ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১

এবার আইসিসির বিরুদ্ধে রাশিয়ার পাল্টা মামলা

প্রকাশিত: ১৫:৩০, ২১ মার্চ ২০২৩

এবার আইসিসির বিরুদ্ধে রাশিয়ার পাল্টা মামলা

রাশিয়ার মামলা

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করায় আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) বিচারক ও প্রসিকিউটরদের নামে ফৌজদারি মামলা করেছে রাশিয়ার তদন্ত কমিটি।

আইসিসির প্রসিকিউটরের পদক্ষেপটিতে রুশ আইনে অপরাধ হিসেবে গণ্য হওয়ার মতো আলামত লক্ষণীয় বলে উল্লেখ করেছে তদন্ত কমিটি। কারণ হিসেবে তদন্ত কমিটি বলেছে, আইসিসি জেনেশুনে একজন নির্দোষ ব্যক্তির বিরুদ্ধে ফৌজদারি অপরাধের অভিযোগ এনেছেন।

রাশিয়ার তদন্ত কমিটি বলেছে, আইসিসির প্রসিকিউটর ও বিচারকেরা আন্তর্জাতিক সম্পর্ককে জটিল করতে আন্তর্জাতিক সুরক্ষা পাওয়া একটি বিদেশি রাষ্ট্রের প্রতিনিধির ওপর হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে তারা সন্দেহ করছে।

ক্রেমলিন ইতিমধ্যে আইসিসির পরোয়ানা জারির বিষয়টিকে অত্যন্ত গর্হিত কাজ বলে অভিহিত করেছে। একই সঙ্গে এই পরোয়ানাকে আইনত অকার্যকর বলে বর্ণনা করেছে তারা। কারণ, আইসিসি গঠনের চুক্তিতে রাশিয়া সই করেনি।

গতকাল মস্কোর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রাশিয়া ও ব্যক্তি পুতিনের বিরুদ্ধে আগে থেকেই থাকা স্পষ্ট বৈরিতার চিহ্ন আইসিসির এই পরোয়ানা।

গতকাল সোমবার রাশিয়ার শীর্ষ তদন্ত সংস্থার পক্ষ থেকে এ কথা জানানো হয়। মস্কো যে আইসিসির পরোয়ানাকে তোয়াক্কা করে না, তার একটি প্রতীকী পদক্ষেপ রাশিয়ার তদন্ত কমিটির এই মামলা।

রাশিয়ায় করা এই মামলায় আইসিসির বিচারক তোমোকো আকানে, রোজারিও সালভাতোরে আইতালা, সার্জিও জেরার্ডো উগালদে গোদিনেজ ও প্রসিকিউটর করিম খানকে আসামি করা হয়েছে।

গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রাশিয়া। ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে গত শুক্রবার পুতিন ও তাঁর কার্যালয়ের শিশু অধিকারবিষয়ক কমিশনার মারিয়া এলভোভা-বেলোভার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আইসিসি।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় তদন্ত কমিটি বলেছে, পুতিনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলার কোনো আইনগত ভিত্তি নেই। কারণ, ১৯৭৩ সালের জাতিসংঘ কনভেনশনের অধীন রাষ্ট্রপ্রধানেরা পূর্ণ দায়মুক্তি পেয়ে থাকেন।

সূত্র রয়টার্স

টিএস

×