ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

যে কারণে ভারতে ঘণ্টায় ৩ হত্যা!

প্রকাশিত: ১৭:৪৩, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩

যে কারণে ভারতে ঘণ্টায় ৩ হত্যা!

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট 

২০২২ সালের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ভারতে  প্রতি ঘণ্টায় ৩ জন খুন হয়েছেন। এ হিসেবে দেশটিতে গত বছর গড়ে প্রতিদিন ৭৮ জন খুন হয়েছেন।  হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছেন মোট ২৮ হাজার ৫২২ জন।  

আরও পড়ুন : স্বামীর ওপর অভিমান করে নবজাতককে বিক্রি! 

ভারতের ২৮টি রাজ্য ও ৮টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মধ্যে ২০২২ সালে সবচেয়ে বেশি হত্যার ঘটনা ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। পুলিশের রেকর্ড অনুযায়ী, গত বছর ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট ৩ হাজার ৪৯১টি হত্যাকাণ্ড হয়েছে ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় এই রাজ্যটিতে।

২ হাজার ৯৩০টি হত্যার ঘটনা নিয়ে এ তালিকায় উত্তরপ্রদেশের পরেই অবস্থান করছে বিহার। এছাড়া  তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র (২ হাজার ২৯৫টি হত্যা), চতুর্থ স্থানে মধ্যপ্রদেশ (১ হাজার ৯৭৮টি হত্যা), ৫ম স্থানে রাজস্থান (১ হাজার ৮৩৪টি হত্যা) এবং ষষ্ঠ স্থানে আছে পশ্চিমবঙ্গ (১ হাজার ৬৯৬টি হত্যা)।

তুলানমূলকভাবে ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে গত বছর হত্যার সংখ্যা অনেক কম। গত বছর ভারতের রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম হত্যা হয়েছে সিকিমে। ২০২২ সালের গোটা বছর মাত্র ৯টি হত্যা দেখেছে এই রাজ্যটিতে।

কম হত্যা দেখা রাজ্যগুলোর তালিকায় সিকিমের পরে রয়েছে যথাক্রমে নাগাল্যান্ড (২১টি হত্যা), মিজোরাম (৩১টি হত্যা), গোয়া (৪৪টি হত্যা) এবং মণিপুর (৪৭টি হত্যা)।

নিহতদের ৯৪ দশমিক ৪ শতাংশই প্রাপ্তবয়স্ক এবং এদের মধ্যে ৭০ শতাংশই পুরুষ। এছাড়া নারী নিহতের সংখ্যা ৮ হাজার ১২৫ জন এবং তৃতীয় লিঙ্গের সংখ্যা ৯ জন।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো (এনসিআরবি) তাদের সর্বশেষ প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে এসব তথ্য।

বছরজুড়ে ভারতের বিভিন্ন রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের পুলিশ স্টেশনগুলোতে আসা অভিযোগ যাচাই-বাছাই ও বিশ্লেষণের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি প্রস্তুত করেছে এনসিআরবি। সংস্থাটির বিশ্লেষণে দেখা গেছে, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এসব হত্যাকাণ্ডের কারণ ‘বিবাদ’।

এছাড়া অন্যান্য কারণের মধ্যে রয়েছে ব্যক্তিগত শত্রুতা, যৌতুক, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক, ডাইনিপ্রথা, নরবলি, ধর্মীয় এবং সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা, জাতিগত কারণ, রাজনৈতিক কারণ, শ্রেণী বিবাদ, সম্মানরক্ষার্থে খুন (অনার কিলিং) এবং প্রেমের সম্পর্ক।

সূত্রঃ এনডিটিভি

এবি 

×