভবান হবে। 
তিনি বলেন, কৃষিকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের সার্বিক অর্থনীতি আবর্তিত হয়। আমাদের সংস্কৃতি, রাজনীতিসহ সকল কিছুতেই কৃষির বিপুল প্রভাব। বাংলাদেশে ধান প্রধান ফসল। কিন্তু সম্প্রতি আমরা বলছি, ধানের সঙ্গে সঙ্গে অন্যান্য ফসল উৎপাদন করতে হবে। আর পুষ্টি জাতীয় খাবার খেতে হবে। পুষ্টি জাতীয় খাবার বলতে আমরা বুঝি- দুধ, ডিম, মাছ, মাংস ইত্যাদি। এগুলো উৎপাদন করতে গেলে পশুর মূল খাদ্য হচ্ছে কার্বোহাইড্রেট এবং প্রোটিন। আর কার্বোহাইড্রেটের সবচেয়ে সস্তা উৎস হলো ভুট্টা। দক্ষিণ আমেরিকা, আফ্রিকাসহ বিশ্বের অনেক দেশে ভুট্টা প্রধান খাদ্য হলেও বাংলাদেশে অনেকে ভুট্টা খায় না। ২০-২৫ বছর আগে আমাদের দেশে ভুট্টা কোনো ফসল ছিল না।

কিন্তু এখন ভুট্টার ব্যাপক চাহিদা। সেই চাহিদার কারণ হলো পশুখাদ্য হিসেবে ভুট্টার ব্যবহার। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন সরকার গঠন করেন, তখন ভুট্টার উৎপাদন ছিল ৬ লাখ টন। চলতি বছর বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণের ফলে এবার ভুট্টার উৎপাদন হয়েছে ৬৭ লাখ টন। যা মূলত দেশের উত্তর বঙ্গে উৎপাদিত হচ্ছে। ধান আমাদের প্রধান খাদ্য হলেও বর্তমানে তরুণরা গমের খাবার বেশি খেতে চায়।  সেইসঙ্গে গমের চাহিদা ব্যাপক বাড়ছে। 
বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. গোলাম ফারুকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব রবীন্দ্রশ্রী বড়ুয়া প্রমুখ। বিকালে মন্ত্রী দিনাজপুর শিল্পকলা মিলনায়তনে বিনা উদ্ভাবিত তেলজাতীয় ও অন্যান্য ফসলের জাতের সম্প্রসারণ বিষয়ক আঞ্চলিক কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

×