ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

একের পর এক এলাকা দখল করছে রাশিয়া

পিছু হটছে ইউক্রেন সেনা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:৫৪, ২ মার্চ ২০২৪

পিছু হটছে ইউক্রেন সেনা

ইউক্রেনীয় সেনাদের অবস্থানে রাশিয়ার আক্রমণ

গত কয়েক সপ্তাহে ইউক্রেন যুদ্ধের ভর রাশিয়ার দিকে ঝুঁকে পড়তে দেখা যাচ্ছে। ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দোনেৎস্ক প্রদেশের গুরুত্বপূর্ণ শহর আভদিভকার পতনের পর অল্প সময়ের ব্যবধানে বড় রকমের প্রতিরোধ ছাড়াই বেশ কিছু এলাকা দখল করেছে রুশ সেনারা। সপ্তাহ খানেক ধরে পূর্বাঞ্চলীয় ফ্রান্টলাইনে প্রতিরক্ষা লাইন টিকিয়ে রাখতে আপ্রাণ চেষ্টা করছে ইউক্রেনীয় সেনারা। কিন্তু তার পরেও রুশ আক্রমণে পিছু হটতে বাধ্য হচ্ছে ইউক্রেনীয় সেনারা। খবর তাস ও আলজাজিরার।
এদিকে শনিবার ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় শহর চাসিভ ইয়ারের আশপাশে বিশাল সেনাবাহিনী মোতায়েন করেছে রাশিয়া। ইউক্রেনের এক কর্মকর্তা জানান, দোনেৎস্ক অঞ্চল পুরোপুরি দখলে নেওয়ার জন্যই রুশ বাহিনী এ তৎপরতা চালাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, গত মে মাসে রুশ বাহিনী ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলীয় গুরুত্বপূর্ণ শহর বাখমুত দখলে নেওয়ার পর এখন কোস্টিয়ানতিনিভকা, ক্রামতোর্স্ক এবং স্লোভিয়ানস্কের দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

তার দাবি, গত তিন সপ্তাহ ধরেই রুশ পদাতিক বাহিনীর অব্যাহত আক্রমণের মুখে পড়েছে তারা। রুশ বাহিনী নানা ধরনের কামান ও ড্রোন দিয়ে আক্রমণ চালাচ্ছে। যদিও রাশিয়ার আক্রমণগুলো বেশ ধীরগতির এবং ব্যয়বহুল। তারপরও ইউক্রেন বাহিনী এখন পর্যন্ত পশ্চিমা সামরিক সহায়তা না পাওয়ায় তাদের গোলাবারুদ কমে গেছে। ফলে তারা রুশ বাহিনীকে উপযুক্ত জবাব দিতে পারছে না। 
এদিকে খারকিভ অঞ্চল সফর করেছেন ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট। এ সময় প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির সঙ্গে ডাচ প্রধানমন্ত্রীর এক দ্বীপক্ষীয় চুক্তি হয়। চুক্তি মতে, চলতি বছর ইউক্রেনকে দুই বিলিয়ন সামরিক সহায়তা এবং আগামী ১০ বছরে প্রতিরক্ষা সহায়তা দিয়ে যাবে নেদারল্যান্ডস। ইউক্রেনের সেনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আর্টিলারি শেল এবং অন্যান্য অস্ত্রশস্ত্রের ঘাটতির কারণে ১ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ ফ্রন্টলাইন ধরে রাখা তাদের জন্য কঠিন হয়ে পড়ছে।

রাশিয়ার ব্যাটলগ্রুপ সাউথের ইউনিটগুলো দোনেৎস্ক এলাকায় তাদের সম্মুখ সারির অবস্থান জোরদার  করেছে। এর ফলে ইউক্রেন ৪১০ জন সৈন্য হারাতে পারে। ব্যাটলগ্রুপের মুখপাত্র ভাদিম আস্তাফিয়েভ এ কথা জানিয়েছেন।
ইউক্রেনের সেনাপ্রধান ওলেক্সান্ডার সিরস্কি বলেছেন, আভদিভকার পশ্চিমে ওরলিভকা গ্রামে রুশ সেনাদের আক্রমণ প্রতিহত করেছে ইউক্রেনীয় সেনারা। কিন্তু পূর্বাঞ্চলীয় রণক্ষেত্রের পরিস্থিতি এখনো কঠিন। লাস্তোচকাইন গ্রাম থেকে উত্তর-পশ্চিমে দুই কিলোমিটারের কম দূরত্বে অবস্থিত ওরলিভকা গ্রাম। চলতি সপ্তাহে রুশ সেনারা লাস্তোচকাইন দখল করেছে।

×