ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

কামরাঙ্গীরচরে জমি নিয়ে বিরোধ, যুবক খুন

প্রকাশিত: ১১:২৩, ৩ অক্টোবর ২০২২

কামরাঙ্গীরচরে জমি নিয়ে বিরোধ, যুবক খুন

ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর কয়লার ঘাট এলাকায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মুন্না (৩৬) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন। তিনি চকবাজারের একটি শো পিসের দোকানে কাজ করেন। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন মুন্নার দুই ভাই। তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার (২ অক্টোবর) বিকেল ৫টার দিকে তারা মসজিদ রোডের ‘জজ বাড়ি’তে এই ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় তাদেরকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে মুন্নার মৃত্যু হয়।

আহত বাকি দুজন হলেন- তার অপর ভাই প্রাইভেটকার চালক বাহা উদ্দিন সানজিদ (৩০), ও ইন্টার্নেট ব্যবসায়ী মোরসালিন হোসেন (২৯)।

আহতদের বরাত দিয়ে তাদের দূরসম্পর্কের চাচাতো ভাই মো. সঞ্জু আহমেদ জানান, তাদের আপন চাচা পলাশ আহমেদের সাথে তাদের বাড়ির জায়গা নিয়ে বিরোধ চলছিলো দীর্ঘদিন ধরে। তাদের বাড়ি পাশাপাশি। চাচা পলাশ সেখানে ভবন নির্মান করছেন। তবে ভবনের পাশে একটুও জায়গা খালি রাখেনি। এনিয়ে আজ তারা ৩ ভাই চাচাকে কাজ বন্ধ করতে বলেন। এতে তাদের উপর চড়াও হন চাচা। এক পর্যায়ে চাচা পলাশ, চাচাতো ভাই পুলক (১৬), শামীম (২১) সহ আরও ৪-৫ জন ধারালো অস্ত্রো নিয়ে তাদের উপর আক্রমণ করে। এলোপাতারি কুপিয়ে আহত করে তাদের।

তিনি জানান, খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসাধীন সেখানে মুন্না মারা যান।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন মুন্না মারা গেছেন। তার পেটের বাম পাশে ছুরিকাঘাত রয়েছে। এছাড়া সানজিদের মাথায়, পাজরে আর মোরসালিনের বুকে, হাতে ছুরিকাঘাত রয়েছে।

স্বজনরা জানান, তাদের বাবার নাম মৃত ইমরান আহমেদ। চাচা পলাশ আহমেদ ৬ বছর আগে এই তিন ভাতিজাকে একটি মামলায় জেল খাটান। সেই মামলায় পরবর্তিতে তারা জামিনে বের হন।

এমএইচ

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart