ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯

টুকরো খবর

প্রকাশিত: ০৬:৫৯, ১২ জুন ২০১৭

টুকরো খবর

হত্যাকারীদের গ্রেফতার দাবি নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ১১ জুন ॥ প্রকাশ্য দিবালোকে নজরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি হত্যার পর প্রায় এক সপ্তাহ পার হলেও খুনীদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। নজরুলের হত্যাকারী জাহাঙ্গীর আলম, সোহেল রানা ও শাহীনুরকে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে। রবিবার সকালে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ডোমেরহাটে এ রমজান মাসে তীব্র রোদকে উপেক্ষা করে গ্রামবাসীদের স্বতঃস্তূর্ত উদ্যোগে এ মানববন্ধনের কর্মসূচী পালিত হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন নিহত নজরুলের ছেলে শান্ত মিয়া, স্ত্রী আনজু বেগম, ভাগ্নি রুবি বেগম, তার ভাই মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ। বক্তারা বলেন, গত ৬ জুন পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সুন্দরগঞ্জের পশ্চিম ছাপড়হাটি ইউনিয়নের ডোমেরহাট গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম, সোহেল রানা ও শাহীনুরসহ তাদের লোকজন দিনে দুপুরে একই গ্রামের নজরুল ইসলামকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে। তিন বোমাসদৃশ বস্তু উদ্ধার সংবাদদাতা, মেহেরপুর, ১১ জুন ॥ সদর উপজেলার মনোহারপুর গ্রামের কবরস্থান থেকে তিনটি বোমাসাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যায় ওই বোমাগুলো উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানায়, বিকেলে মনোহারপুর গ্রামের ঈদগাহ মাঠে ক্রিকেট খেলছিল ছেলেরা। বলটি গোরস্তানে চলে গেলে কয়েকজন আনতে যায়। এ সময় কালো টেপ জড়ানো কয়েকটি বস্তু দেখে তারা পুলিশে খবর দেয়। নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার দাবিতে অবরোধ স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ মণিরামপুরের ঝাঁপা বাওড়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ও মৎস্য লুটকারীদের শাস্তির দাবিতে সড়ক অবরোধ করেছে বাওড় এলাকার কয়েক শ’ নারী-পুরুষ। রবিবার বেলা আড়াইটার দিকে উপজেলা পরিষদের সামনে এ অবরোধে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী স্থায়ী হয়। পরে পুলিশের উপস্থিতিতে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। জানা যায়, মণিরামপুরের ঝাঁপা বাওড়ের ইজারার ঘটনায় বিভাগীয় কমিশনারের সিদ্ধান্ত মোতাবেক সোনার বাংলা মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির পক্ষে প্রায় ৬০ লাখ টাকা প্রদান করে ১৮ মে চুক্তি সম্পাদন করে সরকার পক্ষ। এর পরপরই সমিতির পক্ষ থেকে কয়েক লাখ টাকার মাছ অবমুক্ত করা হয়। এর পর স্থানীয় এক ব্যক্তির আবেদনের প্রেক্ষিতে ভূমি আপীল বোর্ড ২৩ মে ওই চুক্তি আদেশের ওপর স্থগিতাদেশ জারি করেন। ওই বাওড়ের মাছ লুটপাট বন্ধ এবং প্রকৃত মৎস্যজীবীদের মাছ ধরার ওপর স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে রবিবার মনিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে সড়ক অবরোধ করে মৎস্যজীবীরা। চার পুলিশসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ১১ জুন ॥ পলাশবাড়ীতে পুলিশ হেফাজতে রিপন চন্দ্র দাস নামে এক আসামির মৃত্যুর ঘটনায় সুন্দরগঞ্জ থানার ৪ পুলিশ সদস্যসহ১০ জনকে আসামি করে আদালতে মামলা করা হয়েছে। নিহত রিপন চন্দ্র দাসের বাবা বাবলু চন্দ্র দাস বাদী হয়ে রবিবার দুপুরে পলাশবাড়ী আমলী আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার আসামিরা হলো সুন্দরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাজু আহম্মেদ, পুলিশ কনস্টেবল শাহানুর আলম, মোস্তাফিজুর রহমান, নার্গিস বেগম এবং স্থানীয় ইউপি সদস্য মমতাজ উদ্দিন, সুরিশ চন্দ্র দাস, তার মেয়ে চম্পা রানী, আলম মিয়া, অমল চন্দ্র দাস ও রতন চন্দ্র দাস। বাদী পক্ষের আইনজীবী সামিউল হক সামি জানান, আদালতের বিচারক মোঃ জয়নাল আবেদীন মামলাটি এফআইআর হিসেবে গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দেন। মামলা এজাহারে বাদী উল্লেখ করেন, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের হাতিয়া গ্রামের বাবলু চন্দ্র দাসের ছেলে রিপনের সঙ্গে প্রতিবেশী সুরেশ চন্দ্র দাসের মেয়ে চম্পা রানীর মধ্যে ভালবাসার সম্পর্ক ছিল। গত ২৯ মে তারা দুজন বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে বগুড়ার কাহালুতে ছেলের এক আত্মীয়ের বাড়িতে ওঠে। পরে সেখানে তাদের বিয়ে হয়। এ ঘটনায় চম্পার বাবা সুরিশ চন্দ্র দাস বাদী হয়ে অপহরণের অভিযোগ এনে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে সুন্দরগঞ্জ থানার এসআই রাজু আহমেদের নেতৃত্বে স্থানীয় ইউপি সদস্য মমতাজ আলীসহ সঙ্গীয় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১ জুন বগুড়ার কাহালু থেকে চম্পাকে উদ্ধার ও রিপনকে গ্রেফতার করে। ওইদিনই তাদের মাইক্রোবাসে কাহালু থেকে সুন্দরগঞ্জ থানায় নিয়ে আসা হচ্ছিল। পথে পুলিশ ইউপি সদস্য মমতাজ উদ্দিনের পরোক্ষ সহযোগিতায় রিপনকে মাইক্রোবাসে মারপিট করে হত্যা করে। ঈশ্বরদী পৌরসভায় বাজেট ঘোষণা স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরদী ॥ রবিবার বিকেলে ঈশ্বরদী পৌরসভার বাজেট ঘোষণা উপলক্ষে পৌর চত্বরে উন্মুক্ত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেনÑ পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু। সভার শুরুতে ২০১৭-১৮ সালের জন্য ৮৪ কোটি ৯৮ লাখ ৮৫ হাজার ৬৯৩ টাকা ৯৪ পয়সার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করা হয়। এর মধ্যে রাজস্ব খাতের আয় ধরা হয়েছে ৭ কোটি ৫৬ লাখ ৭৫ হাজার, রাজস্ব সাধারণ খাতে ৬ কোটি ৯৪ লাখ ৩৩ হাজার টাকাসহ সর্বমোট ৮৪ কোটি ৯৮ লাখ ৮৫ হাজার ৬৯৩ টাকা ৯৪ পয়সার।