ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি

মিশা সভাপতি ডিপজল সম্পাদক

সংস্কৃতি প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৩:২১, ২০ এপ্রিল ২০২৪

মিশা সভাপতি ডিপজল সম্পাদক

মিশা সওদাগর ও মনোয়ার হোসেন ডিপজল

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪-২৬ মেয়াদের নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফল জানা গেল শনিবার সকাল পৌনে ৭টায়। ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার খোরশেদ আলম খসরু। এর আগে শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ শেষ হয় সন্ধ্যা ৬টা ২০মিনিটে। 
এবারের নির্বাচনে চমক দেখিয়েছে মিশা-ডিপজল প্যানেল। সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন এই প্যানেল থেকে প্রার্থী হওয়া মিশা সওদাগর ও মনোয়ার হোসেন ডিপজল। এ ছাড়া মোট প্রার্থীর তিনজন ছাড়া বাকি সবাই জিতেছেন এই প্যানেল থেকে।
সহ-সভাপতি পদে জয়লাভ করেছেন মিশা-ডিপজল প্যানেলের মাসুম পারভেজ রুবেল ও ডি এ তায়েব, সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে আরমান, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে জয় চৌধুরী, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আলেকজান্ডার বো, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক পদে জ্যাকি আলমগীর এবং কোষাধ্যক্ষ নির্বাচিত হয়েছেন কমল। এ ছাড়া সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে কলি-নিপুণ প্যানেলের মামনুন ইমন বিজয়ী হয়েছেন।
২৬৫ ভোট পেয়ে এ মেয়াদের নতুন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা এবং বিগত দুই মেয়াদের সভাপতি মিশা সওদাগর। মাহমুদ কলি ১৭০ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়েছেন। ২২৫ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। ১৭ ভোট কম পেয়ে পরাজিত হয়েছেন নিপুণ আক্তার (২০৯)।
কার্যনির্বাহী পরিষদের ১১ জনের কে কত ভোট পেয়েছেন তার তালিকা :
কার্যনির্বাহী সদস্য পদে মিশা-ডিপজল পরিষদ থেকে নির্বাচিত হয়েছেন ৯ জন। তারা হলেন-সুচরিতা (২২৮), রোজিনা (২৪৩), আলীরাজ (২৩৯), সুব্রত, দিলারা ইয়াসমিন (২১৮), শাহনূর (২৪৫), নানা শাহ (২১০), রতœা কবির (২৬৩) ও চুন্নু (২৪৮)। এ ছাড়া কলি-নিপুণ পরিষদ থেকে রিয়ানা পারভিন পলি (২২০) ও সনি রহমান (২৩০) কার্যনির্বাহী সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন।
বিজয়ী হয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় ডিপজল বলেন, আমরা সবাই এক। সবাই একসঙ্গে কাজ করব। 
ভোটে হেরে ডিপজলকে নিয়ে নিপুণ বলেন, আমার মনে হয় আমার টার্ম থেকে আমি খুব সুন্দর একটি নির্বাচন পরিচালনা করেছি। যার সঙ্গে নির্বাচন করেছি, আমি চিন্তাও করি নাই মাত্র ১৭ ভোটে আমি তার কাছে হারব। আমি ভেবেছিলাম ডিপজল সাহেবের সঙ্গে আমি যখন দাঁড়াব, খুব বেশি হলে ৫০টা ভোট পাব। ডিপজল ভাইয়ের বিপক্ষে মাত্র ১৭ ভোটে হারব সত্যিই সেটা আমি চিন্তাও করিনি।

তবে ভোট নষ্ট না হলে ফলাফল অন্য রকমও হতে পারত এমন ইঙ্গিত দেন এই অভিনেত্রী। তিনি বলেন, আমার ২৬টা ভোট নষ্ট হয়েছে, ২০৯টি ভোট আমি পেয়েছি। যেখানে ডিপজল ভাই পেয়েছেন ২২৫টি ভোট। শিল্পী সমিতির ভাইবোনরা প্রমাণ করে দিয়েছেন যে, তারা আমাকে ভালোবাসেন। আমাকে এত সম্মান দেওয়ার জন্য আমি তাদের ধন্যবাদ দিতে চাই।
শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে ভোট গ্রহণ শেষ হয়। এর আগে ব্যাপক নিরাপত্তার মধ্যে সকাল সাড়ে নয়টায় এফডিসির শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ৫৭০ ভোটের মধ্যে ভোট পড়েছে ৪৭৫টি। এবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু।

×